• মঙ্গলবার   ২২ জুন ২০২১ ||

  • আষাঢ় ৯ ১৪২৮

  • || ১১ জ্বিলকদ ১৪৪২

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
মঙ্গলবার থেকে সাত জেলায় লকডাউন, বন্ধ গণপরিবহন সেনাবাহিনীর অপারেশনাল সক্ষমতা বেড়েছে: প্রধানমন্ত্রী একসঙ্গে ঘর পেল ৫৩ হাজার অসহায় পরিবার, বিশ্বে নজিরবিহীন বিশ্ব শান্তি সূচকে সাত ধাপ এগোলো বাংলাদেশ ফিলিস্তিন রাষ্ট্র গঠনে অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করলেন রাষ্ট্রপতি বিধিনিষেধ বাড়লো আরো এক মাস সুন্দরবনের আয়তন ও বাঘের সংখ্যা বেড়েছে: প্রধানমন্ত্রী দেশের উন্নয়নে যেন কোনোভাবেই সুন্দরবন ক্ষতিগ্রস্ত না হয় রাষ্ট্রপতি কাজাখ রাজধানীতে ওআইসি সম্মেলনে ভার্চুয়ালি যোগ দিবেন এসএসএফের দক্ষতা বৃদ্ধিতে সুযোগ সৃষ্টি করে দিচ্ছি : প্রধানমন্ত্রী একটা করে বনজ, ফলজ ও ভেষজ গাছ লাগান: প্রধানমন্ত্রী করোনায় কোনো রকম রিস্ক না নিতে বলেছেন প্রধানমন্ত্রী এয়ার মার্শাল র‌্যাঙ্ক ব্যাজ পরলেন নতুন বিমানবাহিনী প্রধান স্কুল-কলেজে ছুটি আবার বাড়ল গণতন্ত্রের মুক্তি দিবস ১১ জুন মডেল মসজিদের মাধ্যমে ইসলামের মর্মবাণী বুঝবে মানুষ ইসলাম আমাদের মানবতার শিক্ষা দিয়েছে : প্রধানমন্ত্রী খুন করে কি বেহেশতে যাওয়া যায়, প্রধানমন্ত্রীর প্রশ্ন ‘লেবাস নয়, ইনসাফের ইসলামে বিশ্বাস করি’ একযোগে ৫০ মডেল মসজিদ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

সেপ্টেম্বরের শেষে আবার ভাসানচরে রোহিঙ্গা নেওয়া শুরু হবে

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ১০ জুন ২০২১  

আগামী সেপ্টেম্বরের শেষের দিক থেকে রোহিঙ্গাদের আবার ভাসানচরে স্থানান্তর শুরু হবে বলে জানিয়েছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মোহসীন। তিনি বলেন, পলিসি ইস্যু হলেই স্থানান্তরের কাজ শুরু করবো। আমাদের আরো এক দুইটি মিটিং লাগবে, সেগুলো শেষ করে আশা করছি সেপ্টেম্বরের শেষের দিক থেকে আমরা আবার নেওয়া শুরু করবো।

বৃহস্পতিবার (১০ জুন) সচিবালয়ে দুপুরে কক্সবাজারে থাকা রোহিঙ্গাদের ভাসানচরে স্থানান্তরের বিষয়ে বৈঠক শেষে তিনি এ কথা জানান।

এ সময় ইউএনএইচসিআরের প্রতিনিধি জনস ভ্যান ডার কালাউ, আইএম'র মিশন প্রধান গিওর্গি গিগাউরি, ডাব্লিউএফপি কান্ট্রি রিপ্রাজেন্টেটিভ মি. রিচার্ড রেগান উপস্থিত ছিলেন।

সচিব বলেন, কক্সবাজারে থাকা রোহিঙ্গাদের জায়গা সঙ্কট থাকায় তাদের জন্য ভাসানচরে একটি জায়গা নির্ধারণ করা হয়েছে। আমাদের মূল উদ্দেশ্য হলো এই মানুষগুলোকে তাদের দেশ মান মানসম্মতভাবে ফেরত নেবে, সেই লক্ষ্যে কাজ করছে ইউএন। যেহেতু এটা একটা লম্বা প্রসেস, তাই আপাতত এই ব্যবস্থা। রোহিঙ্গারা যেখানে আছেন সেটি পাহাড়ি এলাকা, কিছুদিন আগেও প্রচুর বৃষ্টি হওয়ায় অনেক জায়গায় দেয়াল ধসে গেছে। সেজন্য গত ৬ তারিখ মূখ্যসচিবসহ সভা হয়েছে। সেখানে ১০ জন অ্যাম্বাসেডর উপস্থিত ছিলেন। সেখানে রিপোর্টিং করা হয়েছে ভাসানচরে এই মুহুর্তে আছে ১৮ হাজার ৮৯০ জন মানুষ।

তিনি বলেন, আমাদের টার্গেট সেখানে ১ লাখ রোহিঙ্গাকে নিয়ে যাবো। কীভাবে এটি বাস্তবায়ন করা যাবে সেজন্য কমিটি গঠন করা হয়েছে। তাদের প্রথম মিটিং হয়েছে। সেখানে আমরা একটি টাইমলাইন ঠিক করেছি। আগামী ১৭ তারিখের মধ্যে একটি পলিসি ডকুমেন্টের ড্রাফট তাদের তরফ থেকে দেবেন।

সচিব বলেন, পলিসি ইস্যু হলে আমাদের কার্যক্রমে সমস্যা হবে না।