শনিবার   ১৮ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ৫ ১৪২৬   ২২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
ঢাকা সিটি ভোট পিছিয়ে ১ ফেব্রুয়ারি করার সিদ্ধান্ত ইসির এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা পিছিয়ে ৩ ফেব্রুয়ারি সংসদের দক্ষিণ প্লাজায় সোমবার মান্নানের জানাজা এমপি আব্দুল মান্নানের মৃত্যুতে গভীর শোক রাষ্ট্রপতির পদ্মা সেতুর ২২তম স্প্যান বসছে এ মাসেই আব্দুল মান্নানের মৃত্যুতে ওবায়দুল কাদেরের শোক এমপি মান্নানের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক বয়ানে চলছে দ্বিতীয় দিনের ইজতেমা,কাল আখেরী মোনাজাত বিপিএলে প্রথম শিরোপার স্বাদ পেলো রাজশাহী আদালতে মজনুর স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সাউন্ড সিস্টেমে জাতীয় সংগীত পরিবেশন করা যাবে ১ ফেব্রুয়ারি থেকে এসএসসি শুরু ১৫তম শিক্ষক নিবন্ধনে উত্তীর্ণদের সনদ ১৯ জানুয়ারি প্রথম আলোর সম্পাদকসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা ২৫ জানুয়ারি থেকে এক মাস কোচিং সেন্টার বন্ধ আমরা ক্রসফায়ারকে সাপোর্ট করতে পারি না : ওবায়দুল কাদের পোশাক রপ্তানিকে ছাড়িয়ে যাবে আইসিটি : জয় বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব শুরু কাল বিশ্ব ইজতেমার ২য় পর্বে ময়দানে আসতে শুরু করেছেন মুসল্লিরা অন্ধকার ভেদ করে আলোর পথে বাংলাদেশ: সংসদে প্রধানমন্ত্রী
১১

সু চি’র সাফাইয়ের তীব্র নিন্দা আন্তর্জাতিক একাধিক সংস্থার

প্রকাশিত: ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯  

আন্তর্জাতিক আদালতে রোহিঙ্গা গণহত্যায় মিয়ানমারের স্টেট কাউন্সিলর অং সান সু চি’র সাফাইয়ের তীব্র নিন্দা জানিয়েছে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালসহ আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থাগুলো।

মিয়ানমারের মিথ্যাচারকে ইচ্ছেকৃত, প্রতারণাপূর্ণ ও বিপজ্জনক আখ্যা দিয়ে বিশ্লেষকরা বলছেন, রাখাইন গণহত্যা অস্বীকারের মধ্য দিয়ে চলমান সংকট যেন ঢাকা না পড়ে সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে।

এদিকে, ভোল পাল্টে রোহিঙ্গা গণহত্যা মামলায় মিয়ানমারের পক্ষে আইনি লড়াই করায় তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েছেন কানাডীয় আইনজীবী উইলিয়াম সাবাস।

আন্তর্জাতিক আদালতে অং সান সু চি'র সাফাই নিয়ে তীব্র নিন্দার ঝড় এখন বিশ্বজুড়ে। রোহিঙ্গা গণহত্যার অভিযোগে গাম্বিয়ার করা মামলায় তিনদিনের শুনানিতে নির্লজ্জ মিথ্যাচার করে সু চি। গণহত্যায় জড়িত সেনাদের পক্ষে সাফাইকে প্রতারণাপূর্ণ আখ্যা দিয়েছে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠন অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল।

সংস্থটির বিবৃতিতে বলা হয়, শুনানিতে একবারের জন্যও রোহিঙ্গা শব্দটি উচ্চারণ করেননি সু চি। এমনকি মিয়ানমার সেনাবাহিনী রোহিঙ্গাদের ওপর যে মাত্রার অত্যাচার চালিয়েছে তার ধারে কাছেও যাননি তিনি।

রোহিঙ্গাদের অধিকার রক্ষায় কার্যকর ব্যবস্থা নিতে আদালত ও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানানো হয় বিবৃতিতে।

সেনাবাহিনীর পক্ষে সাফাই গাওয়ায় সু চি'র তীব্র নিন্দা জানিয়েছে ইউরোপীয় রোহিঙ্গা কাউন্সিলও। এক বিবৃতিতে সংগঠনটি জানায়, সু চির নাকের ডগায় মিয়ানমার সেনাবাহিনী রোহিঙ্গাদের ওপর গণহত্যা চালালেও সজ্ঞানে এড়িয়ে গেছেন তিনি। আন্তর্জাতিক আদালতে মিথ্যাচারের মধ্য দিয়ে সু চি'র নেতৃত্ব ও নৈতিকতা প্রশ্নবিদ্ধ হয়েছে বলেও মনে করছে সংগঠনটি।

এদিকে, মিয়ানমারের পক্ষে আইনী লড়াই করে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েছেন কানাডার আইনজীবী উইলিয়াম সাবাস। ২০১০ সালে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে পরিকল্পিত হামলার একটি গবেষণার সঙ্গে জড়িত ছিলেন তিনি।

এর তিন বছর পর গণমাধ্যম আলজাজিরার এক তথ্যচিত্রে, রোহিঙ্গা নির্যাতনকে গণহত্যার ইঙ্গিত বলে সতর্ক করেন উইলিয়াম সাবাস। ছয় বছরের মাথায় নিজের অবস্থান পাল্টে মিয়ানমারের পক্ষে ওকালতি করেন তিনি। তবে নিজের অবস্থান পাল্টানোকে মোটেই অপরাধ হিসেবে দেখছেন না এই আইনজীবী।

মিয়ানমারের আইনজীবী উইলিয়াম সাবাস বলেন, আমি একজন আন্তর্জাতিক আইনজীবী। আন্তর্জাতিক মামলা নিয়ে আমি কাজ করি। বাদী বিবাদী উভয় পক্ষের নিজেদের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন করার অধিকার আছে। মানুষ তা না বুঝলে সেটা তাদের সমস্যা।

শুধুমাত্র পেশার খাতিরেই এই মামলা লড়াইয়ের সঙ্গে সম্পৃক্ত হওয়া বলেও দাবি করেন উইলিয়াম।

এই বিভাগের আরো খবর