মঙ্গলবার   ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০   ফাল্গুন ১২ ১৪২৬   ০১ রজব ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
রিফাত হত্যা মামলার আসামি সিফাতের বাবা গ্রেফতার কুষ্টিয়ায় জগো বাহিনীর প্রধানের ফাঁসি, ১১ জনের যাবজ্জীবন এখন পর্যন্ত বাংলাদেশ করোনামুক্ত: আইইডিসিআর লোভ-লালসার ঊর্ধ্বে থেকে দায়িত্ব পালন করতে বললেন রাষ্ট্রপতি নাঈমুল আবরার হত্যা : ৪ আসামিকে গ্রেফতারের নির্দেশ আইন মেনেই বিদেশি কম্পানিকে এদেশে ব্যবসা করতে হবে- প্রধান বিচারপতি অপ্রাপ্তবয়স্ক চার কোটি নাগরিককে এনআইডি দেবে ইসি বাকি এক হাজার কোটি টাকা তিন মাসের মধ্যে দিতে গ্রামীণফোনকে নির্দেশ পতাকার মর্যাদা ধরে রাখতে সেনা সদস্যদের প্রতি রাষ্ট্রপতির আহ্বান জুয়ার আসর থেকে আটক ২৬ দুই ইউনিভার্সিটিকে ১০ লাখ টাকা করে জরিমানা শীর্ষ সন্ত্রাসী জিসানের সহযোগী র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার দৃশ্যমান পদ্মা সেতুর পৌনে চার কিলোমিটার সারা দেশে শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত ইংরেজি উচ্চারণে বাংলা বলার সমালোচনা প্রধানমন্ত্রীর উন্নত দেশ গড়তে বেসরকারি সহযোগিতা প্রয়োজন: পররাষ্ট্রমন্ত্রী মুজিববর্ষে বিএনপিকেও আমন্ত্রণ জানানো হবে: কাদের ভণ্ডপীরসহ ৯ জনের কারাদণ্ড প্রধানমন্ত্রী সব সময় শিক্ষাকে গুরুত্ব দেন: পরিকল্পনামন্ত্রী মুজিব বর্ষে নতুন শিল্প কারখানা স্থাপন করা হবে: শিল্প প্রতিমন্ত্রী
৪৫১

সাধারনে অসাধারন মেয়র সাদিক

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ১৭ নভেম্বর ২০১৮  

ঘড়ির কাটায় তখন ১০টা ছুই ছুই,প্রকৃতিতে নেমে এসেছে শীতের আবহ।সারাদিনের কর্মব্যস্ত বরিশাল নগরীর মানুষগুলো ফিরে যাচ্ছে যার যার গৃহে।ঠিক এই সময়ে হেলমেট পরিহিত একটি কালো রংয়ের মোটরসাইকেল চালক তার গাড়ি থামিয়ে নেমে এলেন।নগরীর আবাল বৃদ্ধ বনিতা মানুষের সাথে করমর্দন করলেন।জানতে চাইলেন কেমন আছেন?নিলেন কিছু পরামর্শও।ঐ মোটরবাইক চালক আর কেউ নন।বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের নবনির্বাচিত মেয়র সাদিক আবদুল্লাহ।তার এই স্টাইল খুব সুন্দরভাবেই গ্রহন করেছে নগরবাসী।এত সুন্দরভাবে নগরীর মানুষের সাথে এর আগে অন্য কোন মেয়র বা নেতারা মিশেন নি।শুধু ভোট এলেই তাদের দেখা মিলত।এমনকি তাদের বাড়িতে গিয়েও বসে থাকতে হত ঘন্টার পর ঘন্টা।কিন্তু একেবারেই ব্যতিক্রম মেয়র আবদুল্লাহ।তিনি ছুটে চলছেন নগরীর এ প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে।কখনো নতুল্লাবাদ,আবার কখনও বা সাগরদী ,তিনি এভাবেই মিশে চলতে চান নগরবাসীর সাথে।এইতো গেল ১০ নভেম্বর ঢাকা যাচ্ছিলেন মেয়র লঞ্চযোগে,বরিশাল সদরঘাটে হাজারো নেতাকর্মী তার অপেক্ষায়।নেতাকর্মীদের ভিড় সামলাতে হিমশিম খেতে হচ্ছিল পুলিশ প্রশাসনকে।ঐ সময়ে একজন মহিলা এসেছিলেন তার সমস্যা নিয়ে মেয়রের কাছে।কিন্তু ভিড় ঠেলে সামনে এগুতে পারছিলেন না।এই সময় মেয়র লঞ্চঘাটে প্রবেশ করেন।নেতাকর্মীরা শ্লোগান দিয়ে মেয়রকে নিয়ে যখন লঞ্চে যাচ্ছিলেন তখন কর্মীদের ভিড়ে সমস্যা নিয়ে আসা মহিলার মেয়রের সাক্ষাত ছিল দুঃস্বপ্নের মত।কিন্তু কেউ মহিলাকে খেয়াল না করলেও মেয়র সাদিকের চোখ এড়ায়নি বিষয়টি।তিনি লঞ্চ থেকে নেমে মহিলার কাছে আসেন।এবং সমস্যার কথা শুনে ৫ নং ওর্য়াড কাউন্সিলরকে বিষয়টি সুরাহা করার নির্দেশনা দেন।এ প্রসঙ্গে আলাপকালে মেয়র সাদিক গনমাধ্যমকে বলেন, যে সাধারণ সাদিক কে দেখে মানুষ এত বিপুল ভোট দিয়ে বিজয়ী করেছে, সেই সাদিক আবদুল্লাহ সাধারণই থাকবে। কোনো অনিয়মের সাথে আপস করবো না। আল্লাহ যেন আমাকে দায়িত্ব পালনকালেও সাধারণ রাখেন।আমি বরিশাল সিটি করপোরেশনের দুর্নীতি নির্মুল করে জনবান্ধব সিটি হিসেবে গড়ে মানুষের নাগরিক সুবিধা নিশ্চিত করতে সবার সহযোগিতা চান।তাইতো সাধারনে অসাধারন মেয়র আবদুল্লাহ।

এই বিভাগের আরো খবর