সোমবার   ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯   পৌষ ১ ১৪২৬   ১৮ রবিউস সানি ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
রক্তক্ষয়ী যুদ্ধে বাংলাদেশের জন্ম দেখে নিন প্রথম পর্বে প্রকাশিত ১০,৭৮৯ রাজাকারের তালিকা আজ মহান বিজয় দিবস জাতির বীর সন্তানদের শ্রদ্ধা জানাতে অপেক্ষা সূর্যোদয়ের বিজয় দিবস উপলক্ষে ভারতীয় সেনাবাহিনীর মহড়া তুর্কি যুদ্ধজাহাজের ওপর চক্কর দিচ্ছে ইসরায়েলি যুদ্ধবিমান বিপিএল খেলতে ক্রিকেটাররা চট্টগ্রামে স্বেচ্ছাসেবক ও শৃঙ্খলা উপ-কমিটির সভা আজ হঠাৎ পড়ে গেলেন মোদী সিটি ভোটে চূড়ান্ত প্রস্তুতি ইসির অতীতের যেকোনো সময়ের চেয়ে আওয়ামী লীগ এখন শক্তিশালী : ভূমিমন্ত্রী মেজাজ হারিয়ে দুই ঘণ্টায় ১২৩ টুইট করে ট্রাম্পের নতুন রেকর্ড! বিজয় দিবসে আসছে সাবিনা ইয়াসমিনের গান নারীর ক্ষমতায়নে বিস্ময়কর রেকর্ড হাত থেকে কোরআন পড়ে গেলে করণীয় সানিয়া মির্জার বোনের বিয়েতে বসেছিল চাঁদের হাট! বিএনপির ঘাড়ে ভর করেছে বুদ্ধিজীবী হত্যাকারীদের প্রেতাত্মা ‘বোরকা পরে বাংলাদেশ থেকে এসেছি’ বিজেপি এমপির টুইটে ভারতে তোলপাড় বন্দে আলী মিয়ার জন্ম ‘২ ঘণ্টার মধ্যে উড়ে যাবে সালমান খানের গ্যালাক্সি অ্যাপার্টমেন্ট!’
৬৩

সাধারণ মানুষের দুঃখকে ভাগ করে নেয়াই আমাদের রাজনীতি- এমপি মিরা

প্রকাশিত: ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯  


বানারীপাড়ায় খেজুরবাড়ি আশ্রয়ন প্রকল্পে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ ১০টি পরিবারের মধ্যে হাড়ি-পাতিল, থালা-বাসন ও মহিলাদের শাড়ি-লুঙ্গী, থ্রি-পিচ এবং পুরুষদের শার্ট সহ ১০ কেজি করে চাল, ডাল, তেল, লবন ও তোয়ালে বিতরণ করেছেন বরিশালের সংরক্ষিত মহিলা আসনের এমপি অ্যাডভোকেট সৈয়দা রুবিনা আক্তার মিরা। 
তিনি মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার সলিয়াবাকপুর ইউনিয়নের খেজুরবাড়ি আশ্রয়ন প্রকল্পে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের খোঁজ-খবর নিয়ে তাদের মাঝে এ সব পোষাক ও খাবার সামগ্রী বিতরণ করেন। এ সময় এমপি মিরা বলেন, সাধারণ মানুষের পাশে থেকে তাদের দুঃখ দূর্দশাকে ভাগ করে নেয়াই আমাদের রাজনীতি। 
এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, বানারীপাড়া উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি আনিচুর রহমান মিলন, উপজেলা ছাত্রলীগের সম্পাদক ফোরকান হাওলাদার, ইউপি সদস্য রফিকুল ইসলাম, সমাজসেবী দেলোয়ার হোসেন মোল্লা, চাখার সরকারি ফজলুল হক ডিগ্রী কলেজ ছাত্রলীগ’র নেতা আবিদ-আল হাসান রাজু, সলিয়াবাকপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগ নেতা অপু রহমান প্রমূখ। 
প্রসঙ্গত ৬ সেপ্টেম্বর সকাল সাড়ে ৯টার দিকে খেজুরবাড়ি গ্রামের আশ্রয়ন প্রকল্পের ৭নং ব্যারাকের আব্দুল জব্বারের ঘর থেকে বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিটের মাধ্যমে অগ্নিকান্ডের সৃষ্টি হয়ে মুহুর্তের মধ্যে পাশর্^বর্তী ১০টি ঘরে ছড়িয়ে যায়। এ সময় জামাল হোসেন, রেনু বেগম,নজরুল ইসলাম, ইউনুস মোল্লা,এনায়েত হোসেন, সমীর,সালাউদ্দিন মিয়া ,ফারুক হোসেন ও মো. ডিস ফিরোজের ঘর সম্পূর্ণ পুড়ে ছাঁই হয়ে যায়। 


 

এই বিভাগের আরো খবর