মঙ্গলবার   ২১ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ৮ ১৪২৬   ২৫ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
ডিগ্রি পাস ছাড়া ফাজিল মাদ্রাসার সভাপতি হওয়া যাবে না প্রয়োজনে শিক্ষকদের বিদেশে পাঠান : প্রধানমন্ত্রী শিল্প-কারখানার পাশে জলাধার থাকতে হবে: প্রধানমন্ত্রী কারিগরি শিক্ষার উন্নয়নসহ একনেকে ৮ প্রকল্প অনুমোদন যশোর-৬ আসনের এমপি ইসমত আর নেই,প্রধানমন্ত্রীর গভীর শোক আবরার হত্যা : অভিযোগ গঠন ৩০ জানুয়ারি শেখ হাসিনা হত্যাচেষ্টায় পাঁচ জনের মৃত্যুদণ্ড ভারত থেকে পেঁয়াজ কেনার কোনও সুযোগ নেই: বাণিজ্যমন্ত্রী বিশ্বের সামনে বাংলাদেশ উন্নয়নের রোল মডেল : তোফায়েল আহমেদ দেশে মুক্তিযুদ্ধের পতাকাবাহী সরকার প্রতিষ্ঠিত: রাষ্ট্রপ‌তি সন্ধ্যায় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন আইসিসির সিইও সংসদের দক্ষিণ প্লাজায় এমপি মান্নানের প্রথম জানাজা সম্পন্ন সিপিবি’র সমাবেশে বোমা হামলা : ১০ জঙ্গির ফাঁসি এমপি মান্নানের মরদেহে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা আদালতে সিপিবির সমাবেশে বোমা হামলা মামলার ৪ আসামি চীনের জিনজিয়াং প্রদেশে শক্তিশালী ভূমিকম্প শহীদ আসাদ দিবস আজ বৈষম্য বিলোপ আইনের খসড়া তৈরির কাজ চলছে: আইনমন্ত্রী মানবতার কল্যাণ কামনায় শেষ হলো বিশ্ব ইজতেমা আখেরি মোনাজাতে অংশ নিতে লাখো মুসল্লি তুরাগতীরে
৫৩৬৮

সরকারের সাড়ে তিন লাখ শূন্য পদে শীঘ্রই নিয়োগ

প্রকাশিত: ৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও বিভাগে প্রায় সাড়ে তিন লাখ পদ শূন্য রয়েছে। তীব্র জনবল সঙ্কটে স্বাভাবিক কর্মকাণ্ড ব্যাহত হচ্ছে। এ সঙ্কট থেকে শিগগিরই বেরিয়ে আসার উপায় খুঁজছে সরকার।

জানা গেছে, সম্প্রতি অনুষ্ঠিত সচিব সভায় খালি থাকা ১১তম থেকে ২০তম গ্রেডের পদে জরুরি জনবল নিয়োগের বিষয়টি তোলা হয়। সভায় জনবল সংকটের কথা উঠলে বিকল্প কমিশন গঠনের প্রস্তাব আসে।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম এ ব্যাপারে গণমাধ্যমকে বলেছেন, গ্রেডগুলোর বিদ্যমান শূন্য পদ পূরণের আলাদা কমিশন গঠন করা যায় কি না, সে বিষয়ে বিধিবিধান পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে একটি ধারণাপত্র তৈরির করা হবে। এ জন্য মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সিনিয়র সচিবকে (সমন্বয় ও সংস্কার) দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, ১১ থেকে ২০তম গ্রেডেই বেশি পদ শূন্য রয়েছে। এমন অনেক পদ রয়েছে যেগুলোতে লিখিত পরীক্ষার দরকার হয় না। সেগুলোতে শুধু মৌখিক পরীক্ষার মাধ্যমেই জনবল নিয়োগ দেওয়া সম্ভব বলেও জানান তিনি।

জানা গেছে, বর্তমানে সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও বিভাগে সাড়ে ১৩ লাখ পদ রয়েছেন বলে জানা গেছে। ২০০৯ সালেও শূন্য পদে দ্রুত নিয়োগ দিতে একাধিক কমিশন করার কথা ওঠে। তবে শেষ পর্যন্ত তা আলোর মুখ দেখেনি। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ও শিক্ষক নিয়োগে আলাদা কমিশন গঠনের প্রস্তাব দিলেও তা বাস্তবায়ন হয়নি।

সম্প্রতি সচিব সভায় আলাদা কমিশন গঠন করা ছাড়াও বিভিন্ন মন্ত্রণালয়, বিভাগ, অধিদপ্তর ও সংস্থার শূন্য পদে নিয়োগ কার্যক্রম চালু রাখার সিদ্ধান্ত হয়। এছাড়া দাপ্তরিক কাজে আরও গতি আনতে ই-নথি কার্যক্রম বাড়ানোর উদ্যোগ নেওয়ার কথা ভাবা হচ্ছে।

এই বিভাগের আরো খবর