মঙ্গলবার   ১২ নভেম্বর ২০১৯   কার্তিক ২৭ ১৪২৬   ১৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
দুটি বড় ধরনের ঘূর্নিঝড় মোকাবেলা করতে হলো সাদিক আবদুল্লাহকে সংসদে বাংলাদেশের পতাকবাহী জাহাজ (সুরক্ষা) বিলের রিপোর্ট উপস্থাপন মডেল ফার্মেসী উদ্বোধন করেন ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মুজিব বর্ষ উদযাপনে ভারতের আগ্রহ রয়েছে: রাম মাধব বাংলা বন্ড চালু বিশ্ব অথনীতিতে একটি বড় পদক্ষেপ:অর্থমন্ত্রী ইন্দো-প্যাসিফিক সহযোগিতা বাড়ানোর ওপর গুরুত্ব আরোপ মোমেনের ২০২০ সালের হজ নিয়ে সৌদির সাথে বাংলাদেশের চুক্তি ১ ডিসেম্বর সম্প্রচারের অপেক্ষায় ১১টি বেসরকারি টিভি র‌্যাবের অভিযানে রোহিঙ্গাদের পাসপোর্ট তৈরি চক্রের হদিস আন্তর্জাতিক আদালতে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে গাম্বিয়ার মামলা মুক্তিযোদ্ধাদের মর্যাদা ফিরিয়ে দিয়েছেন শেখ হাসিনা: নাসিম বাণিজ্যমন্ত্রীর হাতে ফুল দিয়ে আলোর পথে ১৩ ডাকাত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভূয়সী প্রশংসা লন্ডনে কমনওয়েলথ মেলায় আবাসিকে গ্যাস সংযোগের পরিকল্পনা সরকারের নেই পাঁচ দিনের সফরে কেনিয়া গেলেন পরিকল্পনামন্ত্রী শাহ আমানতে চার্জার লাইটের ব্যাটারি থেকে সোনা জব্দ জ্বিনে ধরেছে আইরিনকে! বরফের সুনামি! সোশ্যাল মিডিয়ায় তোলপাড় (ভিডিও) স্ত্রীর কাটা মাথা নিয়ে থানায় হাজির হলেন স্বামী! বুলবুলের পর এবার ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় `পবন`
৫২৪১

সরকারের সাড়ে তিন লাখ শূন্য পদে শীঘ্রই নিয়োগ

প্রকাশিত: ৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও বিভাগে প্রায় সাড়ে তিন লাখ পদ শূন্য রয়েছে। তীব্র জনবল সঙ্কটে স্বাভাবিক কর্মকাণ্ড ব্যাহত হচ্ছে। এ সঙ্কট থেকে শিগগিরই বেরিয়ে আসার উপায় খুঁজছে সরকার।

জানা গেছে, সম্প্রতি অনুষ্ঠিত সচিব সভায় খালি থাকা ১১তম থেকে ২০তম গ্রেডের পদে জরুরি জনবল নিয়োগের বিষয়টি তোলা হয়। সভায় জনবল সংকটের কথা উঠলে বিকল্প কমিশন গঠনের প্রস্তাব আসে।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম এ ব্যাপারে গণমাধ্যমকে বলেছেন, গ্রেডগুলোর বিদ্যমান শূন্য পদ পূরণের আলাদা কমিশন গঠন করা যায় কি না, সে বিষয়ে বিধিবিধান পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে একটি ধারণাপত্র তৈরির করা হবে। এ জন্য মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সিনিয়র সচিবকে (সমন্বয় ও সংস্কার) দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, ১১ থেকে ২০তম গ্রেডেই বেশি পদ শূন্য রয়েছে। এমন অনেক পদ রয়েছে যেগুলোতে লিখিত পরীক্ষার দরকার হয় না। সেগুলোতে শুধু মৌখিক পরীক্ষার মাধ্যমেই জনবল নিয়োগ দেওয়া সম্ভব বলেও জানান তিনি।

জানা গেছে, বর্তমানে সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও বিভাগে সাড়ে ১৩ লাখ পদ রয়েছেন বলে জানা গেছে। ২০০৯ সালেও শূন্য পদে দ্রুত নিয়োগ দিতে একাধিক কমিশন করার কথা ওঠে। তবে শেষ পর্যন্ত তা আলোর মুখ দেখেনি। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ও শিক্ষক নিয়োগে আলাদা কমিশন গঠনের প্রস্তাব দিলেও তা বাস্তবায়ন হয়নি।

সম্প্রতি সচিব সভায় আলাদা কমিশন গঠন করা ছাড়াও বিভিন্ন মন্ত্রণালয়, বিভাগ, অধিদপ্তর ও সংস্থার শূন্য পদে নিয়োগ কার্যক্রম চালু রাখার সিদ্ধান্ত হয়। এছাড়া দাপ্তরিক কাজে আরও গতি আনতে ই-নথি কার্যক্রম বাড়ানোর উদ্যোগ নেওয়ার কথা ভাবা হচ্ছে।

এই বিভাগের আরো খবর