সোমবার   ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ৭ ১৪২৬   ২৩ মুহররম ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
বাচ্চাকে মারধর করায় থানা ঘেরাও হনুমানের! জাতীয় নারী দাবায় শীর্ষস্থানে রানী হামিদ ইউজিসির কাঠগড়ায় পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৪ ভিসি ক্যাসিনোতে মিলল ধর্মীয় উপাসনা সামগ্রী! বিজয়নগর সায়েম টাওয়ার থেকে ১৭ জুয়ারী আটক ১৩ নেপালিকে মোটা অংকের বেতনে রাখা হয় জুয়া চালাতে স্পা সেন্টার থেকে আটক ১৬ নারী, ৩ পুরুষ আরও ১০ লক্ষ তরুণ-তরুণীর কর্মসংস্থান করা হবে- পলক আবুধাবি থেকে নিউইয়র্কের পথে প্রধানমন্ত্রী অজুহাতে কাজ আটকে রাখলে কঠোর ব্যবস্থা: গণপূর্তমন্ত্রী ব্যাংক নোটের আদলে টোকেন ব্যবহার করা যাবে না ঢাকা আসছেন বিশ্ব ব্যাংকের ভাইস প্রেসিডেন্ট ও জাতিসংঘের দূত খিলক্ষেতে বোমা হামলা: ৫ জেএমবির ১২ বছরের দণ্ড আরামবাগ-দিলকুশা ক্লাবে জুয়ার সরঞ্জাম উদ্ধার ভিক্টোরিয়া ক্লাব থেকে নগদ টাকা ও মদের বোতল উদ্ধার সৌদিতে শিরশ্ছেদ করে ১৩৪ জনের মৃত্যুদণ্ড শিশুদের কোলবালিশের ভেতর থেকে ১০ কেজি গাঁজা উদ্ধার! মতিঝিলে ৪ ক্লাবে পুলিশের অভিযান রিমান্ডে খালেদ ও শামীমের কাছ থেকে চাঞ্চল্যকর তথ্য ঢাকায় বাংলাদেশ-ভারত নৌবাহিনী প্রধানের সাক্ষাত

সব মন্ত্রণালয় ও প্রতিষ্ঠানের আর্থিক স্বচ্ছতা নিশ্চিত করার আহ্বান

প্রকাশিত: ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ সরকারি অর্থের জিম্মাদারদের আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, সব মন্ত্রণালয় ও প্রতিষ্ঠানের অর্থনৈতিক স্বচ্ছতা নিশ্চিত করতে আরো জোরালো ভূমিকা পালন করতে হবে।

বুধবার বিকেলে বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে কম্পট্রোলার অ্যান্ড অডিটর জেনারেল (সিএজি) বাংলাদেশের মহাহিসাব নিরীক্ষক মো. মুসলিম চৌধুরীর নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধিদল রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের কাছে ৩৯তম অডিট রিপোর্ট পেশকালে তিনি একথা বলেন।

রাষ্ট্রপতির প্রেস সচিব জয়নাল আবেদীনের বরাত দিয়ে বাসস জানিয়েছে, রাষ্ট্রপ্রধান বলেন, দেশের জনগণের স্বার্থে সরকারি অর্থের সঠিক ব্যবহার নিশ্চিত করা তাদের দায়িত্ব ও কর্তব্য।

বিষয় ভিত্তিক রিপোর্ট তৈরির জন্য সিএজি ও অন্যান্য সংশ্লিষ্টদের ধন্যবাদ জানিয়ে রাষ্ট্রপতি বলেন, অর্থনৈতিক লেনদেনের ক্ষেত্রে এ রিপোর্ট সব মন্ত্রণালয় ও প্রতিষ্ঠানে স্বচ্ছতা বৃদ্ধিতে সহায়ক ভূমিকা পালন করবে। এতে সরকারি তহবিল থেকে অর্থ ব্যয়ের ক্ষেত্রে সরকারের স্বার্থ রক্ষিত থাকবে।

বৈঠকে রাষ্ট্রপতি সিএজি ২০১৪-১৫ ও পূর্বের অর্থবছরের বার্ষিক রিপোর্টে সন্তোষ প্রকাশ করেন।

১৮টি মন্ত্রণালয় ও বিভাগের ৫ হাজার ৫৩৯ কোটি ২২ লাখ টাকার ২৫টি বার্ষিক অডিট রিপোর্ট, ৮টি মন্ত্রণালয় ও বিভাগের ৬১৭ কোটি ৩৪ লাখ ৯টি স্পেশাল অডিট রিপোর্ট রাষ্ট্রপতির কাছে পেশ করা হয়।

প্রতিনিধি দলের সদস্যরা হচ্ছেন, ডেপুটি সিএজি (একান্টস অ্যান্ড রিপোর্ট) মো. মাহবুবুল হক এবং অতিরিক্ত সিএজি (পার্লামেন্ট) এ কে এম হাসিবুর রহমান।

এ সময় রাষ্ট্রপতির কার্যালয়ের সংশ্লিষ্ট সচিবরা উপস্থিত ছিলেন।

এই বিভাগের আরো খবর