মঙ্গলবার   ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০   ফাল্গুন ৬ ১৪২৬   ২৩ জমাদিউস সানি ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
আজ বাংলাদেশ-নেপাল পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বৈঠক সরকার-জনগণের মধ্যে সম্পর্ক জোরদার করতে সাংসদের রাষ্ট্রপতির আহ্বান দেশে রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা বিরাজ করছে : নাসিম ব্যাংকের জঙ্গি অর্থায়ন নজরদারিতে রয়েছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ৪০০ মেট্রিক টন মধু রফতানির অর্ডার পেয়েছে বাংলাদেশ : কৃষিমন্ত্রী নয় বছরে সাড়ে ৯৭ হাজার কর্মকর্তা নিয়োগ : জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী দেশে মোবাইল টাওয়ার রেডিয়েশনের মাত্রা ক্ষতিকর নয় : বিটিআরসি সন্ধ্যায় বঙ্গভবনে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী ২০ বছর পর আজ ঢাকায় আসছেন নেপালের পররাষ্ট্রমন্ত্রী খালেদার প্যারোলে মুক্তির কোনো আবেদন পাইনি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী উহান ফেরত শিক্ষার্থীরা নজরদারিতেই থাকবেন : আইইডিসিআর রোহিঙ্গা ইস্যুতে ইন্দোনেশিয়ার সহায়তা চাইলেন ড. মোমেন ইউএনও’দের মাধ্যমে রাজাকারের তালিকা করা হবে : মোজাম্মেল হক মানবপাচারে অভিযুক্ত এমপির বিষয়ে দুদককে তদন্তের আহ্বান কাদেরের হত্যা মামলায় ৯ জনের যাবজ্জীবন বিশ্বকাপজয়ী ৬ ক্রিকেটারকে নিয়ে বিসিবি একাদশ ঘোষণা মশা মারার পর্যাপ্ত ঔষধ মজুত আছে : স্থানীয় সরকারমন্ত্রী রহমত আলীর মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শোক সাবেক মন্ত্রী অ্যাডভোকেট রহমত আলী আর নেই নিঃস্বার্থভাবে জনগণের কাজ করুন, নেতাকর্মীদের শেখ হাসিনা
৬০

সব মন্ত্রণালয় ও প্রতিষ্ঠানের আর্থিক স্বচ্ছতা নিশ্চিত করার আহ্বান

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ সরকারি অর্থের জিম্মাদারদের আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, সব মন্ত্রণালয় ও প্রতিষ্ঠানের অর্থনৈতিক স্বচ্ছতা নিশ্চিত করতে আরো জোরালো ভূমিকা পালন করতে হবে।

বুধবার বিকেলে বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে কম্পট্রোলার অ্যান্ড অডিটর জেনারেল (সিএজি) বাংলাদেশের মহাহিসাব নিরীক্ষক মো. মুসলিম চৌধুরীর নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধিদল রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের কাছে ৩৯তম অডিট রিপোর্ট পেশকালে তিনি একথা বলেন।

রাষ্ট্রপতির প্রেস সচিব জয়নাল আবেদীনের বরাত দিয়ে বাসস জানিয়েছে, রাষ্ট্রপ্রধান বলেন, দেশের জনগণের স্বার্থে সরকারি অর্থের সঠিক ব্যবহার নিশ্চিত করা তাদের দায়িত্ব ও কর্তব্য।

বিষয় ভিত্তিক রিপোর্ট তৈরির জন্য সিএজি ও অন্যান্য সংশ্লিষ্টদের ধন্যবাদ জানিয়ে রাষ্ট্রপতি বলেন, অর্থনৈতিক লেনদেনের ক্ষেত্রে এ রিপোর্ট সব মন্ত্রণালয় ও প্রতিষ্ঠানে স্বচ্ছতা বৃদ্ধিতে সহায়ক ভূমিকা পালন করবে। এতে সরকারি তহবিল থেকে অর্থ ব্যয়ের ক্ষেত্রে সরকারের স্বার্থ রক্ষিত থাকবে।

বৈঠকে রাষ্ট্রপতি সিএজি ২০১৪-১৫ ও পূর্বের অর্থবছরের বার্ষিক রিপোর্টে সন্তোষ প্রকাশ করেন।

১৮টি মন্ত্রণালয় ও বিভাগের ৫ হাজার ৫৩৯ কোটি ২২ লাখ টাকার ২৫টি বার্ষিক অডিট রিপোর্ট, ৮টি মন্ত্রণালয় ও বিভাগের ৬১৭ কোটি ৩৪ লাখ ৯টি স্পেশাল অডিট রিপোর্ট রাষ্ট্রপতির কাছে পেশ করা হয়।

প্রতিনিধি দলের সদস্যরা হচ্ছেন, ডেপুটি সিএজি (একান্টস অ্যান্ড রিপোর্ট) মো. মাহবুবুল হক এবং অতিরিক্ত সিএজি (পার্লামেন্ট) এ কে এম হাসিবুর রহমান।

এ সময় রাষ্ট্রপতির কার্যালয়ের সংশ্লিষ্ট সচিবরা উপস্থিত ছিলেন।

এই বিভাগের আরো খবর