রোববার   ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ৩০ ১৪২৬   ১৭ রবিউস সানি ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
হঠাৎ পড়ে গেলেন মোদী সিটি ভোটে চূড়ান্ত প্রস্তুতি ইসির অতীতের যেকোনো সময়ের চেয়ে আওয়ামী লীগ এখন শক্তিশালী : ভূমিমন্ত্রী মেজাজ হারিয়ে দুই ঘণ্টায় ১২৩ টুইট করে ট্রাম্পের নতুন রেকর্ড! বিজয় দিবসে আসছে সাবিনা ইয়াসমিনের গান নারীর ক্ষমতায়নে বিস্ময়কর রেকর্ড হাত থেকে কোরআন পড়ে গেলে করণীয় সানিয়া মির্জার বোনের বিয়েতে বসেছিল চাঁদের হাট! বিএনপির ঘাড়ে ভর করেছে বুদ্ধিজীবী হত্যাকারীদের প্রেতাত্মা ‘বোরকা পরে বাংলাদেশ থেকে এসেছি’ বিজেপি এমপির টুইটে ভারতে তোলপাড় বন্দে আলী মিয়ার জন্ম ‘২ ঘণ্টার মধ্যে উড়ে যাবে সালমান খানের গ্যালাক্সি অ্যাপার্টমেন্ট!’ গরুর খামারে কম্বল দান করলেই মিলবে বন্দুকের লাইসেন্স! আজ প্রকাশ হবে রাজাকারদের তালিকা সোশ্যাল মিডিয়া বিশেষজ্ঞ খুঁজছেন ব্রিটেনের রানি শামীমের ৩৬৫ কোটি টাকা, খালেদের ৩৪, সম্রাটের ‘তেমন নেই’ মাকাসিদুশ শরিয়া তত্ত্বের প্রয়োগ ও অপপ্রয়োগ লড়েছেন মোসাদ্দেক, জিতেছে ঢাকা প্রজন্ম থেকে প্রজন্মকে সচেতন থাকতে হবে: প্রধানমন্ত্রী মোশতাক, জিয়ার মতো মীরজাফররা আর যেন ক্ষমতায় না আসে-প্রধানমন্ত্রী
২২

সংশোধিত বাজেটে পিকেএসএফ পাচ্ছে ২৫০ কোটি টাকা

প্রকাশিত: ৯ নভেম্বর ২০১৯  

পল্লী কর্ম-সহায়ক ফাউন্ডেশন (পিকেএসএফ) বাস্তবায়নাধীন ‘দরিদ্র পরিবারের সম্পদ ও সক্ষমতা বৃদ্ধি (সমৃদ্ধি)’ কর্মসূচির জন্য চলতি ২০১৯-২০ অর্থ বছরের সংশোধিত বাজেট থেকে বিশেষ অনুদান বাবদ ৯০ কোটি টাকা বরাদ্দ দেয়া হচ্ছে। একইসঙ্গে সংস্থাটিকে সুদমুক্ত ঋণ হিসেবে ১৬০ কোটি টাকাসহ মোট ২৫০ কোটি টাকা বরাদ্দ দেয়ার সম্মতি জ্ঞাপন করেছে সরকার।

সম্প্রতি এ বিষয়ে ব্যবস্থা গ্রহণের অনুরোধ জানিয়ে আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের উপসচিব মুর্শেদা জামান স্বাক্ষরিত একটি সরকারি চিঠি অর্থ সচিবের নিকট পাঠানো হয়েছে। এতে বলা হয় যে, পিকেএসএফ-এর সমৃদ্ধি কর্মসূচির আওতায় ঋণ ও সহায়ক অন্যান্য সেবা প্রদানের লক্ষ্যে সরকার গত ২০১৬-১৭ অর্থবছরে ২২ কোটি টাকা, ২০১৭-১৮ অর্থবছরে ২৫০ কোটি এবং ২০১৮-১৯ অর্থবছরে বিশেষ অনুদান বাবদ ৯০ কোটি টাকা এবং সুদমুক্ত ঋণ বাবদ ১৬০ কোটি টাকাসহ মোট ২৫০ কোটি টাকা বরাদ্দ প্রদান করে। কিন্তু চলতি অর্থবছরে ওই দু’টি খাতে কোনো বরাদ্দ রাখা হয়নি।

পিকেএসএফ থেকে জানানো হয় যে, চলতি অর্থবছরে অনুদান বাবদ মাত্র ১ কোটি টাকা বরাদ্দ রাখা হয়েছে যা চলতি অর্থবছরের ব্যয়ের তুলনায় নিতান্তই কম। চলতি অর্থ বছরে কর্মসূচিটির জন্য পিকেএসএফ কর্তৃক মোট ব্যয় বাজেট ধরা হয়েছে ৩০১ কোটি টাকা। যার মধ্যে ঋণ বিতরণ ২০০ কোটি টাকা এবং কর্মসূচি বাস্তবায়ন ব্যয় ১০১ কোটি টাকা।

২০১৯-২০ অর্থ বছরে পিকেএসএফ-এর পূর্ববর্তী কোডে সরকারের বাজেটে অর্থ বরাদ্দ না থাকাতে কর্মসূচিটির বাস্তবায়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জন বাধগ্রস্ত হওয়ার সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে মর্মে পিকেএসএফ থেকে জানানা হয়েছে। ‘সমৃদ্ধি’ কর্মসূচি বাস্তবায়নের লক্ষ্যে ২০১৯-২০২০ অর্থবছরের সংশোধিত বাজেটে পূর্ববর্তী বছরের ন্যায় ‘পল্লী কর্ম-সহায়ক ফাউন্ডেশন’- এর অনুকূলে বিশেষ অনুদান বাবদ ৯০ কোটি টাকা এবং সুদমুক্ত ঋণ বাবদ ১৬০ কোটি টাকাসহ মোট ২৫০ কোটি টাকা এবং ভবিষ্যতে মধ্য মেয়াদি বাজেটের আওতায়ও অনুরূপ বরাদ্দ অব্যাহত রাখার অনুরোধ জানানো হয়েছে।

এমতাবস্থায়, পিকেএসএফ-এর প্রস্তাব মোতাবেক ২০১৯-২০ অর্থবছরের সংশোধিত বাজেটে পূর্ববর্তী বছরের ন্যায় ‘পল্লী কর্ম-সহায়ক ফাউন্ডেশন’ এর অনুকুলে ২৫০ কোটি টাকা এবং ভবিষ্যতে মধ্য মেয়াদি বাজেটের আওতায় অনুরূপ বরাদ্দ অব্যাহত রাখার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হলো।

এই বিভাগের আরো খবর