• সোমবার   ১০ আগস্ট ২০২০ ||

  • শ্রাবণ ২৫ ১৪২৭

  • || ২০ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৩৪ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২৪৮৭ দলীয় পরিচয় কোনো অপরাধীকে রক্ষা করতে পারেনি: কাদের লাইসেন্স নবায়ন না করলেই বেসরকারি হাসপাতাল বন্ধ দেশে করোনায় আরও ৩২ মৃত্যু, শনাক্ত ২৬১১ কাল অনলাইনে শুরু একাদশের ভর্তি, যেভাবে আবেদন করবেন সুযোগ আছে, করোনা সংকটেও বিনিয়োগ আনতে হবে: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে জাপানের প্রধানমন্ত্রী আবের ফোন করোনায় আরও ৩৩ মৃত্যু, শনাক্ত ২৬৫৪ কামাল বেঁচে থাকলে সমাজকে অনেক কিছু দিতে পারতো: শেখ হাসিনা সাবেক সেনা কর্মকর্তা সিনহার মাকে প্রধানমন্ত্রীর ফোন করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৫০ মৃত্যু, শনাক্ত ১৯১৮ করোনায় আরও ৪৮ মৃত্যু, শনাক্ত ২৬৯৫ ঈদ-বন্যা ঘিরে করোনা সংক্রমণের হার বাড়তে পারে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী ট্রাফিক পুলিশ বক্সে বিস্ফোরণ, ‘নব্য জেএমবির সদস্য’ আটক করোনায় আরও ৩৫ মৃত্যু, শনাক্ত ৩০০৯ ১২ কোটি টাকা আত্মসাত করে গ্রেফতার যমুনা ব্যাংকের ম্যানেজার থানায় বিস্ফোরণে জঙ্গি সংশ্লিষ্টতা নেই : পুলিশ ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্ত ২৯৬০, মৃত্যু ৩৫ হাতের তালু দিয়ে আকাশ ঢাকা যায় না: বিএনপিকে কাদের দেশে একদিনে ৩৭ মৃত্যু, আক্রান্ত ২৭৭২
৩৫

শিশুদের অনলাইন ক্লাসের নতুন অ্যাপ ‘ম্যাসেঞ্জার ফর কিডস’

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ৪ জুলাই ২০২০  

বর্তমান অনলাইনের যুগে ফেসবুকের সঙ্গে পরিচিত নন, এমন মানুষ হয়তো পাওয়াই ভার। যাপিত জীবনের সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে আছে ফেসবুক। নানা বয়সী মানুষ ফেসবুক শব্দের সঙ্গে পরিচিত। তবে বর্তমান সময়ে ফেসবুক যতটা জনপ্রিয়, শুরুর দিনগুলোতে কিন্তু এতটা জনপ্রিয় ছিল না। ধীরে ধীরে ফেসবুক আমাদের জীবনের অবিচ্ছেদ্য একটি অংশ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

ফেসবুক শুধু এখন একটি সোশ্যাল মিডিয়া নেটওয়ার্ক না, ফেসবুককে ঘিরে মানুষ ব্যবসা পরিচালনা করছে ও আত্ম-কর্মসংস্থান করে তুলছে। যোগাযোগের অন্যতম জনপ্রিয়, সেরা ও সহজ মাধ্যম এখন ফেসবুক। যার পরিধি দিন দিন বাড়ছে এবং সঙ্গে যুক্ত হচ্ছে আরও অনেক সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম।

করোনা পরিস্থিতিতেও ফেসবুকের ব্যবহার আরও বেশি বাড়ছে। এর অন্যতম প্রধান ও উল্লেখযোগ্য কারণ হলো 'লকডাউন'। করোনাকালীন সময়ে লকডাউনের ফলে ব্যাহত হয়েছে স্বাভাবিক জীবনযাত্রা। অফিস থেকে শুরু করে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কার্যক্রম পরিচালনা হচ্ছে অনলাইনেই। আর ফেসবুক সহজ ও সুবিধাজনক হওয়ায় মানুষের যোগাযোগও বেশি বৃদ্ধি পেয়েছে এর মাধ্যমে।

অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানও ফেসবুক গ্রুপের মাধ্যমে ছাত্র-ছাত্রীদের গাইড করছেন। ক্লাস নিচ্ছেন। এসব শিক্ষার্থীর অধিকাংশই আবার ১৬ বছরের নিচে। যা ফেসবুক ব্যবহারের জন্য উপযুক্ত বয়স নয় বলে বিভিন্ন গবেষণায় জানা যায়। তাই ১৬ বছর বয়সের নিচের শিশুদের জন্য ফেসবুক নিয়ে এসেছে একটি নতুন অপশন। ফেসবুকের এই নতুন অপশন ও অ্যাপের নাম 'Messenger For Kids' যা প্লে-স্টোর ও অ্যাপেল স্টোর উভয় ডিভাইসের জন্যই পাওয়া যাবে।

এই বিষয়ে ক্রাইম রিসার্স এন্ড অ্যানালাইসিস ফাউন্ডেশন (ক্র্যাফ) বলছে, অনলাইনে অনেক সময় মিথ্যা পরিচয় দিয়ে শিশুদের বিভিন্নভাবে উত্ত্যক্ত ও বিরক্ত করে অনেকেই। এসব কারণে মানসিকভাবে ভেঙে পড়ে তারা। তাদের যদি 'ম্যাসেঞ্জার ফর কিডস' অ্যাপটি ব্যবহার করতে দেয়া হয় তাহলে এই ধরনের সমস্যা খুব সহজেই সমাধান করা সম্ভব। যারা ফেসবুকে শিশুদের গাইড করছেন বা অনলাইনে ক্লাস নিচ্ছেন তারা এই অ্যাপটি ব্যবহার করতে পারেন। এতে শিশুরা অনেকটাই সুরক্ষিত থাকবে।

সেটআপ করার প্রক্রিয়া:

প্রথমে শিশু শিক্ষার্থী যে ডিভাইসটি ব্যবহার করছে সেই ডিভাইসটিতে "Messenger For Kids" ডাউনলোড করে নিবেন, অ্যাপ্লিকেশনটি ওপেন করে নেক্সটে প্রেস করুন, তারপর প্যারেন্ট বা গার্ডিয়ান হিসাবে কনফার্ম করুন ও আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্টটি (ইমেইল বা নম্বর) দিয়ে কন্টিনিউ করুন পরবর্তী পেইজে পাসওয়ার্ড দিয়ে অথরাইজড ডিভাইসে ক্লিক করুন ও সেইভ করে দিন।

এরপর চাইল্ড ইউজারের নাম দিয়ে কন্টিনিউ করুন ও জন্ম তারিখ সিলেক্ট করে কন্টিনিউ দিন। তারপর ক্রিয়েট অ্যাকাউন্টে ক্লিক করুন, তৈরি হয়ে গেলো কিডস অ্যাকাউন্ট। এরপরের প্রসেসে আপনি সিলেক্ট করতে পারবেন আপনার সন্তান কার কার সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারবে। এরপরের দুটি প্রসেস আসবে সেগুলো Allow করে দিবেন ও পরবর্তীতে টার্ন অন কোড Allow করে দিবেন ও কন্টিনিউ দিবেন।

তারপর সার্চ ফর প্যারেন্ট-এ গিয়ে প্যারেন্ট অ্যাকাউন্ট সিলেক্ট করতে হবে। পরবর্তী স্টেপগুলো We Agree দিবেন ও Allow Access দিতে হবে। এরপর ডিভাইস অ্যাক্সেস Allow দিয়ে চাইলে শিশুর ছবি দিতে পারেন, তারপর নেক্সট দিলেই চিলড্রেন অ্যাকাউন্ট খোলা হয়ে যাবে।

'মেসেঞ্জার ফর কিডস'-এ থাকছে যেসব সুবিধা:

> কিডস অ্যাকাউন্টের ওপর অভিভাবকদের পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ
> আপনার সন্তান ফেসবুকে কার সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারবে বা কথা বলতে পারবে তা নির্ধারণ করে দেবার সুযোগ
> ম্যাসেঞ্জারে কাউকে অ্যাড করতে হলে প্যারেন্ট অ্যাকাউন্টের পারমিশন লাগবে
> সন্তান কার সঙ্গে চ্যাট করছে, কি ছবি বা ভিডিও আদান-প্রদান করছে সব নোটিফিকেশন পাবেন প্যারেন্ট অ্যাকাউন্টে
> কিডস অ্যাকাউন্টে কে কল দিচ্ছে, কাকে কল দেওয়া হচ্ছে প্যারেন্ট অ্যাকাউন্টে নোটিফিকেশন যাবে
> এই অ্যাকাউন্ট তৈরির জন্য বাচ্চাদের কোন ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ও ফোন নম্বরের প্রয়োজন নেই
> একটি বিশেষ সুবিধা হলো কোন ম্যাসেজ বা কনভারসেশন হাইড করা যায় না, এতে করে খুব সহজেই প্যারেন্টরা মনিটর করতে পারবে কিডস কনভারসেশন অ্যাক্টিভিটি
> এতে কোন ধরনের অ্যাড শো করবে না, এতে করে বাচ্চার ব্যবহৃত অ্যাপে অ্যাডাল্ট কোন অ্যাড আসবে না
> ম্যাসেঞ্জার ফর কিডস-এর সকল ফিচার কিডস ফ্রেন্ডলি, সুতরাং এখানে অ্যাডাল্ট কনটেন্ট আসার চিন্তা নেই
> কিডস ইউজাররা যদি কোন কনটেন্ট, ম্যাসেজ বা কোন কিছুতে রিপোর্ট করে তাহলে অভিভাবকদের অ্যাকাউন্টে নোটিফিকেশনের মাধ্যমে জানিয়ে দেয়া হবে।

 

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর