সোমবার   ২০ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ৭ ১৪২৬   ২৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
দেশে মুক্তিযুদ্ধের পতাকাবাহী সরকার প্রতিষ্ঠিত: রাষ্ট্রপ‌তি সন্ধ্যায় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন আইসিসির সিইও সংসদের দক্ষিণ প্লাজায় এমপি মান্নানের প্রথম জানাজা সম্পন্ন সিপিবি’র সমাবেশে বোমা হামলা : ১০ জঙ্গির ফাঁসি এমপি মান্নানের মরদেহে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা আদালতে সিপিবির সমাবেশে বোমা হামলা মামলার ৪ আসামি চীনের জিনজিয়াং প্রদেশে শক্তিশালী ভূমিকম্প শহীদ আসাদ দিবস আজ বৈষম্য বিলোপ আইনের খসড়া তৈরির কাজ চলছে: আইনমন্ত্রী মানবতার কল্যাণ কামনায় শেষ হলো বিশ্ব ইজতেমা আখেরি মোনাজাতে অংশ নিতে লাখো মুসল্লি তুরাগতীরে পুরো পরীক্ষাই পেছাবে, নতুন সূচি আজ : শিক্ষামন্ত্রী ফাইভজির স্বপ্ন বাস্তবে পরিণত হবে শিগগির: অর্থমন্ত্রী ঢাকা সিটি ভোট পিছিয়ে ১ ফেব্রুয়ারি করার সিদ্ধান্ত ইসির এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা পিছিয়ে ৩ ফেব্রুয়ারি সংসদের দক্ষিণ প্লাজায় সোমবার মান্নানের জানাজা এমপি আব্দুল মান্নানের মৃত্যুতে গভীর শোক রাষ্ট্রপতির পদ্মা সেতুর ২২তম স্প্যান বসছে এ মাসেই আব্দুল মান্নানের মৃত্যুতে ওবায়দুল কাদেরের শোক এমপি মান্নানের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক
১৩৩

রোহিঙ্গা নির্যাতন: মিয়ানমার সেনাদের জবাবদিহি করতে হবে

প্রকাশিত: ১১ ডিসেম্বর ২০১৯  

 


ঢাকায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলার বলেছেন, রাখাইনে রোহিঙ্গা নির্যাতনের ঘটনায় মিয়ানমারের সেনা কর্মকর্তাদের জবাবদিহি করতে হবে। এ ঘটনায় নতুন করে দেশটির চার সেনা কর্মকর্তার ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। 
বুধবার (১১ ডিসেম্বর) পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি এ কথা বলেন। এর আগে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেনের সঙ্গে বৈঠক করেন মার্কিন রাষ্ট্রদূত। 
বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের মিলার বলেন, যুক্তরাষ্ট্র গতকাল (মঙ্গলবার) মিয়ানমারের চার সেনা কর্মকর্তার ওপর নতুন করে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। বিষয়টি পররাষ্ট্রমন্ত্রীকেও আমরা অবহিত করেছি। 
‘মিয়ানমারে নির্যাতনের শিকার হয়ে রাখাইন থেকে পালিয়ে গত দুইবছরে সাত লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছেন। অনেকেই সেখানে মানবাধিকার লংঘেনের শিকার হয়েছেন। সে কারণে যুক্তরাষ্ট্র মিয়ানমারের সেনাদের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে।’
মার্কিন রাষ্ট্রদূত বলেন, রাখাইনে রোহিঙ্গাদের ওপর নির্যাতনে মিয়ানমারের সেনাদের জবাবদিহি করতে হবে। যুক্তরাষ্ট্র ইন্দো প্যাসিফিক ও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশগুলোতে গণতন্ত্র এবং মানবাধিকার নিশ্চিত করতে চায়।
‘সে কারণেই এই পদক্ষেপ। এর আগেও ২০১৭ সালে মিয়ানমারের কয়েকজন সেনা কর্মকর্তার ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে যুক্তরাষ্ট্র,’ যোগ করেন তিনি। 

এই বিভাগের আরো খবর