• শনিবার   ৩০ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৫ ১৪২৭

  • || ০৭ শাওয়াল ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
একদিনে সর্বোচ্চ আড়াই হাজার শনাক্ত, মৃত্যু ২৩ জনের বিকেল ৪টার মধ্যে বন্ধ করতে হবে দোকান-শপিংমল দেশে ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ২ হাজার ছাড়ালো, মৃত্যু ১৫ স্বাস্থ্যবিধি মেনে ৩১ মে থেকে গণপরিবহন চালুর সিদ্ধান্ত দেশে একদিনে নতুন শনাক্ত ১৫৪১, মৃত্যু ২২ জীবন বাঁচাতে জীবিকাও সচল রাখতে হবে: কাদের ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ১৮৭৩ জন শনাক্ত, মৃত্যু আরও ২০ জনের র‌্যাব-৮ এর অভিযানে মাদারীপুর থেকে জেএমবি’র সক্রিয় সদস্য গ্রেফতার ২৪ ঘণ্টায় ২৪ জনের মৃত্যু, আক্রান্ত ছাড়াল ৩০ হাজার মমতাকে সহমর্মিতা জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ফোন মোংলা ও পায়রা বন্দরে ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত মহাবিপদ সংকেত জারি সকালে, রাতের মধ্যে আসতে হবে আশ্রয় কেন্দ্রে ২ লাখ ৫ হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন বাজেট অনুমোদন আম্পানের আঘাতে ১০ ফুটের অধিক উচ্চতার জলোচ্ছ্বাসের আশঙ্কা আরও ১২৫১ করোনা রোগী শনাক্ত, মৃত্যু ২১ জনের আরও ৭ হাজার কওমি মাদ্রাসাকে প্রধানমন্ত্রীর অর্থ সহায়তা পায়রা-মংলায় ৭, চট্টগ্রাম-কক্সবাজারে ৬ নম্বর বিপদ সংকেত দেশে একদিনে আক্রান্ত ও মৃত্যুর নতুন রেকর্ড বরিশালে ঘণ্টায় ৪৫-৬০ কিমি. বেগে বৃষ্টি বা বজ্রবৃষ্টির আশঙ্কা সমুদ্রসীমায় অবৈধ মৎস্য আহরণ বন্ধ করতে হবে: প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী
৬৩

রাজিয়া আলীমের পরিবারকে ‘দরদ’ দেখাতে গিয়ে রোষানলে বিএনপি নেতারা!

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

সদ্য কারাবন্দী জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের ঢাকা মহানগর শাখার সভাপতি রাজিয়া আলীমের পরিবারের খোঁজ-খবর নিতে গিয়ে তোপের মুখে পড়েছেন ঢাকা দক্ষিণ বিএনপির নেতারা।

নেতৃবৃন্দের ভাব-লেশহীন আচরণ ও বিভক্ত রাজনীতির চরম সমালোচনা করে আগত বিএনপি নেতাদের বাক্যবাণে জর্জরিত করে তোলেন রাজিয়া আলীমের পরিবারের সদস্যরা। এছাড়া কেন্দ্রীয় মহিলা দলের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক এসময় উপস্থিত না থাকায় উপস্থিত নেতাদের কটুকথাও শোনান রাজিয়ার পরিবারের সদস্যরা।

সূত্র বলছে, শনিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) রাতে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সভাপতি হাবিব উন নবী খান সোহেল, সাধারণ সম্পাদক কাজী আবুল বাশার, বিএনপি চেয়ারপারসনের আন্তর্জাতিক বিষয়ক উপদেষ্টা কমিটির সদস্য ইশরাক হোসেনসহ কয়েকজন নেতা রাজিয়া আলীমের পুরান ঢাকার নয়াবাজারের বাগডাসা লেনের বাসায় গেলে এই ধরণের বিব্রতকর অবস্থায় পড়েন তারা। রাজিয়া আলীমের পরিবারের সদস্যদের তোপের মুখে পড়ে কিছুক্ষণ পরই ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন বিএনপির নেতৃবৃন্দ।

বিএনপি নেতাদের সমালোচনার বিষয়ে জানতে চাইলে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক রাজিয়ার পরিবারের এক সদস্য বলেন, সমালোচনার মুখে পড়ে লজ্জা নিবারণ করতেই হাবিব উন নবী সোহেলের নেতৃত্বে বিএনপির নেতারা আমাদের বাড়িতে সমবেদনা জানাতে আসেন। দলের রাজনীতি করে আজকে রাজিয়া আলীম আটক হলেও আমাদের খোঁজখবর নেয়া ও তার মুক্তির ব্যাপারে তাদের কোন উদ্যোগ বা ইচ্ছা ছিলনা। বিএনপি নেতাদের এমন আচরণে আমরা অনেকটাই হতাশ। বিএনপির শীর্ষ নেতারা যে দলীয় কর্মী বা নেতাদের খোঁজ খবর রাখেননা, সেই গুঞ্জন তাদের আচরণে আরও স্পষ্ট হলো।

এদিকে রাজিয়া আলীমের পরিবারের খোঁজ নিতে মহিলা দলের নেত্রীদের অনুপস্থিতির বিষয়ে চরম ক্ষোভ প্রকাশ করে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক মহিলা দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক এক নেত্রী বলেন, শুনলাম ঢাকা দক্ষিণ বিএনপির সভাপতি হাবিব উন নবী খান সোহেলসহ অন্যান্যরা রাজিয়া আপার পরিবারের সদস্যদের ‘দরদ’ দেখাতে গিয়েছিলেন। অথচ মহিলা দলের কোনো নেত্রী সেখানে যাননি। কোন্দল, মতবিরোধ থাকলেও বিপদের দিনে তো রাজিয়া আপার পরিবারের পাশে থাকা উচিত ছিলো। কিন্তু তাদের দেমাগ ও অহংকার এতটাই বেশি যে, রাজিয়া আপার বাসায় যাননি। বিষয়টি দুঃখজনক। শুনলাম বিএনপি নেতাদের অপমান করেছেন রাজিয়া আপার পরিবারের সদস্যরা। আসলে এটি তাদের পাওনা ছিলো।

রাজনীতি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর