• শনিবার   ০৬ জুন ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ২২ ১৪২৭

  • || ১৪ শাওয়াল ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
৩ হাজার মেডিক্যাল টেকনোলজিস্ট নিয়োগে অনুমোদন দিলেন প্রধানমন্ত্রী মানুষকে সুরক্ষিত করতে প্রাণপণে চেষ্টা করছি: প্রধানমন্ত্রী করোনায় মৃত্যুর মিছিলে আরও ৩৫ জন, নতুন শনাক্ত ২৪২৩ হলিক্রস-নটরডেমসহ চার কলেজে ভর্তি বন্ধ গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ৩৭ মৃত্যু, শনাক্ত আরও ২৬৯৫ আজ থেকে চলবে আরও ৯ জোড়া ট্রেন হাসপাতাল থেকে রোগী ফেরানো শাস্তিযোগ্য অপরাধ: তথ্যমন্ত্রী যেকোনো প্রতিবন্ধকতা মোকাবিলা করে এগিয়ে যেতে পারব: প্রধানমন্ত্রী সময় যত কঠিনই হোক দুর্নীতি ঘটলেই আইনি ব্যবস্থা: দুদক চেয়ারম্যান জেলা হাসপাতালগুলোতে আইসিইউ ইউনিট স্থাপনের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর করোনা বিশ্ব বদলে দিলেও বিএনপিকে বদলাতে পারেনি: কাদের করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৩৭ মৃত্যু, শনাক্ত ২৯১১ সীমিত আকারে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার নির্দেশনা খাদ্য উৎপাদন আরও বাড়াতে সব ধরনের প্রচেষ্টা চলছে: কৃষিমন্ত্রী সারা দেশকে লাল, সবুজ ও হলুদ জোনে ভাগ করা হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ২৩৮১ জনের করোনা শনাক্ত পুরোপুরি স্বাস্থ্যবিধি মেনে ট্রেন চলছে: রেলমন্ত্রী দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় ২৫৪৫ জনের করোনা শনাক্ত, মৃত্যু ৪০ জন বাস ভাড়া যৌক্তিক সমন্বয়, প্রজ্ঞাপন আজই: ওবায়দুল কাদের এখনই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলবো না: প্রধানমন্ত্রী
১১৭

যেসব জিনিসে বেশিদিন বাঁচে করোনাভাইরাস

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ২৪ মার্চ ২০২০  

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস মানবদেহের বাইরে কোন জিনিসে কতদিন বাঁচে এবং করোনায় আক্রান্ত কোনো রোগী সেইসব বস্তুর সংস্পর্শে এলে কতদিন পর্যন্ত সেইসব বস্তু থেকে সাবধানতা অবলম্বন করা উচিত তা জেনে নিন...

১. করোনাভাইরাস সবচেয়ে বেশি দিন বাঁচতে পারে পলিপ্রোপিলিনের উপর। পাঁচদিন পর্যন্ত এর উপর বেঁচে থাকতে পারে করোনাভাইরাস। পলিপ্রোপিলিন এক ধরনের প্লাস্টিক। এই ধরনের প্লাস্টিক দিয়েই শিশুর খেলনা থেকে শুরু করে প্লাস্টিকের টিফিন বক্স তৈরি করা হয়।

২. দ্বিতীয় যে পৃষ্ঠদেশের উপর করোনাভাইরাস বেশিক্ষণ বেঁচে থাকতে পারে, তা হলো কাগজ। তবে গবেষকরা জানিয়েছেন, খবরের কাগজ থেকে কোনোভাবেই এই ভাইরাস ছড়াতে পারে না। খবরের কাগজের মাধ্যমে এই সংক্রমণ ছড়ানোর কোনো আশঙ্কাই নেই। সংবাদপত্রের প্রক্রিয়াকরণের সময়ে যেসব রাসায়নিক ব্যবহার করা হয়, তার উপরে ড্রপলেটের বেঁচে থাকা অসম্ভব। তবে গবেষকেরা জানিয়েছেন, খবরের কাগজ ছাড়া অন্যান্য কাগজের উপর ৪-৫ দিন বেঁচে থাকতে পারে করোনাভাইরাস।

৩. তৃতীয় যে পৃষ্ঠদেশের উপর করোনাভাইরাস বেশি ক্ষণ বেঁচে থাকতে পারে, তা হলো কাচ। গবেষণায় দেখা গেছে, কাচ জাতীয় কোনো পৃষ্ঠদেশের উপর অন্তত চারদিন পর্যন্ত বেঁচে থাকতে পারে করোনাভাইরাস।

ফলে কাঁচে হাত দিলে, নিয়ম-বিধি মেনে ভালো করে হাত পরিষ্কার করে নেয়া প্রয়োজন। বাড়ির জানলার কাচগুলো প্রয়োজনে ভালো করে ধুয়ে পরিষ্কার করা দরকার।

৪. কাঁচের মতো সমান সংক্রমণযোগ্য হলো কাঠ। কাঠের বস্তুর উপর এই ভাইরাস চারদিন পর্যন্ত বেঁচে থাকতে পারে। তাই গবেষকেরা জানাচ্ছেন, কাঠের কোনো বস্তুতে হাত দিলে, তারপরই যেন কোনোভাবেই হাত মুখে বা নাকে না যায় এবং ভালো করে ২০ সেকেন্ড ধরে সাবান দিয়ে হাত ধুয়ে ফেলা জরুরি।

৫. এরপর যে পৃষ্ঠদেশের উপর করোনাভাইরাস বেশিক্ষণ বেঁচে থাকতে পারে, তা হলো স্টেইনলেস স্টিল। গবেষণায় দেখা গেছে, স্টেইনলেস স্টিলের উপর এই ভাইরাস ৪৮ ঘণ্টা পর্যন্ত সক্রিয় থাকে।

কোনো আক্রান্ত ব্যক্তির হাঁচি-কাশির মাধ্যমে যদি করোনাভাইরাসের জীবাণু কোনো স্টিলের উপরে পড়ে, তাহলে ৪৮ ঘণ্টা পরও তা থেকে ভাইরাস ছড়াতে পারে।

৬. প্রধানত চিকিৎসকেরা সার্জিক্যাল গ্লাভস ব্যবহার করে থাকেন। আর হাসপাতালে এখন সমস্ত করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগীদের ভিড়। পাশাপাশি অন্যান্য রোগীরাও সেখানেই রয়েছেন। রয়েছেন তাদের বাড়ির লোকজনও। তাই সার্জিক্যাল গ্লাভস ব্যবহারে ভীষণভাবে সুরক্ষা-বিধি মেনে চলা প্রয়োজন। কারণ সার্জিক্যাল গ্লাভসের উপর এই ভাইরাস অন্তত চার ঘণ্টা পর্যন্ত বেঁচে থাকতে পারে। সুরক্ষা-বিধি মেনে না চললে, সেখান ছড়ানোর সম্ভাবনাও খুব বেশি।

৭. যেসব ধাতব বস্তু নিয়ে গবেষণা চালানো হয়েছে তার মধ্যে আর একটি হল অ্যালুমিনিয়াম। গবেষকরা জানাচ্ছেন, অ্যালুমিনিয়ামের উপর এই ভাইরাস দু’ঘণ্টা থেকে চার ঘণ্টা পর্যন্ত বেঁচে থাকতে পারে। তবে ‘ন্যাকেড’ বা নগ্ন ভাইরাস কোনো বস্তুর উপরেই বাঁচতে পারে না। এদের টিকে থাকার জন্য হাঁচি বা কাশির ড্রপলেট তথা তরল বিন্দুর প্রয়োজন হয়। অ্যালুমিনিয়াম জাতীয় পদার্থের উপর যদি এই ড্রপলেট পড়ে, তবেই তা সংক্রমণযোগ্য।

৮. সম্প্রতি নিউ ইংল্যান্ড জার্নাল অব মেডিসিন একটি রিপোর্ট প্রকাশ করেছে। তাতে তামার উপর এবং বাতাসে এই ভাইরাস কতদিন বাঁচতে পারে, তা প্রকাশ করা হয়েছে। সেই রিপোর্ট অনুযায়ী, তামার উপর চার ঘণ্টা পর্যন্ত বেঁচে থাকতে পারে এই করোনাভাইরাস।

৯. বাতাসে মাত্র তিন ঘণ্টা পর্যন্ত বেঁচে থাকতে পারে করোনাভাইরাস।

ইত্যাদি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর