• রোববার   ০৭ জুন ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ২৩ ১৪২৭

  • || ১৫ শাওয়াল ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
হাসপাতাল থেকে রোগী ফেরত দেওয়া মানবতাবিরোধী কাজ: তথ্যমন্ত্রী করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৩৫ মৃত্যু, শনাক্ত ২৬৩৫ ৩ হাজার মেডিক্যাল টেকনোলজিস্ট নিয়োগে অনুমোদন দিলেন প্রধানমন্ত্রী মানুষকে সুরক্ষিত করতে প্রাণপণে চেষ্টা করছি: প্রধানমন্ত্রী করোনায় মৃত্যুর মিছিলে আরও ৩৫ জন, নতুন শনাক্ত ২৪২৩ হলিক্রস-নটরডেমসহ চার কলেজে ভর্তি বন্ধ গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ৩৭ মৃত্যু, শনাক্ত আরও ২৬৯৫ আজ থেকে চলবে আরও ৯ জোড়া ট্রেন হাসপাতাল থেকে রোগী ফেরানো শাস্তিযোগ্য অপরাধ: তথ্যমন্ত্রী যেকোনো প্রতিবন্ধকতা মোকাবিলা করে এগিয়ে যেতে পারব: প্রধানমন্ত্রী সময় যত কঠিনই হোক দুর্নীতি ঘটলেই আইনি ব্যবস্থা: দুদক চেয়ারম্যান জেলা হাসপাতালগুলোতে আইসিইউ ইউনিট স্থাপনের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর করোনা বিশ্ব বদলে দিলেও বিএনপিকে বদলাতে পারেনি: কাদের করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৩৭ মৃত্যু, শনাক্ত ২৯১১ সীমিত আকারে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার নির্দেশনা খাদ্য উৎপাদন আরও বাড়াতে সব ধরনের প্রচেষ্টা চলছে: কৃষিমন্ত্রী সারা দেশকে লাল, সবুজ ও হলুদ জোনে ভাগ করা হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ২৩৮১ জনের করোনা শনাক্ত পুরোপুরি স্বাস্থ্যবিধি মেনে ট্রেন চলছে: রেলমন্ত্রী দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় ২৫৪৫ জনের করোনা শনাক্ত, মৃত্যু ৪০ জন
৬৯

যেসব ক্ষেত্রে প্রতিবেশির অধিকার রক্ষা করা বেশি জরুরি

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ২ নভেম্বর ২০১৯  

বিশ্বের সব মানুষ হজরত আদম ও হাওয়া আলাইহিস সালাম থেকে এসেছে। তাই সবাই পরস্পর ভাই ভাই। তাকওয়া ছাড়া সব মানুষই সমান। মানুষের প্রতি রয়েছে মানুষের অধিকার। তন্মধ্যে প্রতিবেশির অধিকার সবচেয়ে বেশি।

প্রতিবেশির সঙ্গে সুসম্পর্ক ও সদয় হওয়ার নির্দেশ দিয়ে আল্লাহ তাআলা কুরআনে বলেন-
‘আর আল্লাহর ইবাদত কর, তার সঙ্গে কাউকে শরীক করো না। আর বাবা-মার সঙ্গে সৎ ও সদয় ব্যবহার কর এবং নিকটাত্মীয়, ইয়াতিম-মিসকিন, প্রতিবেশি, অসহায় মুসাফির এবং নিজের দাস-দাসীর প্রতিও (সদয় ব্যবহার কর)। নিশ্চয়ই আল্লাহ দাম্ভিক-গর্বিতদের পছন্দ করেন না।’ (সুরা নিসা : আয়াত ৩৬)

ভালো মানুষ কখনো তার প্রতিবেশির প্রতি জুলুম অত্যাচার করে না। প্রতিবেশির কল্যাণ কামনা করে থাকেন। প্রতিবেশি ক্ষুধার্থ বা অভাবি হলে তাকে খাদ্য দান এবং সহযোগিতা করে।

প্রতিবেশি হক আদায়ে বিশ্বনবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম নসিহত পেশ করেন-
- যে ব্যক্তি আল্লাহ তাআলাকে বিশ্বাস করে এবং প্রতিবেশির প্রতি অসদাচরণ করবে না, বিচারের দিন তিনি হবে সম্মানিত ও মর্যাদাবান। যে ব্যক্তি আল্লাহকে বিশ্বাস করে এবং তার অতিথিদের সঙ্গে উত্তম কথা বলে বিচারের দিন তারাও মর্যাদাবান হবে। যে ব্যক্তি আল্লাহকে বিশ্বাস করবে এবং প্রতিবেশির সঙ্গে ভালো কথা বলবে, আল্লাহ তাআলা বিচারের দিন তার সঙ্গে উত্তম কথা বলবেন।’ (বুখারি)

প্রিয়নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম আরও বলেন, ‘যে ব্যক্তি আল্লাহ ও শেষ দিনকে বিশ্বাস করে সে তার প্রতিবেশিকে কষ্ট না দিয়ে তার সঙ্গে উত্তম ব্যবহার করবে।’ (মুসলিম, মিশকাত)

উল্লেখিত হাদিসের আলোকে বুঝা যায়, পরিপূর্ণ ঈমানদার হওয়ার জন্য প্রতিবেশির সঙ্গে উত্তম আচরণ একটি অন্যতম শর্ত।

এ কারণেই কুরআন ও সুন্নায় প্রতিবেশি অধিকারের ব্যাপারে অত্যধিক গুরুত্বারোপ করা হয়েছে। সুতরাং যেসব ক্ষেত্রে প্রতিবেশির অধিকারগুলো বেশি। সেগুলো হলো-
- প্রতিবেশি ক্ষুধার্ত হলে তার সঙ্গে খাবার ভাগ করে নেয়া। (মুসলিম)
- কখনো প্রতিবেশিকে অযথা হয়রানি না করা।
- কোনো অনুষ্ঠান হলে প্রতিবেশিদের উপহার-উপঢৌকন দেয়া। (মুসলিম)
- প্রতিবেশি কেউ অসুস্থ হলে তাকে দেখতে যাওয়া এবং তার সেবা করা।
- প্রতিবেশি কেউ মারা গেলে তার দাফন-কাফন ও জানাযায় অংশগ্রহণ করা।
- প্রতিবেশির প্রয়োজনে তাকে আর্থিক ঋণ দেয়া।
- সব সময় প্রতিবেশির সঙ্গে বিনয়ের সঙ্গে কথা বলা।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে প্রতিবেশির অধিকার যথাযথ পালন করার তাওফিক দান করুন। কুরআন হাদিসের নির্দেশনা অনুযায়ী প্রতিবেশির অধিকার আদায়ে সচেতন হওয়ার তাওফিক দান করুন। প্রতিবেশিসহ সবার সঙ্গে জুলুম করা থেকে বিরত থাকার তাওফিক দান করুন। আমিন।

ধর্ম বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর