• রোববার   ১১ এপ্রিল ২০২১ ||

  • চৈত্র ২৮ ১৪২৭

  • || ২৮ শা'বান ১৪৪২

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
১২-১৩ এপ্রিল চলমান লকডাউনের নির্দেশনা জারি থাকবে: সেতুমন্ত্রী টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিলেন প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক করোনায় একদিনে সর্বোচ্চ ৭৭ জনের মৃত্যু অরাজকতা সৃষ্টির চেষ্টা করলে কঠোর ব্যবস্থা : আইনমন্ত্রী দু`দিন আগেই শেষ হচ্ছে বইমেলা আমাদের সামনে নির্ঘাত অশনি সংকেত : কাদের করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৭৪ জনের মৃত্যু সরকারের নিজস্ব অর্থায়নে হচ্ছে দ্বিতীয় আমিনবাজার সেতু: সেতুমন্ত্রী দ্বিতীয় ডোজের টিকা নিলেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী মানুষ বাঁচাতে আরও কঠোর পদক্ষেপ নিতে হবে: প্রধানমন্ত্রী রফিকুল ইসলাম মাদানী আটক জনগণের নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখেই লকডাউন দেয়া হয়েছে: অর্থমন্ত্রী টিকাদানে বিশ্বের শীর্ষ ২০ দেশের মধ্যে বাংলাদেশ: প্রধানমন্ত্রী করোনায় আরো ৬৬ জনের মৃত্যু ৮ এপ্রিল শুরু হচ্ছে টিকার দ্বিতীয় ডোজ: স্বাস্থ্য সচিব রাজধানীতে চলাচল করা গাড়ি গণপরিবহন নয়: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ২৪ ঘণ্টায় ৭০৭৫ জনের করোনা শনাক্ত, মৃত্যু ৫২ শীতলক্ষ্যায় লঞ্চডুবি: আরও ২১ জনের মরদেহ উদ্ধার আরো ৬ কোটি ৮০ লাখ ডোজ টিকা আনা হচ্ছে: অর্থমন্ত্রী একদিনে দেশে রেকর্ড শনাক্ত ৭০৮৭, মৃত্যু ৫৩

মেগা সিটি হবে আশুগঞ্জ

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ৬ মার্চ ২০২১  

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ পাওয়ার স্টেশন কোম্পানি লিমিটেডের অধীনে ১৮০০ মেগাওয়াটের আরো  নতুন তিনটি বিদ্যুৎ উৎপাদনের ইউনিট স্থাপনের উদ্যোগ গ্রহণ করেছে সরকার। এরইমধ্যে নতুন তিনটি ইউনিট স্থাপনের জন্য দরপত্রের মাধ্যমে প্রকল্প এলাকায় মাটি ভরাটের কাজ শুরু হয়েছে।

আশুগঞ্জ পাওয়ার স্টেশন কোম্পানির নিজস্ব ৮টি ইউনিট থেকে দৈনিক ১৬৯০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদিত হচ্ছে। দেশের মোট চাহিদার প্রায় ১৫ শতাংশ বিদ্যুৎ সরবরাহের লক্ষ্যে প্রকল্পটি হাতে নেয়া হয়েছে। তিনটি ইউনিট উৎপাদনে আসলে আশুগঞ্জ তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র থেকে  মোট চাহিদার প্রায় ১৫ শতাংশ বিদ্যুৎ জাতীয় গ্রীডে সরবরাহ করা সম্ভব হবে। 

এরইমধ্যে কোম্পানীর বি-টাইপ আবাসিক এলাকায় কোম্পানী অধিগ্রহণ করা অব্যবহৃত জমিতে মাটি ভরাটের কাজ শুরু হয়েছে। মাটি ভরাট করে জায়গা কনসালটেন্টদের কাছে বুঝিয়ে দেয়া হবে। তারপর কনসালটেন্টরা জায়গার সমীক্ষা ও নিরীক্ষা করে এক বছরের মধ্যে প্রতিবেদন দিবে। তারপর আন্তর্জাতিক টেন্ডার প্রক্রিয়া শেষে শুরু মূল প্লান্ট নির্মাণের কাজ। 

আশুগঞ্জ পাওয়ার স্টেশনে নিজস্ব ৮টি ইউনিট ছাড়াও নতুন ৪’শত মেঘাওয়াট সিসি পিপি ইস্ট নামে আরও একটি ইউনিট নির্মিত হচ্ছে। এছাড়া বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় আশুগঞ্জে আরও ৪টি বিদ্যুৎ কেন্দ্র পরিচালিত হচ্ছে। ফলে বিদ্যুৎ উৎপাদনের মেঘা সিটিতে পরিণত হচ্ছে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ পাওয়ার স্টেশন কোম্পানি লিমিটেড।

আশুগঞ্জ পাওয়ার স্টেশন কোম্পানি লিমিটেড তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মো. সাইফুল ইসলাম জানান, দ্রুত মাটি ভরাট হওয়ার পর কনসালটেন্টদের কাছে এই জায়গা বর্ষা মৌসুম আসার আগেই বুঝিয়ে দেয়া হবে।

আশুগঞ্জ পাওয়ার স্টেশন কোম্পানি লিমিটেড এর নির্বাহী পরিচালক (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) প্রকৌশলী ক্ষিতীশ চন্দ্র বিশ্বাস, তিনটি পাওয়ার প্লান্ট স্থাপনের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে এবং এরইমধ্যে কনসালটেন্ট নিয়োগ করা হয়েছে। যার ব্যয় হবে ৯ হাজার কোটি টাকা।

আশুগঞ্জ পাওয়ার স্টেশন লিমিটেড এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক, প্রকৌশলী এএমএম সাজ্জাদুর রহমান জানান,  বিদ্যুৎ উৎপাদনের এই ৩টি ইউনিট নির্মিত হলে প্রতিদিন আরো ১৮০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদিত হবে। সবগুলো ইউনিট চালু হলে আশুগঞ্জ পাওয়ার ষ্টেশন থেকে দৈনিক ৩ হাজার ৯শ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনের সক্ষম হবে। যা দিয়ে দেশের মোট চাহিদার প্রায় ১৫ শতাংশ বিদ্যুৎ সরবরাহ করা সম্ভব হবে।

গ্যাস ভিত্তিক এই তিনটি নতুন বিদ্যুৎ উৎপাদনের ইউনিট নির্মাণ করতে ব্যয় হবে ৯ হাজার কোটি টাকা। আর ইউনিটগুলো চালু হলে দেশের ১৫ শতাংশ বিদ্যুতের চাহিদা মেটাবে আশুগঞ্জ পাওয়ার স্টেশন কোম্পানী লিমিটেড।