বৃহস্পতিবার   ১৭ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ১ ১৪২৬   ১৭ সফর ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
কমছে রাতের তাপমাত্রা, প্রকৃতিতে শীতের আগমনী বার্তা কিশোরকে পিটিয়ে হত্যা এসআই আকরামসহ ১১ জন জেলহাজতে মানবতাবাদী নাট্যকার আর্থার মিলারের জন্ম মুখের কথায় চলে সাইদের ‘আশ্চর্য মোটরসাইকেল’ বরিশালে জাল-ইলিশসহ ২২জেলে আটক নীলনদের তীরে মিললো ‘গুরুত্বপূর্ণ’ প্রাচীন কফিন পর্দা নামলো ডিজিটাল ডিভাইস অ্যান্ড এক্সপোর কুষ্টিয়ায় শুরু হলো তিনদিন ব্যাপী লালনমেলা বাংলাদেশই বিশ্বসেরা, প্রবৃদ্ধি হবে ৭.৮ শতাংশ হাজার কোটি টাকার চেকের কপি প্রতারক চক্রের বাসায়! ৯ কর্মীকে তলব, একজনের বিদেশযাত্রায় নিষেধাজ্ঞা বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ ইন্দোনেশিয়া থেকে সরাসরি পণ্য আমদানির সুযোগ চায় বাংলাদেশ পার্বত্য জেলায় সন্ত্রাস-মাদক নির্মূল করা হবে-স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বাকেরগঞ্জে এনএসআই পরিচয়ে চাঁদাবাজি আটক-২ সাবেক সহকারী কর কমিশনারকে গ্রেপ্তার করল দুদক র‌্যাগিংয়ের অভিযোগ পেলেই শাস্তি: আইনমন্ত্রী একাদশ সংসদের পঞ্চম অধিবেশন শুরু ৭ নভেম্বর যেখানে দুর্নীতি-টেন্ডারবাজি সেখানে অভিযান- স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ন্যাম সম্মেলনে যোগ দিতে বাকু যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী
২২

মৃৎ শিল্পি মেয়র সাদিক

প্রকাশিত: ৫ অক্টোবর ২০১৯  

‘মাটির মানুষ, মিশে যেতে হবে মাটিতে’। তাই কাঁদা মাটির পরোয়া করলেন না তিনি। হাটু গেরে বসে গেলেন মাটিতে। এক দেখাতেই নিজ হাতে পালের মত করেই সুনিপুণভাবে তৈরী করলেন মাটির আসবাবপত্র। এমন কাজটি করে সকলকে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ। গতকাল শুক্রবার দুপুরে নগরীর সদর রোড অশি^নী কুমার হল চত্ত্বরে মৃৎশিল্প সম্মেলন ও সম্মাননা অনুষ্ঠান শেষে হাতের নিপুণ কারুকাজে তৈরী করেন মাটির তৈজষপত্র।
যা দেখতে শুধু অনুষ্ঠাস্থলে উপস্থিত অতিথিবৃন্দই নয়, ভীর পড়ে যায় সাধারণ পথচারীদেরও। অনেকটা অবাক দৃষ্টিতে তাগিয়ে সিটি মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ’র নিপুণ হাতে মাটির তৈজসপত্র তৈরীর দৃশ্য উপভোগ করেন। জানাগেছে, মৃৎশিল্প এদেশের একটি ঐতিহ্যবাহী শিল্প। এ শিল্পের শিল্পি, যাদের কুমার বা পাল বলে ডাকা হয়। তাদের নিপুণ হাতের ছোয় তৈরী হয় মাটির আসবাবপত্র। এক সময় এই শিল্পের বেশ কদর ছিলো। কিন্তু কালের বিবর্তনে আধুনিকতার ছোঁয়ায় তা হারিয়ে যেতে বসেছে। গৃহস্থলি থেকে কোথাও আর ব্যবহৃত হচ্ছে না মাটির তৈজসপত্রের। গ্রামীন মেলা বা প্রদর্শনীতে এখনো কদর রয়েছে মৃৎশিল্পের।
তবে ঐতিহ্যবাহী এই মৃৎশিল্পের প্রতি আস্থা প্রদর্শণ করতে গিয়ে কিছু সময়ের জন্য নিজেই কুমার হয়েছেন মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ। এমনকি পরবর্তীতে তিনি নিজ হাতে চাঁকা ঘুরিয়ে তৈরী ফেলেন মাটির তৈরী তৈজসপত্র।

এই বিভাগের আরো খবর