বুধবার   ১৩ নভেম্বর ২০১৯   কার্তিক ২৮ ১৪২৬   ১৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
প্রধানমন্ত্রী ৭ বিদ্যুৎকেন্দ্র উদ্বোধন করবেন আজ নেপালের উন্নয়ন প্রকল্পে সহায়তা প্রদানে রাষ্ট্রপতির আশ্বাস পুরুষদের জন্য সিল্ক, লাল ও হলুদ কাপড় নিষিদ্ধ মঙ্গলবার জাতীয় সংসদে ২ বিল পাস নবায়নযোগ্য জ্বালানিতে বিদ্যুৎ উৎপাদনে গুরুত্ব সরকারের র‌্যাবের অভিযানে জঙ্গি সংগঠন `আল্লাহর দল`র সদস্য গ্রেফতার এবার মোবাইল ব্যাংকিংয়ে দেওয়া যাবে আয়কর কেবল ওমানি ছাড়া বাংলাদেশ-ওমান ম্যাচ দেখতে টিকেট লাগবে সবার: ওএফএ বৈশ্বিক সমস্যা সমাধানে সংসদীয় কূটনীতি গুরুত্বপূর্ণ-স্পিকার বন্দরে ঘুষ, অনিয়মসহ ৫২ অভিযোগ দুদকের শুনানিতে ১৫ মেডিকেল কলেজের ১৬৫ শিক্ষার্থীর স্কিল স্কুল এন্ড ওয়ার্কশপ সহজ শর্তে ঋণ বাড়াতে বিশ্বব্যাংকের কাছে আহ্বান ডায়াবেটিস জার্নি অ্যাপ চালু বিতর্কিতদের অপসারণ করা হবে: হানিফ বৈদেশিক মুদ্রার বিনিময় হার ‘ইন্দো প্যাসিফিকে চীন-যুক্তরাষ্ট্রের উদ্যোগ পরিপূরক’ প্রধান শিক্ষকের বেতন ১১তম গ্রেডে, একধাপ এগোলো সহকারীরা ‘রোহিঙ্গা হোস্টিংয়ে বাংলাদেশ সর্বোচ্চ বিবেচনার দাবিদার’ সম্রাট ও আরমানের বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদের অভিযোগে মামলা বরিশালে স্বেচ্ছাসেবী মহিলা সমিতির মাঝে ২৫ লাখ টাকার অনুদান
৪৫

মুলাদীতে ধর্ষণ মামলায় এক ব্যক্তির যাবজ্জীবন

প্রকাশিত: ৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

 

বরিশালের মুলাদীতে ধর্ষণ মামলায় রেজাউল করিম রেজা নামে এক ব্যক্তিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। পাশাপাশি তাকে ১ লাখ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও দুই বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৫ সেপ্টেম্বর) জেলা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক আবু শামীম আজাদ এ রায় দেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত রেজাউল করিম রেজা উপজেলার তেরচর এলাকার আ রশিদ হাওলাদারের ছেলে বলে জানিয়েছেন আদালতের বেঞ্চ সহকারী আজিবর রহমান।

আদালত ও মামলা সূত্রে জানা যায়, ২০১০ সালের ১ নভেম্বর দণ্ডপ্রাপ্ত ও বিবাহিত রেজাউল করিম রেজা মুলাদী সদরের ৫ নম্বর ওয়ার্ডে তার চাচার বাড়িতে যায়। এসময় ওই বাড়িতে কেউ না থাকার সুবাদে চাচাতো বোনকে ধর্ষণ করে। এরপর বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে বিভিন্ন সময় রেজা তার চাচাতো বোনকে ধর্ষণ করে। 

একপর্যায়ে অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়লে ভিকটিম বিষয়টি রেজাকে জানায়। কিন্তু রেজা ভিকটিমের গর্ভপাতের চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়ে বিষয়টি (ধর্ষণ) অস্বীকার করে।

পরে ২০১১ সালের ৫ মে ভিকটিম বাদী হয়ে আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। আদালত মেডিকেল পরীক্ষা শেষে ২০১২ সালের ১৫ নভেম্বর  আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন।

পরবর্তীতে ৬ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আদালত বৃহস্পতিবার আসামির অনুপস্থিতিতে তাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও এক লাখ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও দুই বছরের কারাদণ্ড দেন।

একইসঙ্গে আদালত ভিকটিমের জন্ম দেওয়া কন্যা সন্তানের বিয়ে না হওয়া পর্যন্ত তার ভরণ-পোষণের জন্য রাষ্ট্রকে ব্যয়ভার বহনের নির্দেশ দিয়েছেন। পাশাপাশি আসামির বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে।

এই বিভাগের আরো খবর