সোমবার   ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০   ফাল্গুন ৪ ১৪২৬   ২২ জমাদিউস সানি ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
২০ বছর পর আজ ঢাকায় আসছেন নেপালের পররাষ্ট্রমন্ত্রী খালেদার প্যারোলে মুক্তির কোনো আবেদন পাইনি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী উহান ফেরত শিক্ষার্থীরা নজরদারিতেই থাকবেন : আইইডিসিআর রোহিঙ্গা ইস্যুতে ইন্দোনেশিয়ার সহায়তা চাইলেন ড. মোমেন ইউএনও’দের মাধ্যমে রাজাকারের তালিকা করা হবে : মোজাম্মেল হক মানবপাচারে অভিযুক্ত এমপির বিষয়ে দুদককে তদন্তের আহ্বান কাদেরের হত্যা মামলায় ৯ জনের যাবজ্জীবন বিশ্বকাপজয়ী ৬ ক্রিকেটারকে নিয়ে বিসিবি একাদশ ঘোষণা মশা মারার পর্যাপ্ত ঔষধ মজুত আছে : স্থানীয় সরকারমন্ত্রী রহমত আলীর মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শোক সাবেক মন্ত্রী অ্যাডভোকেট রহমত আলী আর নেই নিঃস্বার্থভাবে জনগণের কাজ করুন, নেতাকর্মীদের শেখ হাসিনা কে ভোট দিল কে দিল না তা বিবেচনা করে না আ. লীগ : প্রধানমন্ত্রী আ.লীগ উন্নয়নে বিশ্বাসী: প্রধানমন্ত্রী চীন থেকে দেশে আসা সবাই সুস্থ : আইইডিসিআর বিএনপি এখন টেলিফোনে প্রেমালাপ শুরু করেছে : নানক মুজিববর্ষে দেশের প্রতিটি ঘর আলোকিত হবে: নাসিম দাখিল পরীক্ষায় নকল করায় ৬ ছাত্র বহিষ্কার খালেদার মুক্তি নিয়ে বিএনপি-ই দ্বিধান্বিত: তথ্যমন্ত্রী ৩৫ এলাকায় ফ্রি ওয়াই-ফাই পাচ্ছেন কক্সবাজারবাসী
১৯২

মিন্নিরা ১৪ জন আদালতে, রাতুল সেভ হোমে

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ১৪ আগস্ট ২০১৯  

চাঞ্চল্যকর রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় প্রধান সাক্ষী থেকে আসামি বনে যাওয়া নিহতের স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নিসহ এজাহারভুক্ত ১৪ আসামিকে আদালতে আনা হয়েছে।

বুধবার (১৪ আগস্ট) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বরগুনা জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলার তৃতীয় ধার্য্য তারিখে তাদের নিয়মিত হাজিরায় আদালতে আনা হয়।

প্রায় ৩০ মিনিট আদালতের কার্যক্রম শেষে তাদের আবার জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। মামলার পরবর্তী তারিখ ২২ আগস্ট ধার্য করেন ম্যাজিস্ট্রেট গাজী সিরাজুল ইসলাম।

আজ হত্যা মামলার চার্জশিট দেওয়ার কথা থাকলেও তদন্ত সম্পন্ন না হওয়ায় চার্জশিট দেওয়া সম্ভব হয়নি। তবে কিছু দিনের মধ্যে তদন্ত কাজ সম্পন্ন করে চার্জশিট দেওয়া হবে জানিয়েছেন কোর্ট পুলিশ পরিদর্শক আব্দুল কুদ্দুস মৃধা।

এর আগে সকাল ১০টা থেকে আদালত চত্বরে চেক পোস্টসহ নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে দেয় পুলিশ।

এ মামলার এজাহারভুক্ত ৫ নম্বর আসামি মুসা বন্ড, ৭ নম্বর আসামি মোহাইমিনুল ইসলাম সিফাত, ৮ নম্বর আসামি রায়হান ও ১০ নম্বর আসামি রিফাত হাওলাদারকে এখনো গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

এদিকে একই মামলায় গ্রেফতার রাতুল নামে এক আসামি অপ্রাপ্ত বয়স হওয়ায় সেভ হোমে রাখা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, বরগুনা সরকারি কলেজের মূল ফটকের সামনের রাস্তায় ২৬ জুন সকাল ১০টার দিকে স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নির সামনে কুপিয়ে জখম করা হয় রিফাত শরীফকে। বিকাল ৪টায় বরিশালের শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়।

২৭ জুন রিফাত শরীফের বাবা আবদুল হালিম দুলাল শরীফ বরগুনা থানায় ১২ জনের নামে এবং চার-পাঁচজনকে অজ্ঞাত আসামি করে মামলা করেন। প্রধান আসামি নয়ন বন্ড ২ জুলাই ভোরে পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়।

এ হত্যার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে দেশব্যাপী তোলপাড় শুরু হয়। পরে দ্বিতীয় একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে হত্যায় মিন্নির সম্পৃক্ততা নিয়ে প্রশ্ন ওঠে। পরে মিন্নিও গ্রেফতার হন।

এই বিভাগের আরো খবর