• সোমবার   ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ ||

  • আশ্বিন ১৩ ১৪২৭

  • || ১০ সফর ১৪৪২

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
অস্ত্র মামলায় সাহেদের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড মাহবুবে আলমের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম আর নেই দূরদর্শী নেতা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৪তম জন্মদিন এমসি কলেজে ধর্ষণের ঘটনায় কাউকে ছাড় নয়: কাদের করোনায় আরও ২৮ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৫৪০ মেহেরপুরে ‘আল্লাহর দল’র সক্রিয় সদস্য আটক করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৩৭ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৬৬৬ করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ২৮, শনাক্ত ১৫৫৭ মসজিদে বিস্ফোরণে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৩৪ ধর্ষণ মামলায় ভিপি নুর গ্রেফতার আইসিটি মামলায় আলাউদ্দিন জিহাদী এক দিনের রিমান্ডে করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৪০, শনাক্ত ১৭০৫ গাড়িচালক মালেক ১৪ দিনের রিমান্ডে করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ২৬, শনাক্ত ১৫৪৪ গভীর সমুদ্র থেকে ৫ লাখ পিস ইয়াবা উদ্ধার, আটক ৭ ব্যাংকটা যেন ভালোভাবে চলে সেদিকে দৃষ্টি দিবেন: প্রধানমন্ত্রী নারায়ণগঞ্জের মসজিদে বিস্ফোরণে মৃত্যু বেড়ে ৩৩ আহমদ শফী কওমি শিক্ষার আধুনিকায়নে ভূমিকা রেখেছেন: প্রধানমন্ত্রী না.গঞ্জে মসজিদে বিস্ফোরণে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৩২
১৭৮

মাদারীপুরে ১৬ বানর হত্যার দায় স্বীকার করলেন নারী

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ১১ মে ২০২০  

মাদারীপুর সদর উপজেলার চরমুগরিয়া এলাকায় ১৬টি বানর হত্যার অভিযোগে দুজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে থানা পুলিশ। পরে জিজ্ঞাসাবাদে এক নারী বানর হত্যার কথা স্বীকার করায় তাকে গ্রেফতার করা হয়। রোববার বিকেলে ওই নারীকে জেলহাজতে পাঠিয়েছে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, মাদারীপুর সদর উপজেলার চরমুগরিয়া এলাকায় সম্প্রতি ১৬টি বানরকে বিষ প্রয়োগ করে হত্যা করে দুষ্কৃতকারীরা। পরে বন বিভাগের পক্ষ থেকে মাদারীপুর সদর থানায় বানর হত্যার অভিযোগে একটি মামলা দায়ের করা হয়। এছাড়াও চার সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেন মাদারীপুর জেলা প্রশাসক।

এ ঘটনায় শনিবার গভীর রাতে মাদারীপুর সদর উপজেলার মধ্য খাগদী এলাকা থেকে লতু হাওলাদারের স্ত্রী শাহানা বেগম ও আজিজ হাওলাদারের ছেলে আকু হাওলাদারকে আটক করে পুলিশ। আটকরা সম্পর্কে দেবর-ভাবি। পরে শাহানা দোষ স্বীকার করেন।

এ ব্যাপারে মাদারীপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বদরুল আলম মোল্লা বলেন, বানর হত্যার ঘটনায় সদর থানায় মামলা হলে সন্দেহভাজন দুজনকে আটক করি। এদের মধ্যে শাহানা বেগম নামে এক নারী বানর হত্যার কথা স্বীকার করেন। তবে তার দেবর দোষী না হওয়ায় ছেড়ে দেয়া হয়েছে।

ওই নারী জানিয়েছেন, খাবারের সঙ্গে বিষ দিয়েছিলেন বানরগুলোকে। এতেই মারা গেছে বানরগুলো। তবে কোন ধরনের বিষ সেটা জানা সম্ভব হয়নি। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলে বোঝা যাবে।

উল্লেখ্য, গত ৬ মে বিকেলে ওই এলাকায় বেশ কয়েকটি বানরের মুখ থেকে বিষাক্ত লালা পড়তে দেখা যায়। তখন কয়েকটি বানরকে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়। কয়েকটি বিষে কাতরাচ্ছিল। ৬ মে সন্ধ্যার দিকে ১২টি ও ৭ মে সকালে আরও ৪টি বানর মারা যায়। পরে বানরগুলো সংগ্রহ করে মাটিচাপা দেয় স্থানীয়রা।

অপরাধ বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর