সোমবার   ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০   ফাল্গুন ৪ ১৪২৬   ২২ জমাদিউস সানি ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
২০ বছর পর আজ ঢাকায় আসছেন নেপালের পররাষ্ট্রমন্ত্রী খালেদার প্যারোলে মুক্তির কোনো আবেদন পাইনি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী উহান ফেরত শিক্ষার্থীরা নজরদারিতেই থাকবেন : আইইডিসিআর রোহিঙ্গা ইস্যুতে ইন্দোনেশিয়ার সহায়তা চাইলেন ড. মোমেন ইউএনও’দের মাধ্যমে রাজাকারের তালিকা করা হবে : মোজাম্মেল হক মানবপাচারে অভিযুক্ত এমপির বিষয়ে দুদককে তদন্তের আহ্বান কাদেরের হত্যা মামলায় ৯ জনের যাবজ্জীবন বিশ্বকাপজয়ী ৬ ক্রিকেটারকে নিয়ে বিসিবি একাদশ ঘোষণা মশা মারার পর্যাপ্ত ঔষধ মজুত আছে : স্থানীয় সরকারমন্ত্রী রহমত আলীর মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শোক সাবেক মন্ত্রী অ্যাডভোকেট রহমত আলী আর নেই নিঃস্বার্থভাবে জনগণের কাজ করুন, নেতাকর্মীদের শেখ হাসিনা কে ভোট দিল কে দিল না তা বিবেচনা করে না আ. লীগ : প্রধানমন্ত্রী আ.লীগ উন্নয়নে বিশ্বাসী: প্রধানমন্ত্রী চীন থেকে দেশে আসা সবাই সুস্থ : আইইডিসিআর বিএনপি এখন টেলিফোনে প্রেমালাপ শুরু করেছে : নানক মুজিববর্ষে দেশের প্রতিটি ঘর আলোকিত হবে: নাসিম দাখিল পরীক্ষায় নকল করায় ৬ ছাত্র বহিষ্কার খালেদার মুক্তি নিয়ে বিএনপি-ই দ্বিধান্বিত: তথ্যমন্ত্রী ৩৫ এলাকায় ফ্রি ওয়াই-ফাই পাচ্ছেন কক্সবাজারবাসী
৭১

ভবনে প্রবেশে বাধা: দণ্ডবিধির আইন প্রয়োগ করবে ডিএনসিসি

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ২১ আগস্ট ২০১৯  

 


ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) আওতাধীন এলাকার ভবনগুলোতে প্রবেশে প্রয়োজনে দণ্ডবিধির আইন প্রয়োগের সিদ্ধান্ত নিয়েছে ডিএনসিসি। ভবনে এডিস মশা নিধনে গিয়ে প্রবেশে বাধার সম্মুখীন হওয়ার অভিজ্ঞতা থেকে ১৮৬০ সালে প্রণীত দণ্ডবিধির আইন প্রয়োগের এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে ডিএনসিসি।

বুধবার (২১ আগস্ট) রাজধানীর গুলশানের একটি কনভেনশন হলে মশক নিধন ও পরিচ্ছন্নতা শীর্ষক এক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। 

এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী তাজুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মন্ত্রণালয়ের সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ। সভাপতিত্ব করেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম। এসময় ডিএনসিসির ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও কর্মকর্তারা অংশ নিয়ে মশক নিধন কার্যক্রমের অভিজ্ঞতা বিনিময় করেন।

অনুষ্ঠানের শুরুতে মেয়র বলেন, একটি ভবনের নিচে এই ভাঙা পা নিয়ে আমাকে ৪৫ মিনিট দাঁড় করিয়ে রাখা হয়েছিল। আরেকটি ভবনে ইচ্ছে করে লিফটের ডিভাইস খুলে লিফট বন্ধ করে রাখা হয়েছিল। আরেকটি ভবনে ছাদের দরজার চাবি দেওয়া হচ্ছিল না। এতসব বাধা পেরিয়ে আমাদের কর্মকর্তাদের নিয়ে কাজ করতে হয়েছে। তাই আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি পেনাল কোড, ১৮৬০ প্রয়োগ করবো। 

‘আইন সেই সুযোগ রেখেছে। পেনাল কোডের ২৬০, ২৭০, ১৮৪ ও ১৮৫ ধারাসহ বিভিন্ন ধারায় সরকারি কাজে সরকারি কর্মকর্তাদের বাধা দেওয়ার শাস্তির বিধান রাখা হয়েছে।’

এই বিভাগের আরো খবর