মঙ্গলবার   ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ১ ১৪২৬   ১৭ মুহররম ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
প্রধানমন্ত্রী ‘রাজহংস’ উদ্বোধন করবেন আজ রোহিঙ্গা ভোটার: ইসি কর্মচারীসহ আটক ৩ রিফাত-মিন্নির নতুন ভিডিও, বেরিয়ে এলো চাঞ্চল্যকর তথ্য ‘বিজ্ঞান-প্রযুক্তির বিকাশ ছাড়া দেশ উন্নয়ন করা সম্ভব নয়’ রোহিঙ্গা ভোটার খতিয়ে দেখতে চট্টগ্রামে কবিতা খানম আগামী ১০মাসের রোডম্যাপ তৈরি ও তার বাস্তবায়ন করবো - জয় ও লেখক ডেঙ্গুতে সরকারি হিসেবে ৬৮ জনের মৃত্যু আ. লীগের সম্পাদকমণ্ডলীর সভা ১৮ সেপ্টেম্বর বরিশাল নগরীতে আসছে স্মার্ট এলইডি লাইটিং বঙ্গবন্ধুর নাতনি টিউলিপের জন্মদিন আজ আজ থেকে ট্রাকে পেঁয়াজ বিক্রি করবে টিসিবি বিশ্ব ওজন দিবস আজ শিগগিরই বন্দর-ট্রেনে যুক্ত হচ্ছে ত্রিপুরা-বাংলাদেশ দিল্লিতে শেখ হাসিনা-মোদি বৈঠক ৫ অক্টোবর সারাদেশে ৭৫ প্রতিষ্ঠানকে পাঁচ লক্ষাধিক টাকা জরিমানা প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগের ফল প্রকাশ এ পি জে আব্দুল কালাম স্মৃতি পুরস্কারে ভূষিত শেখ হাসিনা টস হেরে ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশ বরিশালকে যানজট মুক্ত রাখতে কাজ করছে ট্রাফিক সদস্যরা- ডিসি ট্রাফিক সততা ও নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করুন : প্রধানমন্ত্রী
১৬

ব্রেকফাস্ট দেরিতে করলে কি হয় জানেন কি?

প্রকাশিত: ২ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

অনেকের অভ্যাস সকালে কিছু না খাওয়া, অনেক বাচ্চারা আছে কিছু না খেয়েই স্কুলে চলে যায়, আবার অনেকে আছেন কাজবাজ সেরে দেরি করে সকালের নাস্তা খান। কিন্তু সকালে ঘুম থেকে উঠেই ফ্রেস হয়ে ব্রেকফাস্টটা মন দিয়ে সারা উচিত।

বিশেষজ্ঞরা বলেন, স্বাস্থ্যের খাতিরে কখনই ব্রেকফাস্ট এড়িয়ে যাওয়া উচিত নয়। কারণ হিসেবে বলা হয়, প্রাতরাশ থেকেই প্রথমে শক্তি সরবরাহ হয় মস্তিষ্কে। রাত দশটায় পর খাবার খেলে এবং তা যদি অত্যধিক ক্যালোরিযুক্ত হয় তাহলে অবশ্যই পরদিন সকালে ভালো করে ব্রেকফাস্ট করুন।

কিন্তু আমাদের দেশের সকলের অভ্যাসই হচ্ছে রাতের খাবারের পর সকালে ঘুম থেকে উঠে বাড়ির সব কাজকর্ম সেরে তারপরই খাওয়া। আর এতেই ক্ষতি হয় সবচেয়ে বেশি।

এবার দেখে নিন সকালের ব্রেকফাস্ট দেরিতে সারলে কি ক্ষতি হয়-

* ব্রেকফাস্ট দেরিতে করে খাওয়ার ফলে রক্তে ইনসুলিনের পরিমাণ বেড়ে যায়।

* এ রকম দেরি করে খাওয়ায় হরমোনের তারতম্য হয়।

* খুব অল্প বয়সেই ডায়াবেটিস, কোলেস্টেরলের নানা সমস্যা দেখা দেয়।

* প্রেসার জাঁকিয়ে বসে শরীরে। এ থেকে মস্তিষ্কে দেখা দিতে পারে বিভিন্ন রোগও।

* গ্যাসট্রিক বা অম্বল ডেকে আনে ব্রেকফাস্ট দেরিতে সারলে।

চিকিৎসকদের মতে ১৬ ঘন্টার বেশি কখনই গ্যাপ দেওয়া উচিত নয়। তাই ব্রেকফাস্ট কখনই বাদ দেওয়া যাবে না এবং দেরিও করা যাবে না।

ব্রেকফাস্ট, লাঞ্চ, ডিনার কখনই কিছু বাদ দেওয়া উচিত নয়। তবে ভালো করে যদি ব্রেকফাস্ট করেন তাহলে লাঞ্চের উপর চাপ অনেকটাই কমে।