বৃহস্পতিবার   ১৭ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ১ ১৪২৬   ১৭ সফর ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
রাজধানীতে `ফইন্নী গ্রুপের` ৬ সদস্য আটক স্পিকারের সঙ্গে সার্বিয়ার উপ-প্রধানমন্ত্রীর সৌজন্য সাক্ষাৎ ক্লাসিকোর ভেন্যু পাল্টানোর অনুরোধ লা লিগার উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের ১৮ কাউন্সিলর নজরদারিতে যেমন ছিল নবিজির জীবনের শেষ মুহূর্তটি দলের নাম ভাঙিয়ে অন্যায় করতে দেবেন না মেয়র সাদিক কমছে রাতের তাপমাত্রা, প্রকৃতিতে শীতের আগমনী বার্তা কিশোরকে পিটিয়ে হত্যা এসআই আকরামসহ ১১ জন জেলহাজতে মানবতাবাদী নাট্যকার আর্থার মিলারের জন্ম মুখের কথায় চলে সাইদের ‘আশ্চর্য মোটরসাইকেল’ বরিশালে জাল-ইলিশসহ ২২জেলে আটক নীলনদের তীরে মিললো ‘গুরুত্বপূর্ণ’ প্রাচীন কফিন পর্দা নামলো ডিজিটাল ডিভাইস অ্যান্ড এক্সপোর কুষ্টিয়ায় শুরু হলো তিনদিন ব্যাপী লালনমেলা বাংলাদেশই বিশ্বসেরা, প্রবৃদ্ধি হবে ৭.৮ শতাংশ হাজার কোটি টাকার চেকের কপি প্রতারক চক্রের বাসায়! ৯ কর্মীকে তলব, একজনের বিদেশযাত্রায় নিষেধাজ্ঞা বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ ইন্দোনেশিয়া থেকে সরাসরি পণ্য আমদানির সুযোগ চায় বাংলাদেশ পার্বত্য জেলায় সন্ত্রাস-মাদক নির্মূল করা হবে-স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
৪৫

বিষাক্ত মদ পান করে ২ যুবকের মৃত্যু

প্রকাশিত: ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

 


নরসিংদীর শিবপুরে বিষাক্ত মদ পান করে দুই শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে।
শনিবার (২১ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে তাদের মৃত্যু হয়। নিহতরা হলেন, শিবপুর উপজেলার দুলালপুর ইউনিয়নের দড়িপুর গ্রামের আজাদ মিয়ার ছেলে শাকিল (২২)। সে স্থানীয় একটি ওর্য়াকসপে কাজ করতো। আরেকজন বাঘাবো গ্রামের কবির মিয়ার ছেলে সুমন মিয়া (২২)। সে স্থানীয় বালু মহালের শ্রমিক।

পুলিশ ও নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার রাতে নিহত শাকিল ও সুমনসহ তাদের ৫/৬ বন্ধু নরসিংদী পৌর শহরের বাজির মোড় এলাকা থেকে মদ কিনে আনেন। পরে তারা সবাই মিলে মদ পান করেন। এরপর তাদের শারীরিক অবস্থার কিছুটা অবনতি হয়। মদপান শেষে বাড়িতে গিয়ে তারা ঘুমিয়ে পড়েন। কিন্তু একদিন পার হলেও তাদের ঘুম ভাঙে না। শনিবার তাদের অনেক ডাকাডাকির পর সজাগ হলেও তারা মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলে। ওই সময় তাদের পেটে প্রচণ্ড ব্যাথা ও জ্বালাপোড়া শুরু হয়। অবস্থার অবনতি হলে শনিবার বিকেলে তাদের শিবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে সেখান থেকে তাদের নরসিংদী  হাসপাতালে পাঠানো হয়। অবস্থার অবনতি হলে জেলা হাসপাতালের চিকিৎসকরা তাদের ঢাকায় পাঠান। ঢাকায় নেওয়ার পথে তাদের মৃত্যু হয়।

নরসিংদী জেলা হাসপাতালের আবাসিক কর্মকর্তা (আরএমও)  বলেন, সন্ধ্যায় শাকিল ও সুমনকে অচেতন অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়। কোনো প্রকার সাড়া পাচ্ছিলাম না। পরে তাদের ঢাকায় পাঠানো হয়।

শিবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোল্লা আজিজুর রহমান বলেন, নরসিংদীর  বাজির মোড় থেকে মদ কিনে এনে সবাই পান করেন। পরে তাদের পেটে ব্যাথা শুরু হয়। প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে মদ পানের কারণেই তাদের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় আইনানুগ ব্যবস্থার প্রক্রিয়া চলছে।

এই বিভাগের আরো খবর