সোমবার   ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯   ভাদ্র ৩১ ১৪২৬   ১৬ মুহররম ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
আ. লীগের সম্পাদকমণ্ডলীর সভা ১৮ সেপ্টেম্বর বরিশাল নগরীতে আসছে স্মার্ট এলইডি লাইটিং বঙ্গবন্ধুর নাতনি টিউলিপের জন্মদিন আজ আজ থেকে ট্রাকে পেঁয়াজ বিক্রি করবে টিসিবি বিশ্ব ওজন দিবস আজ শিগগিরই বন্দর-ট্রেনে যুক্ত হচ্ছে ত্রিপুরা-বাংলাদেশ দিল্লিতে শেখ হাসিনা-মোদি বৈঠক ৫ অক্টোবর সারাদেশে ৭৫ প্রতিষ্ঠানকে পাঁচ লক্ষাধিক টাকা জরিমানা প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগের ফল প্রকাশ এ পি জে আব্দুল কালাম স্মৃতি পুরস্কারে ভূষিত শেখ হাসিনা টস হেরে ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশ বরিশালকে যানজট মুক্ত রাখতে কাজ করছে ট্রাফিক সদস্যরা- ডিসি ট্রাফিক সততা ও নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করুন : প্রধানমন্ত্রী বরিশালে কাজী নজরুল ইসলামের ৪৩তম প্রয়াণ বার্ষিকী অনুষ্ঠিত রাজশাহীর পুলিশ একাডেমিতে কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী গণপরিবহনে মাসিক বেতনে চালক নিয়োগের নির্দেশ হাইকোর্টের সারদার পথে প্রধানমন্ত্রী হাজিদের দেশে ফেরার শেষ ফ্লাইট আজ আন্তর্জাতিক গণতন্ত্র দিবস আজ শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ইনস্টিটিউটের কার্যক্রম আজ শুরু

বিশ্ব মানের কফি বাংলাদেশে

প্রকাশিত: ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

 

কৃষির বাণিজ্যিকিকরণে ধান নির্ভর কৃষির পাশাপশি অপ্রচলিত লাভবান কৃষির দিকে গুরুত্ব দিচ্ছে সরকার।ধানের ন্যায্য মূল্য পাচ্ছে না ফলে কৃষক ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে। কফি,কাজুবাদাম,অ্যাবোকাডোসহ বিভিন্ন অধিক মূল্যের ফসল চাষে উদ্বুদ্ধ করা হচ্ছে কৃষকদের।
বুধবার মন্ত্রণালয়ে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক প্রতিষ্ঠান নর্থ এন্ড (প্রাইভেট) লিমিটেডের ম্যানেজিং ডাইরেক্টর রিক হার্বাডের সাক্ষাতকালে এসব কথা বলেছেন কৃষি মন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক।
রিক হার্বাড বলেন, আমরা ২০১১ সালে বান্দরবানের রুমা উপজেলায় কৃষকদের মাধ্যমে ৫০০টি কফি গাছের চারা দিয়ে কফি চাষ শুরু করি। বর্তমানে সাজেক ভ্যালিসহ আমাদের মোট গাছের সংখ্যা ১ লাখ ৫০ হাজার টি। বিগত দুই বছর যাবত সম্পূর্ণ বাংলাদেশের কফি বাজারজাত করছি এবং রপ্তানি করছি। নর্থ এন্ড এবং জাতিসংঘের কৃষি ও খাদ্য সংস্থা (এফএও) মনে করে বাংলাদেশের কফি বিশ্ব মানের। এটার চাষ পরিবেশের জন্য উপযোগি পানি কম লাগে,পোকামাকড় ও রোগজীবাণূর আক্রমন নেই। কফি গাছ ৩ বছর বয়স থেকে ফলন দেয় এবং ৯০ বছর পর্যন্ত অব্যাহত থাকে।এছাড়া কফি প্রসেসিং মেশিন এর দাম ছিল মাত্র ৫শ' ডলার, কিন্তু এফ্এও এই মেশিন কৃষকদের ফ্রি দিচ্ছে।
মন্ত্রী বলেন, আমরা কফি উৎপাদন করছি এবং এটার উৎপাদন বাড়ানোর জন্য কাজ করছি। এর জন্য আমরা কিছুসংখ্যক কৃষকদের ভিয়েতনামে পাঠাবো হাতে কলমে অভিজ্ঞতা অর্জনের জন্য। আমরা চাই কৃষিজাত পন্য রপ্তানি করতে, বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করতে এবং কর্মসংস্থান সৃষ্টি করতে।
মি. রিক বলেন, আমাদের কফি রপ্তানির ক্ষেত্রে ডিউটি ফি কমানো হলে আমাদের এই ব্যবসার জন্য ভালো হবে। এর প্রেক্ষিতে মন্ত্রী জানান কৃষিজাত পন্যের ওপর সরকার প্রণোদনা দিয়ে থাকে সেক্ষত্রে কফিকেও এর আওতায় আনা হবে। তিনি নর্থ এন্ডকে সবধরনের সহযোগিতা দেয়ার প্রতিশ্রুতি দেন। এছাড়া ভিয়েতনাম থেকে উন্নত জাতের কফি চারা এনে দেশে চাষ করা হবে বলেও জানান।

এই বিভাগের আরো খবর