• সোমবার   ২৫ জানুয়ারি ২০২১ ||

  • মাঘ ১২ ১৪২৭

  • || ১১ জমাদিউস সানি ১৪৪২

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
দেশে পৌঁছেছে সেরামের ৫০ লাখ টিকা রমজানে টিসিবির পণ্য ৩ গুণ বাড়ানো হবে: বাণিজ্যমন্ত্রী রেশম শিল্পের উন্নয়নে সমন্বিত উদ্যোগ নেওয়া হবে: পাটমন্ত্রী করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ২০, শনাক্ত ৪৭৩ অপপ্রচার ও ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে ঐক‌্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান: কাদের দশম ও দ্বাদশ শ্রেণির নিয়মিত ক্লাস হবে: শিক্ষামন্ত্রী ঢাকা শুধু বাসযোগ্য নয়, বিনোদন কেন্দ্রে পরিণত হবে: তাজুল করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ২২, শনাক্ত ৪৩৬ সবার আগে আমি ভ্যাকসিন নেব : অর্থমন্ত্রী করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ১৬, শনাক্ত ৫৮৪ সার্জেন্টের ওপর হামলাকারী সেই যুবক গ্রেপ্তার পিকে হালদারের দুই সহযোগীকে গ্রেফতার করেছে দুদক প্রতিক্রিয়াশীলতা বিএনপির রাজনৈতিক চরিত্র: কাদের সরকারের সাফল্যে বিএনপি উদ্ভ্রান্ত হয়ে গেছে : তথ্যমন্ত্রী বাইডেন কমলাকে রাষ্ট্রপতি প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন ঢাকায় পৌঁছে গেছে করোনার টিকা ওয়েস্ট ইন্ডিজকে উড়িয়ে শুভ সূচনা টাইগারদের পৌর নির্বাচনে নৌকার বিপক্ষে গেলেই কঠোর ব্যবস্থা: কাদের রোহিঙ্গাদের নিরাপত্তা দিতে ভাসানচরে নতুন থানা: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী প্রথমে ঢাকায় টিকা কর্মসূচি শুরু হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

বিএনপির এমপিদের একহাত নিলেন গয়েশ্বর!

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ৭ অক্টোবর ২০১৯  

বিএনপির কারান্তরীণ চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তিতে কোনো আন্দোলন গড়ে তুলতে না পেরে দিকভ্রান্ত হয়ে পড়েছে বিএনপি। সম্প্রতি কারামুক্তির উপায় হিসেবে বিএনপির এমপিরা খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করে প্যারোলে মুক্তির প্রসঙ্গ সামনে আনেন। যার দরুন রাজনৈতিক মহলে সমালোচিত হচ্ছে বিএনপি।

যদিও বিএনপির শীর্ষ নেতারা বলছেন, কোনোভাবেই বেগম জিয়ার মুক্তি প্যারোলে নিতে রাজি নয় বিএনপি। এ নিয়ে দলের মধ্যে বাড়ছে বিভ্রান্তি। একপক্ষ বলছে প্যারোল, অন্যপক্ষ বলছে ‘না’।

এমন প্রেক্ষাপটে বিএনপির এমপিদের প্যারোল নিয়ে বালখিল্যে বিরক্তি প্রকাশ করে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন। জানা গেছে, দুর্নীতির দুই মামলায় দণ্ড নিয়ে কারাবন্দী খালেদা জিয়াকে দেখে এসে বিএনপির সাত সংসদ সদস্য তার জামিনের জন্য প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন। তারা এটাও বলেন যে মুক্তি পেলে খালেদা জিয়া বিদেশে যাবেন।

বিএনপি চেয়ারপারসনের মুক্তির দাবিতে শনিবার (৫ অক্টোবর) জাতীয় প্রেস ক্লাবে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বিরক্তি প্রকাশ করে বলেন, ‘অতি দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে আমাদের দলের সাংসদরা ইতিমধ্যে ম্যাডামের সাথে হাসপাতালে দেখা করেছেন। উনাদেরকে নিয়ে অনেকে অনেক কথা বলছে। উনারা যে খুব বেশি আন্তরিক ম্যাডামের মুক্তির জন্য, সেটা আমাদের সামনে এবং জনগণের সামনে আশ্বস্ত করার চেষ্টা করেছেন। আর সেটি করতে গিয়ে- ম্যাডামের (খালেদা জিয়া) যে আপসহীন উপাধিটা আছে- এটা খারিজ করতে গিয়ে ধরা পড়েছে।’

তিনি আরও বলেন, যে উদ্দেশ্যে তাদের সংসদে পাঠানো হলো তা না করে তারা ম্যাডামের কাছে গিয়ে প্যারোলের বার্তা নিয়ে এসেছেন- এটা তাদের জন্য লজ্জার। তারা অথর্ব রাজনীতির উদাহরণ দিচ্ছে প্রতিনিয়ত। আসলে তাদের নিয়ে কথা বলার মতো আগ্রহও হারিয়ে ফেলেছি আমরা। তাদের কাছে যে প্রত্যাশা জনগণের ছিলো তা ধূলায় মিশিয়ে দিয়েছে। কোথায় তারা মুক্তির জন্য বলিষ্ঠ ভূমিকা পালন করবে, তা না করে তারা প্যারোলের বার্তা নিয়ে এসেছেন। এটি নিতান্তই লজ্জার।