বুধবার   ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০   ফাল্গুন ৬ ১৪২৬   ২৪ জমাদিউস সানি ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
ধর্ষকদের ধরিয়ে দিন, কঠোর ব্যবস্থা নেবো: প্রধানমন্ত্রী টাকা না থাকলে এত উন্নয়ন কাজ করছি কীভাবে : প্রধানমন্ত্রী সব ব্যথা চেপে রেখে দেশের জন্য কাজ করছি : প্রধানমন্ত্রী ট্রেনে খোলা খাবার বিক্রি ও প্লাস্টিকের কাপ নিষিদ্ধ হচ্ছে চলতি বছরে জিপিএ-৪ কার্যকর হচ্ছে মজুদ গ্যাসে চলবে ২০৩০ সাল পর্যন্ত : খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী গুজব-অপপ্রচার রোধে কাজ করছে উচ্চ পর্যায়ের কমিটি : তথ্যমন্ত্রী সব কারখানায় ব্রেস্ট ফিডিং কর্নার স্থাপনের নির্দেশ আজ বাংলাদেশ-নেপাল পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বৈঠক সরকার-জনগণের মধ্যে সম্পর্ক জোরদার করতে সাংসদের রাষ্ট্রপতির আহ্বান দেশে রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা বিরাজ করছে : নাসিম ব্যাংকের জঙ্গি অর্থায়ন নজরদারিতে রয়েছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ৪০০ মেট্রিক টন মধু রফতানির অর্ডার পেয়েছে বাংলাদেশ : কৃষিমন্ত্রী নয় বছরে সাড়ে ৯৭ হাজার কর্মকর্তা নিয়োগ : জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী দেশে মোবাইল টাওয়ার রেডিয়েশনের মাত্রা ক্ষতিকর নয় : বিটিআরসি সন্ধ্যায় বঙ্গভবনে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী ২০ বছর পর আজ ঢাকায় আসছেন নেপালের পররাষ্ট্রমন্ত্রী খালেদার প্যারোলে মুক্তির কোনো আবেদন পাইনি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী উহান ফেরত শিক্ষার্থীরা নজরদারিতেই থাকবেন : আইইডিসিআর রোহিঙ্গা ইস্যুতে ইন্দোনেশিয়ার সহায়তা চাইলেন ড. মোমেন
৭৪

বিএনপিকে বাদ দিয়ে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কর্মসূচি ঐক্যফ্রন্টের!

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ৮ অক্টোবর ২০১৯  

ঐক্যফ্রন্টকে নিয়ে বিশেষ কোনো তৎপরতা না থাকায় অতিষ্ঠ হয়ে নির্বাচনকালীন জোট জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতারা বিএনপি নেতাদের অনুপস্থিতিতে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালনের কর্মসূচির নিয়েছে। জানা গেছে, আগামী ১৩ অক্টোবর ফ্রন্টের সর্বোচ্চ ফোরামের বৈঠক থেকে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন করা হবে।

বিষয়টি ঐক্যফ্রন্টের স্টিয়ারিং কমিটির সদস্য জেএসডি সভাপতি আসম আবদুর রব নিশ্চিত করেছেন। ফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেনের মতিঝিলের চেম্বারে আসম আবদুর রব ছাড়াও তানিয়া রব, আবদুল মালেক রতন, গণফোরামের আবু সাইয়িদ, সুব্রত চৌধুরী, জগলুল হায়দার আফ্রিক, বিকল্পধারার শাহ আহমেদ বাদল, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, ফ্রন্টের দপ্তর প্রধান জাহাঙ্গীর আলম মিন্টু উপস্থিত ছিলেন। কিন্তু বিএনপির কোনো নেতা বৈঠকে যোগ দেননি। এমনকি তাদের এ বৈঠকে আমন্ত্রণও করেনি ঐক্যফ্রন্ট।

নির্বাচনে চরম ফল বিপর্যয়ের পর সংসদে যোগদান, ফ্রন্ট থেকে একটি দলের বের হয়ে যাওয়া, শীর্ষ নেতার নির্বাচনী জোট হিসেবে ফ্রন্টকে আখ্যা দেয়াসহ কয়েকটি কারণে বেশকিছু দিন ধরে ঐক্যফ্রন্টে অস্থিরতা চলছিল। টানাপোড়েন প্রকাশ্যে আসে বিএনপির মাধ্যমেও। ঐক্যফ্রন্ট নিয়ে গা ছাড়া মনোভাব পোষণ করে বিএনপি। এমন প্রেক্ষাপটে ফ্রন্টের স্টিয়ারিং কমিটির বৈঠকে বিএনপি নেতাদের অনুপস্থিতি ফ্রন্টের অনিশ্চিত ভবিষ্যতের ইঙ্গিত বহন করে।

এদিকে ফ্রন্টের বৈঠকে বিএনপির অনুপস্থিতির বিষয়ে কোনো কথাই বলতে রাজি নয় ফ্রন্টের নেতারা। তারা বলছেন, ফ্রন্টে যাদের আগ্রহ আছে তারাই ফ্রন্টকে এগিয়ে নিয়ে যাবে। নতুন করে কাউকে আগ্রহী করে তুলতে নারাজ জোটের নেতারা।

এ বিষয়ে নাম প্রকাশ না করার শর্তে ঐক্যফ্রন্টের একজন নেতা বলেন, বিএনপি এখন কেবল নিজেকে নিয়েই ব্যস্ত আছে। অথচ নির্বাচনের আগে তাদের আচরণ এমন ছিলো না। তারা না হয় নিজেদের নিয়ে ব্যস্ত আছে, কিন্তু আমাদেরও তো রাজনৈতিক ভাবাদর্শ আছে। ফলে ফ্রন্ট নিয়ে তাদের অনাগ্রহ মোটেই সমীচীন নয়। যেহেতু তারা গা ছাড়া মনোভাব প্রকাশ করছে তাই তাদের নিয়ে আমাদেরও কোনো মাথা ব্যথা নেই।

এই বিভাগের আরো খবর