• বৃহস্পতিবার   ০১ অক্টোবর ২০২০ ||

  • আশ্বিন ১৫ ১৪২৭

  • || ১৩ সফর ১৪৪২

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
রিফাত হত্যা: মিন্নিসহ ৬ জনের ফাঁসির আদেশ পাঁচদিনের রিমান্ডে জেএমআই চেয়ারম্যান করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ২৬, শনাক্ত ১৪৮৮ অস্ত্র মামলায় সাহেদের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড মাহবুবে আলমের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম আর নেই দূরদর্শী নেতা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৪তম জন্মদিন এমসি কলেজে ধর্ষণের ঘটনায় কাউকে ছাড় নয়: কাদের করোনায় আরও ২৮ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৫৪০ মেহেরপুরে ‘আল্লাহর দল’র সক্রিয় সদস্য আটক করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৩৭ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৬৬৬ করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ২৮, শনাক্ত ১৫৫৭ মসজিদে বিস্ফোরণে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৩৪ ধর্ষণ মামলায় ভিপি নুর গ্রেফতার আইসিটি মামলায় আলাউদ্দিন জিহাদী এক দিনের রিমান্ডে করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৪০, শনাক্ত ১৭০৫ গাড়িচালক মালেক ১৪ দিনের রিমান্ডে করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ২৬, শনাক্ত ১৫৪৪ গভীর সমুদ্র থেকে ৫ লাখ পিস ইয়াবা উদ্ধার, আটক ৭ ব্যাংকটা যেন ভালোভাবে চলে সেদিকে দৃষ্টি দিবেন: প্রধানমন্ত্রী
১২৬

ফের বরগুনায় প্রকাশ্যে পিটিয়ে কিশোর হত্যা, আটক ৭

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ২৭ মে ২০২০  

বরগুনায় ঈদের দিন সোমবার (২৫ মে) বিকেলে হৃদয় নামে এক কিশোরকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় সাতজনকে আটক করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (২৫ মে) রাত ৯টা পর্যন্ত জেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। 

হত্যায় ২০ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও ১৪-১৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। মঙ্গলবার (২৬ মে) রাত সাড়ে ১০টার দিকে বরগুনা সদর থানায় মামলাটি দায়ের করেন নিহত হৃদয়ের মা মোসা. ফিরোজা বেগম। 

রাত ১১টার দিকে বরগুনার পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান বরগুনা সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. শাহজাহান হোসেন।

তিনি বলেন, নিহত হৃদয়ের ওপর হামলার ঘটনার পরই আমরা ভিডিও ফুটেজ দেখে ও প্রত্যক্ষদর্শীদের সঙ্গে কথা বলে এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে সাতজনকে আটক করি। এরপর রাত সাড়ে ১০টার দিকে নিহত হৃদয়ের মা ফিরোজা বেগম হত্যা মামলা দায়ের করেন। এ মামলায় আটক হওয়া সাতজনসহ ২০ জনের নাম উল্লেখ করেন তিনি। এছাড়া এ হত্যাকাণ্ডের জড়িত থাকার অভিযোগে আসামি করা হয়েছে অজ্ঞাত আরও ১৪-১৫ জনকে।

শাহজাহান হোসেন বলেন, মামলা দায়ের করার আগেই সন্দেহভাজন হিসেবে আমরা যাদের আটক করেছি তাদের নাম মামলায় উল্লেখ থাকায় এ মামলায় গ্রেফতার দেখানো হবে। 

এছাড়া এ মামলায় অভিযুক্ত অন্যদের গ্রেফতারে চেষ্টা চলছে জানিয়ে তিনি বলেন, যেহেতু এ মামলায় অভিযুক্তদের আমরা এখনও গ্রেফতার করতে পারিনি তাই তাদের নাম আমরা এখনই প্রকাশ করছি না।

বরগুনা সদর থানা সূত্রে জানা গেছে, গ্রেফতার হওয়া এ সাতজন হলেন- এ মামলার এক নম্বর আসামি নোমান কাজী (১৮), দুই নম্বর আসামি হেলাল মৃধা (২৬), ছয় নম্বর আসামি সাগর গাজী (১৬), সাত নম্বর আসামি ইমন হাওলাদার (১৮), আট নম্বর আসামি রানা আকন (১৬), ১২ নম্বর আসামি সফিকুল ইসলাম ঘরামি (১৫) ও ১৫ নম্বর আসামি হেলাল ফকির (২১)।

এর আগে ঈদের দিন সোমবার (২৫ মে) বিকেলে বরগুনার পায়রা নদীর পাড়ে গোলবুনিয়া বল্ক ইয়ার্ডে বন্ধু-বান্ধবদের সঙ্গে ঘুরতে যায় হৃদয়। এসময় পূর্বশত্রুতার পাশাপাশি হৃদয়ের সঙ্গে থাকা এক বান্ধবীকে অভিযুক্তরা উত্ত্যক্ত করলে হৃদয়ের প্রতিবাদ করেন। এতে দু'পক্ষের মধ্যে বাকবিতণ্ডা হলে অভিযুক্তরা হৃদয়সহ তার কয়েক বন্ধুকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করেন।

পরে স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করলেও গুরুতর আহত হৃদয়কে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মঙ্গলবার সকালে তার মৃত্যু হয়।

অপরাধ বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর