রোববার   ২০ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ৪ ১৪২৬   ২০ সফর ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
রাজীবের মোহাম্মদপুরের বাসায় অভিযান পরিচালনা করছে র‌্যাব অস্ত্র ও মাদকসহ রাজীবকে আটক করেছে র‌্যাব কাউন্সিলর তারেকুজ্জামান রাজিব গ্রেফতার আসছে ‘জলের গান’র অ্যালবাম, থাকছে বারী সিদ্দিকীর গান বছর শেষ হলেই বাতিল হচ্ছে ২ হাজার রুপির নোট ঢাকায় আসছেন নিউইয়র্ক সিটির ৫ সিনেটর বাকেরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের বিশেষ বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত দাইয়ুস জান্নাতে যাবে না ড্রাগনের রক্ত বয়ে চলেছে যে গাছ! বালিশকাণ্ডের মতো কলঙ্কজনক কাজ যেন না হয় :পরিকল্পনামন্ত্রী দলে অনুপ্রবেশকারীদের জায়গা দেওয়া হবে না: নাসিম দোয়া পাওয়ার জন্য রাজনীতি করি : শামীম ওসমান আর্থিক সংকটে দুদিন বন্ধ জাতিসংঘ ওজন কমাতে খান মিষ্টি আলু ফেসবুক সমাজের `পঞ্চম স্তম্ভ`: জাকারবার্গ দুর্নীতি ও মাদক নির্মূল না হওয়া পর্যন্ত অভিযান চলবে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বৈজ্ঞানিক সরঞ্জাম বিতরণ করেণ পংকজ নাথ কেরানি থেকে ধর্মীয় গুরু, আশ্রমে মিলল ৫০০ কোটি টাকার অবৈধ সম্পদ! মদিনায় দুর্ঘটনায় নিহতদের ১১ জন বাংলাদেশি দীর্ঘদিন ধরেই পদ্মায় ইলিশ ধরছিলেন ভারতীয় জেলেরা!
১৫

ফাইভ-জি লাইসেন্সের পলিসি ও ইকোসিস্টেম তৈরি হচ্ছে

প্রকাশিত: ১ অক্টোবর ২০১৯  

‘নির্বাচনী ইশতেহারে ২০২১ থেকে ২০২৩ সালের মধ্যে ফাইভ-জি চালু করার কথা ছিল। কিন্তু আশা করছি, এর আগেই দেশে ফাইভ জি চালু হবে। ইতোমধ্যে ফাইভ-জির সফল ট্রায়াল করা হয়েছে। খুব দ্রুত ফাইভ-জির লাইসেন্স দিতে পলিসি ও ইকোসিস্টেম তৈরি করা হচ্ছে।’

সোমবার রাজধানীর হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে কমনওয়েলথ টেলিযোগাযোগ সংস্থার (সিটিও) ৫৯তম কাউন্সিল সভা ও বার্ষিক ফোরামের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার এসব কথা বলেন।

দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন ও মানুষের স্বাচ্ছন্দ্যের বিষয়টি সামনে রেখে চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের বিষয়টি মাথায় রাখা হচ্ছে, জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে বাংলাদেশ কাজ করছে।

এবারের সম্মেলনে ১৫টি সেশনের একটি বড় অংশজুড়ে ফাইভ-জি এবং সাইবার নিরাপত্তা ইস্যু থাকবে বলেও জানান মন্ত্রী।

মোস্তাফা জব্বার আরো বলেন, তথ্য প্রযুক্তিতে বাংলাদেশ  আশাব্যঞ্জক উন্নতি করেছে। উন্নয়নের অভিযাত্রায় অপ্র‌তি‌রোধ্য গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে দেশ। বাংলাদেশ এখন তলা‌বিহীন ঝু‌ড়ি নয়।

তিনি বলেন, কমনওয়েলথভুক্ত দেশগুলোর কাছে বাংলাদেশ এখন তথ্য প্রযুক্তিতে সফল একটি দেশের নাম। ইতোমধ্যে ৪ হাজার ১৪৯ ইউনিয়নে ১ লাখ ২০ হাজার ফাইবার অপটিক ক্যাবল দিয়ে সংযোগ স্থাপন করা হয়েছে।

অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন- ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান এ কে এম রহমতুল্লাহ, টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) চেয়ারম্যান মো. জহুরুল হক, টেলিযোগাযোগ সচিব অশোক কুমার বিশ্বাস এবং কমনওয়েলথের টেলিযোগাযোগ সংস্থার ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব গিসা ফুয়াতাই পারসেল।

এ আয়োজনে কমনওয়েলথভুক্ত দেশগুলো ছাড়াও অন্যান্য দেশের টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তিবিষয়ক মন্ত্রী, সচিব, রেগুলেটর প্রধান, সরকারি-বেসরকারি সংস্থার শীর্ষ কর্মকর্তাসহ টেলিকম এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি সংশ্লিষ্ট দেশি-বিদেশি প্রায় ২৫০-৩০০ প্রতিনিধি অংশ নিচ্ছেন।

প্রসঙ্গত, ‘টুওয়ার্ডস এ ডিজিটাল কমনওয়েলথ’ প্রতিপাদ্য নিয়ে ঢাকায় দ্বিতীয়বারের মতো হচ্ছে কমনওয়েলথ টেলিযোগাযোগ সংস্থার (সিটিও) পাঁচ দিনব্যাপী ৫৯তম কাউন্সিল সভা ও বার্ষিক ফোরাম। চলবে আগামী ৪ অক্টোবর পর্যন্ত।

ফোরামে কমনওয়েলথভুক্ত দেশগুলোর টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তিবিষয়ক মন্ত্রী, সচিব, রেগুলেটর প্রধান, সরকারি-বেসরকারি সংস্থার পদস্থ কর্মকর্তা এবং এ খাতের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট দেশি-বিদেশি প্রায় ২৫০ থেকে ৩০০ প্রতিনিধি অংশ নিচ্ছেন।

এই বিভাগের আরো খবর