• রোববার   ০৯ মে ২০২১ ||

  • বৈশাখ ২৫ ১৪২৮

  • || ২৬ রমজান ১৪৪২

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
২৪ ঘণ্টায় করোনায় দেশে ৪৫ মৃত্যু খালেদা জিয়াকে বিদেশে নেয়ার প্রয়োজন নেই : হানিফ দিনবদলের অভিযাত্রায় অদম্য গতিতে দেশ এগিয়ে চলছে: সেতুমন্ত্রী তাণ্ডবকারীদের আইনের আওতায় আনা হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনলাইনে পরীক্ষা নিতে পারবে বিশ্ববিদ্যালয়গুলো আজই ফিরছেন সাকিব-মুস্তাফিজ যে যেখানে আছেন সেখানেই ঈদ উদযাপন করুন: প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার আবেদন পেয়েছি, দ্রুত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে: আইনমন্ত্রী যুক্তরাষ্ট্রের কাছে ২০ মিলিয়ন টিকা চেয়েছে বাংলাদেশ: আব্দুল মোমেন গ্রামে বাড়ি নির্মাণে ইউনিয়ন পরিষদের অনুমতি লাগবে: তাজুল করোনা প্রাণ নিল আরও ৫০ জনের, নতুন শনাক্ত ১৭৪২ সেরামের টিকা না পেলে টাকা ফেরত চাওয়া হবে: অর্থমন্ত্রী ধান-চাল ক্রয়ের জন্য অত্যন্ত যৌক্তিক দাম নির্ধারণ: কৃষিমন্ত্রী শপিংমল খোলা রাত ৮টা পর্যন্ত ১২ মে’র আগেই আসবে চীনের টিকা: পররাষ্ট্রমন্ত্রী ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তাণ্ডবের ঘটনায় আরো ১০ জন গ্রেফতার করোনায় একদিনে আরও ৬১ জনের মৃত্যু বাঁশখালীতে নিহতদের পরিবারকে ৫ লাখ টাকা করে দেয়ার নির্দেশ জুনায়েদ আল হাবিব আরও ৪ দিনের রিমান্ডে নাশকতার মামলায় ফের ৫ দিনের রিমান্ডে মামুনুল হক

প্রবাসীদের বিনিয়োগ বাড়াতে বন্ড ছাড়বে সরকার

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ২৭ অক্টোবর ২০২০  

প্রবাসী বাংলাদেশিদের বিনিয়োগ বাড়াতে একাধিক বৈদেশিক মুদ্রায় বন্ড ছাড়ার পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে সরকার। এরইমধ্যে প্রবাসীদের পাঠানো রেমিট্যান্স ওপর ২ শতাংশ হারে প্রণোদনা দিচ্ছে সরকার।

সম্প্রতি এক বৈঠকে এসব বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়ার কথা জানিয়েছে অর্থ মন্ত্রণালয়।

বন্ডে বিনিয়োগ আকর্ষণে যেসব দেশে বাংলাদেশি শ্রমিক ও অভিবাসী বেশি আছে যেমন মধ্যপ্রাচ্য, মালয়েশিয়া, যুক্তরাজ্য, ইতালি এসব দেশে রোড-শো করা হবে। 

অর্থ মন্ত্রণালয় জানায়, বর্তমানে প্রবাসী বাংলাদেশিদের জন্য ‘ওয়েজ আর্নার ডেভেলপমেন্ট বন্ড’, ‘ইউএস ডলার প্রিমিয়াম বন্ড’ ও ‘ইউএস ডলার ইনভেস্টমেন্ট বন্ড’ নামে তিন ধরনের বন্ড চালু রয়েছে। কিন্তু প্রচলিত তিনটি বন্ড-ই শুধুমাত্র ডলারে ক্রয় ও ভাঙানো যায়। এ পরিপ্রেক্ষিতে বন্ড তিনটি শুধু ডলারের হিসাবে সীমাবদ্ধ না-রেখে পাউন্ড ও ইউরো মুদ্রায়ও চালুর সিদ্ধান্ত নিয়েছে অর্থ বিভাগ।

মন্ত্রণালয় আরো জানায়, প্রবাসী বাংলাদেশিদের জন্য প্রচলিত বন্ড তিনটিতে কোনো বিনিয়োগসীমা নির্ধারিত নেই। এসব বন্ডে বিনিয়োগের বিপরীতে প্রায় ১৬ শতাংশ হারে সুদ বা মুনাফা পেয়ে থাকেন প্রবাসীরা। ফলে, এ খাতে সুদ ব্যয়ে সরকারের একটি বড় অংক ব্যয় হয়। 

এমতাবস্থায় অভ্যন্তরীণ মুদ্রায় (টাকায়) প্রচলিত বন্ডগুলোর মতো প্রবাসীদের জন্য চালু বন্ডগুলোতেও সর্বোচ্চ বিনিয়োগসীমা থাকা দরকার বলে মনে করছে অর্থ বিভাগ। প্রাথমিকভাবে বন্ড তিনটির বিপরীতে বৈদেশিক মুদ্রায় সর্বোচ্চ ১ কোটি টাকার সম-পরিমাণ অর্থ বিনিয়োগ করা যাবে বলে সভায় মন্ত্রণালয় সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।