মঙ্গলবার   ২১ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ৮ ১৪২৬   ২৫ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
প্রয়োজনে শিক্ষকদের বিদেশে পাঠান : প্রধানমন্ত্রী শিল্প-কারখানার পাশে জলাধার থাকতে হবে: প্রধানমন্ত্রী কারিগরি শিক্ষার উন্নয়নসহ একনেকে ৮ প্রকল্প অনুমোদন যশোর-৬ আসনের এমপি ইসমত আর নেই,প্রধানমন্ত্রীর গভীর শোক আবরার হত্যা : অভিযোগ গঠন ৩০ জানুয়ারি শেখ হাসিনা হত্যাচেষ্টায় পাঁচ জনের মৃত্যুদণ্ড ভারত থেকে পেঁয়াজ কেনার কোনও সুযোগ নেই: বাণিজ্যমন্ত্রী বিশ্বের সামনে বাংলাদেশ উন্নয়নের রোল মডেল : তোফায়েল আহমেদ দেশে মুক্তিযুদ্ধের পতাকাবাহী সরকার প্রতিষ্ঠিত: রাষ্ট্রপ‌তি সন্ধ্যায় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন আইসিসির সিইও সংসদের দক্ষিণ প্লাজায় এমপি মান্নানের প্রথম জানাজা সম্পন্ন সিপিবি’র সমাবেশে বোমা হামলা : ১০ জঙ্গির ফাঁসি এমপি মান্নানের মরদেহে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা আদালতে সিপিবির সমাবেশে বোমা হামলা মামলার ৪ আসামি চীনের জিনজিয়াং প্রদেশে শক্তিশালী ভূমিকম্প শহীদ আসাদ দিবস আজ বৈষম্য বিলোপ আইনের খসড়া তৈরির কাজ চলছে: আইনমন্ত্রী মানবতার কল্যাণ কামনায় শেষ হলো বিশ্ব ইজতেমা আখেরি মোনাজাতে অংশ নিতে লাখো মুসল্লি তুরাগতীরে পুরো পরীক্ষাই পেছাবে, নতুন সূচি আজ : শিক্ষামন্ত্রী

সরকার সুষম উন্নয়ন সুবিধা তৃণমূলে পৌঁছে দিচ্ছে : স্পিকার

প্রকাশিত: ২১ জানুয়ারি ২০২০  

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, প্রবৃদ্ধি অর্জনের ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশের জিডিপি এখন ৮.১ শতাংশ। বর্তমান সরকার সুষম উন্নয়ন সুবিধা তৃণমূলে পৌঁছে দিচ্ছে। মঙ্গলবার (২১ জানুয়ারি) স্পিকারের সঙ্গে সংসদ ভবনে তার কার্যালয়ে বাংলাদেশে নিযুক্ত নেপালের রাষ্ট্রদূত বংশীধর মিশ্র সৌজন্য সাক্ষাৎ করলে এ কথা বলেন তিনি।

সাক্ষাৎকালে তারা সংসদীয় গণতন্ত্র, সংসদীয় মৈত্রী গ্রুপ, দুই দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন ও ব্যবসা-বাণিজ্যের প্রসার নিয়ে আলোচনা করেন।

শিরীন শারমিন বলেন, বাংলাদেশ ও নেপালের মধ্যে দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক অত্যন্ত শক্তিশালী। ভবিষ্যতে এ সম্পর্ক আরও সুদৃঢ় হবে। এ সময় স্পিকার ২০১৭ সালের নেপাল সফরে সে দেশের রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী ও স্পিকারের সঙ্গে সাক্ষাতের স্মৃতিচারণ করেন।

তিনি বলেন, ব্যবসা-বাণিজ্য প্রসার ও দুই দেশের সংসদীয় প্রতিনিধি দলের সফরের মাধ্যমে সংসদ এবং সংসদ সদস্যদের মধ্যে সম্পর্ক আরও নিবিড় হবে। স্পিকার মুজিববর্ষ উদযাপন সম্পর্কে রাষ্ট্রদূতকে অবহিত এবং নেপালের স্পিকারকে বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ জানান।

রাষ্ট্রদূত নেপালের সংসদীয় গণতন্ত্রে উত্তরণ ইতিহাস স্পিকারকে অবহিত করেন। এ সময় তিনি বাংলাদেশের উন্নয়ন ধারাবাহিকতার প্রশংসা করে বলেন, বাংলদেশের উন্নয়ন অনুসরণযোগ্য। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে স্থিতিশীল রাজনীতির জন্যই অভূতপূর্ব উন্নয়ন সম্ভব হয়েছে বলেও উল্লেখ করেন তিনি। নেপাল সংসদীয় গণতন্ত্রের উন্নয়ন ও অর্থনৈতিক উন্নয়নের পথে অগ্রসর হচ্ছে। ৭ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জনে নেপাল সক্ষম হয়েছে বলেও তিনি স্পিকারকে অবহিত করেন।

বংশীধর মিশ্র বাংলাদেশকে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ বন্ধুপ্রতীম দেশ হিসেবে অভিহিত করে বলেন, পারস্পরিক স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিষয়ে প্রতিবেশী দুই দেশের মধ্যে সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে।

এই বিভাগের আরো খবর