মঙ্গলবার   ৩১ মার্চ ২০২০   চৈত্র ১৭ ১৪২৬   ০৬ শা'বান ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
করোনায় খাদ্য ঘাটতি হবে না : কৃষিমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সে বক্তব্য রাখ‌ছেন প্রধানমন্ত্রী আজ সকালে ৬৪ জেলার কর্মকর্তাদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর কনফারেন্স পিপিই যেন নষ্ট না হয়, সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী করোনা মোকাবিলায় সরকার জনগণের পাশে আছে -প্রধানমন্ত্রী ছুটিতে কর্মস্থল ছাড়া যাবে না : সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন করোনা সংকটকালে জনগণের পাশে থাকবে আ.লীগ: কাদের আমি করোনায় আক্রান্ত হইনি : স্বাস্থ্যমন্ত্রী বাংলাদেশে ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত নেই : আইইডিসিআর পদ্মা সেতু‌তে বসলো ২৭তম স্প্যান, দৃশ্যমান হলো ৪ হাজার ৫০ মিটার করোনায় আক্রান্ত ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন সব পোশাক কারখানা বন্ধের নির্দেশ পবিত্র শবে বরাত ৯ এপ্রিল স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে জনসমাগম করবেন না: প্রধানমন্ত্রী অতি প্রয়োজন ছাড়া ঘরের বাইরে যাবেন না : প্রধানমন্ত্রী জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী মুক্তি পেলেন খালেদা জিয়া সন্ধ্যায় জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী আজ থেকে একসাথে দু`জন রাস্তায় হাঁটতে পারবে না জাতির উদ্দেশে আজ ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী
১০১

পেঁপেঁ পাতার রস খেয়ে ডেঙ্গু জ্বরে সুস্থ্য হয়েছেন সাত জন

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ২১ আগস্ট ২০১৯  


 জেলার গৌরনদী উপজেলার পিঙ্গলাকাঠী গ্রামে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে চার সন্তানের জননী গৃহবধু নাছিমা বেগম (৩৭) মারা গেছেন। উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকায় নেয়ার পথে মঙ্গলবার দিবাগত রাতে তিনি মারা যান। নাছিমা বেগম পিঙ্গলাকাঠীর মোল্লারখালপাড় নামক এলাকার আবুল হোসেন মোল্লার স্ত্রী। জানা গেছে, একই গ্রামে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে সাতজনে পেঁেপ পাতার রস খেয়ে সম্পূর্ণরুপে সুস্থ্য হয়েছেন।
ওই গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত বিজিপি সদস্য সিরাজ ফকির (৫২) জানান, তিনিসহ তার কন্যা বিএম কলেজের অনার্স দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী অন্তরা (২০), প্রতিবেশী জলিল সরদার (২২), সুমন হাওলাদার (২০), জুরান ফকির (৩২), ইব্রাহিম সরদার (২২), রেনু বেগম (৪০) ও নাছিমা বেগম (৩৫) কোরবানীর ঈদের পর ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হন। তারা সবাই গৌরনদীর একটি ক্লিনিকে পরীক্ষা-নিরীক্ষায় মাধ্যমে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্তর বিষয়টি নিশ্চিত হয়েছেন।
তিনি আরও জানান, তারা ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে গৌরনদী উপজেলা হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে যান। কিন্তু সেখানে ডেঙ্গু রোগীর চিকিৎসার ব্যবস্থা না থাকায় নিরাশ হয়ে পরেন। এ সময় তার পুত্র ইঞ্জিনিয়ার মেহেদী হাসান ইন্টারনেটের মাধ্যমে পেঁপে পাতার রশ খেলে ডেঙ্গু জ্বর ভাল হয় বিষয়টি জানতে পারেন। পরবর্তীতে পুত্রের পরামর্শে তিনি (সিরাজ) সহ অন্যান্যরা দৈনিক সকাল-বিকেল ও দুপুরে আধা কেজি করে পেঁপেঁ পতার রশ ও একটি করে প্যারাসিটামল ট্যাবলেট খাওয়া শুরু করেন। সাতদিনের মধ্যে তারা সাতজনেই সম্পূর্ন সুস্থ্য হন। তবে তাদের পরামর্শে নাছিমা বেগম পেঁপেঁ পাতার রশ না খেয়ে বিভিন্ন ধরনের ওষুধ খেয়েছেন। মঙ্গলবার বিকেলে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত নাছিমা বেগম গুরুত্বর অসুস্থ্য হয়ে পরলে রাতে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেয়ার পথে সে মারা যায়।
পেঁপেঁ পাতার রশ খেলে ডেঙ্গু জ্বর ভাল হয় এ বিষয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) ডাঃ বিপুল বিশ্বাস বলেন, এমন কোন বিষয় চিকিৎসা বিজ্ঞানে নেই, তাই আমরা কাউকে এ ধরনের পরামর্শ দিতে পারিনা।
 

এই বিভাগের আরো খবর