শুক্রবার   ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ২৮ ১৪২৬   ১৫ রবিউস সানি ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
বরিশালে ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস উদযাপন আজকের নবীন কর্মকর্তারাই হবেন ৪১ সালের সৈনিক : প্রধানমন্ত্রী ঘুষ-দুর্নীতির বিরুদ্ধে সজাগ থাকার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহারে দায়িত্বশীল হতে হবে: স্পিকার বয়স্ক বাবা-মাকে না দেখলে জেল চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ষোলোতে যারা ফখরুল-রিজভীসহ ১৩৫ জনের বিরুদ্ধে দুই মামলা আগৈলঝাড়ায় ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস পালন  সবার জন্য উন্মুক্ত থাকছে ‘কনসার্ট ফর ডিজিটাল বাংলাদেশ’ এসক্যাপ অধিবেশনে যোগ দিতে শেখ হা‌সিনা‌কে আমন্ত্রণ কৃষি আধুনিক হলেই মাথাপিছু আয় বাড়বে: কৃষিমন্ত্রী ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস আজ মাওলানা ভাসানীর জন্মবার্ষিকী আজ ববি শিক্ষক সমিতির নির্বাচন : সভাপতি আরিফ-সম্পাদক খোরশেদ বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ছিলো সুখী সমৃদ্ধ সোনার বাংলা গড়ার কাল নেতাকর্মীদের সতর্ক থাকতে বললেন ওবায়দুল কাদের ‘ফুড চেইনের মাধ্যমে প্লাস্টিক শরীরে প্রবেশ করছে’ বিশাল জয়ে শুরু কুমিল্লার বঙ্গবন্ধু বিপিএল মিশন টাইম ম্যাগাজিনের ‘পারসন অব দ্য ইয়ার’ গ্রেটা থানবার্গ বিদ্যুৎ খাতের উন্নয়নে ৩০ কোটি ডলার দেবে এডিবি
৩১

পাসপোর্ট করাতে এসে গ্রেফতার রোহিঙ্গা রিমান্ডে

প্রকাশিত: ২০ নভেম্বর ২০১৯  

পাসপোর্ট করাতে এসে গ্রেফতার এক মিয়ানমারের নাগরিক ও তার সহযোগীকে তিন দিন করে রিমান্ড দিয়েছেন আদালত।

বুধবার (২০ নভেম্বর) মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মেহনাজ রহমানের আদালত তাদের এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

গ্রেফতার ওই রোহিঙ্গার নাম অহিদা (২৫)। তিনি মিয়ানমারের মংডু এলাকার ইসমাইল হোসেনের মেয়ে। তার সহযোগীর নাম মো. সিরাজুল ইসলাম (৫২)। তিনি বাকলিয়া চাক্তাই এলাকার হাজী আবুল হোসেনের ছেলে।

গ্রেফতার রোহিঙ্গা অহিদা মো. সিরাজুল ইসলামের সহযোগিতায় কাউন্সিলর ইসমাইল বালীর কাছ থেকে নাগরিকত্ব সনদ নিয়ে পাসপোর্ট করাতে এসেছিলেন।

চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের সিনিয়র সহকারী কমিশনার (প্রসিকিউশন) কাজী শাহাবুদ্দীন আহমেদ বলেন, পাসপোর্ট করাতে এসে গ্রেফতার অহিদা ও তার সহযোগী সিরাজুল ইসলামকে তিন দিন করে রিমান্ড দিয়েছেন মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মেহনাজ রহমানের আদালত। পাঁচলাইশ থানা পুলিশ তাদের দশ দিনের রিমান্ড চেয়ে আবেদন করেছিল।

পাঁচলাইশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কাশেম ভুঁইয়া বলেন, বাকলিয়া চাক্তাই এলাকার মো. সিরাজুল ইসলামকে নিয়ে সঙ্গে নিয়ে পাসপোর্ট করাতে এসেছিলেন রোহিঙ্গা নাগরিক অহিদা। অহিদা পাসপোর্ট করানোর জন্য কাউন্সিলর ইসমাইল বালীর সই করা একটি নাগরিকত্ব সনদ ফাইলে জমা দিয়েছেন। সেগুলো আমরা তদন্ত করছি।

ওসি আবুল কাশেম ভুঁইয়া, অহিদা তার বাবার জাতীয় পরিচয়পত্র জমা দিয়েছেন পাসপোর্টের ফাইলে। তিনিও কীভাবে জাতীয় পরিচয়পত্র পেলেন তা আমরা তদন্ত করে দেখবো। তাদের সহযোগী সকলকে আইনের আওতায় আনা হবে।

এই বিভাগের আরো খবর