মঙ্গলবার   ১৫ অক্টোবর ২০১৯   আশ্বিন ২৯ ১৪২৬   ১৫ সফর ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
স্বামী-স্ত্রীর পায়ে ১৮টি স্মার্টফোন ৬ দিনের অভিযানে বরিশাল বিভাগে ১৫৪ জেলের কারাদণ্ড অপমানে কাঁদলেন মৌসুমী সাগরে ফের ভারতীয় ১১ জেলে আটক বিয়ে-বিচ্ছেদের পর শরিয়তে সন্তান প্রতিপালনের অধিকার কার? মৃত্যুর আগে জাহ্নবীকে দেয়া মা শ্রীদেবীর দামি পরামর্শ যা ছিল বরিশাল স্টেডিয়ামে আসছে শ্রীলংকা যুদ্ধাপরাধ: আজ ৫ রাজাকারের রায় মানবাধিকার ও আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় গুরুত্ব স্পিকারের শাহজালালে বিপুল পরিমাণ ইউএস ডলার ও থাই বাথসহ আটক ১ বাবরি মসজিদের রায় ঘিরে অযোধ্যায় ১৪৪ ধারা বাংলাদেশের প্রথম হিজড়া ভাইস চেয়ারম্যান পিংকী হাইপ্রোফাইল দুর্নীতিবাজ: এবার বড় অভিযানে নামছে দুদক এক মঞ্চে ৯৩ বইয়ের মোরক উন্মচন করলেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী ১১১ ফুটের গ্রহাণু ধেয়ে আসছে পৃথিবীর দিকে! প্লে স্টোর থেকে আবারও ১৫ অ্যাপ বাতিল কেমন মানুষদের বুদ্ধি বেশি হয়? বিপিএলের চার স্পন্সর প্রস্তুত একসঙ্গে নোবেল জিতেছেন যে দম্পতিরা হাওরের জমি পাবে না রাঘব বোয়ালরা -রাষ্ট্রপতি
২৭

‘পার্টনার’ হারিয়ে অস্বস্তিতে জামাল ভূঁইয়া

প্রকাশিত: ৯ অক্টোবর ২০১৯  

ফুটবলের হোল্ডিং মিডফিল্ডার অদ্ভুত এক পজিশন। মাঠে তাঁদের উপস্থিতি টের পাওয়া যায় না। কখনো নজরে পড়েন না তাঁরা, সব কেড়ে নেন স্ট্রাইকার নয়তো ডিফেন্ডাররা। কিন্তু তাঁরা মাঠে না থাকলেই টের পাওয়া যায় হাড়ে হাড়ে! মাসুক মিয়া জনি ও আতিকুর রহমান ফাহাদ তা মনে করিয়ে দিচ্ছেন। চোটের কারণে দল থেকে ছিটকে গিয়েছেন সঙ্গে জুটি বেঁধে রক্ষণভাগকে ছায়া দেওয়া এই দুই হোল্ডিং মিডফিল্ডার। সঙ্গী হারিয়ে কিছুটা বিপাকে পড়েছেন বাংলাদেশের অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়া।

সাম্প্রতিক সময়ে জাতীয় দলের প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা সংগঠন রাখতে সবচেয়ে বেশি অবদান রাখতেন জনি। ৪-২-৩-১ ফরমেশনে জামালের সঙ্গে ডাবল পিভট হোল্ডিং মিডফিল্ডার, মাঝে মাঝে স্ট্রাইকারের পেছনে জনি ছিল কার্যকরী এক খেলোয়াড়। অফুরন্ত দম ও ওয়ার্ক লোডের জন্য জেমির অটোমেটিক চয়েস। প্রতিপক্ষের পায়ে থেকে বল কেড়ে নিতে জুড়ি নেই তাঁর। কিন্তু চোটে বিশ্বকাপ ও এশিয়ান কাপের যৌথ বাছাইয়ের কোনো ম্যাচ খেলা হবে না এই ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডারের। ডান পায়ের লিগামেন্ট ছিঁড়ে যাওয়ায় মাশুককে মাঠের বাইরে থাকতে হবে অন্তত আট-নয় মাস। আর ফাহাদ তো দলের বাইরে চলে গিয়েছেন প্রাক বাছাইয়ের আগেই।

দুই সতীর্থকে হারিয়ে অস্বস্তিতে ভুগছেন অধিনায়ক জামাল, ‘মিডফিল্ডে আমার পার্টনার সব একে একে ঝরে যাচ্ছে। জনি দলের বাইরে চলে গেল। ফাহাদ তো অনেক আগ থেকেই ইনজুরিতে। ওদের সঙ্গে আমার বোঝাপড়া ভালো ছিল। একজনও না থাকাটা আমার জন্য অস্বস্তিকর।’

দুজনের অনুপস্থিতিতে বাছাইপর্বের প্রথম ম্যাচে আফগানিস্তানের বিপক্ষে জামালের সঙ্গে হোল্ডিং মিডফিল্ডার হিসেবে খেলেছিলেন সোহেল রানা। ভুটানের সঙ্গে শেষ দুই প্রীতি ম্যাচেও ছিলেন সোহেল। দুই দিন পর কাতার ম্যাচ। বাংলাদেশের রক্ষণভাগের ওপর দিয়ে কাতারের আক্রমণের ঝড় বয়ে যাবে। এ ঝড় সামাল দেওয়ার জন্য আক্রমণাত্মক মেজাজের সোহেল কতটা অবদান রাখতে পারবেন, এ নিয়ে কিছুটা সন্দেহ থেকেই যায়। সাধারণত বল প্লেয়ার হিসেবে পরিচিত সোহেলের বল কেড়ে নেওয়ার প্রবণতা একটু কমই। তবে নতুন জুটি নিয়ে আশাবাদী জামাল, ‘আফগানিস্তানের বিপক্ষে সোহেল রানা ভালোই করেছে। ভালো করেছে ভুটানের সঙ্গেও। আমাদের মধ্যে জুটিটা তৈরি হচ্ছে।’

বাস্তবতা মেনে নিয়েছেন কোচ জেমি ডে। তাই দুই গুরুত্বপূর্ণ মিডফিল্ডারের চোটকে অন্যদের সুযোগ হিসেবে দেখছেন বাংলাদেশের ইংলিশ কোচ, ‘চোটের ওপর কারও হাত নেই। বাস্তবতা মেনে নিতেই হবে। তাদের অনুপস্থিতিতে অন্যদের সুযোগ হবে। বিকল্প রাও পরীক্ষিত।’

এই বিভাগের আরো খবর