বৃহস্পতিবার   ২৩ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ১০ ১৪২৬   ২৭ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
পদ্মাসেতুতে বসলো ২২তম স্প্যান, দৃশ্যমান হলো ৩৩০০ মিটার জাতীয় প্রশিক্ষণ দিবস আজ বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ : ২য় সেমিফাইনালে মাঠে নামছে বাংলাদেশ এ খাবারগুলো খেলেই বিপদ! ১২৭ যাত্রী নিয়ে মাঝ আকাশে জ্বালানি শেষ, অতঃপর...! জাদুকরী স্বপ্ন দেখাব না : তাপস কাউকে তাড়ানোর আগে আমাকে ভারত ছাড়া করতে হবে : মমতা গণতন্ত্র সূচকে ৮ ধাপ অগ্রগতি বাংলাদেশের র‌্যাবের নামে চাঁদা দাবির ঘটনায় আটক ১ ৯৯৯ ফোন করে বখাটের হাত থেকে রক্ষা পেলো স্কুলছাত্রী ছাত্রীদের টিফিনের টাকায় বঙ্গবন্ধুর হাজারো ছবি কক্সবাজার সৈকতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ স্বর্ণদ্বীপ যাচ্ছেন ভারতে শিরোপা জিতলো বাংলাদেশের মেয়েরা সারওয়ার আলীকে হত্যাচেষ্টা মামলার মূল আসামি গ্রেফতার ধনী হতে চাইলে রপ্ত করুন এই ১২টি অভ্যাস নিরাপদে লাহোর পৌঁছেছেন টাইগাররা আজ আইসিজেতে রোহিঙ্গা গণহত্যা মামলার রায় ক্যাসিনো ব্রাদার্সের ১৩০ ফ্ল্যাটের খোঁজ ফার্নিচার রপ্তানি ১০ কোটি ডলার ছাড়াবে ৭০০টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ, রেলের ৫ একর জায়গা উদ্ধার
৭৯

পদ না পেয়ে বিএনপিপন্থী আইনজীবীর চেম্বারে দলীয় কর্মীদের হামলা!

প্রকাশিত: ১০ অক্টোবর ২০১৯  

ক্ষমতায় না থেকেও পদ-পদবির লোভে সংঘাত-সংঘর্ষের ঘটনা বিএনপিতে নতুন নয়। যোগ্যতা ও জ্যেষ্ঠতা না থাকা সত্ত্বেও ইচ্ছানুযায়ী পদ না পাওয়া নিয়ে বিএনপির বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনে সংঘাতের ঘটনা যেন প্রতিদিনের ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে।

দলীয় কোন্দল ও পদ বাণিজ্যের জেরে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি ভবনে বিএনপির আইন বিষয়ক সম্পাদক ব্যারিস্টার কায়সার কামালের চেম্বার ভাঙচুর করেছে বিএনপি নেতা-কর্মীরা। জানা গেছে, বিএনপিপন্থী আইনজীবীদের সংগঠন জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের কেন্দ্রীয় আহ্বায়ক কমিটি গঠনকে কেন্দ্র করে এই ঘটনা ঘটে। মূলত পদবঞ্চিত আইনজীবীদের উসকানিতে এই হামলার ঘটনা ঘটে।

বিভিন্ন তথ্যসূত্রে জানা গেছে, সোমবার (৭ অক্টোবর) বিকেলে ওই ভবনের নিচতলায় থাকা চেম্বারটিতে (১১০ নম্বর কক্ষ) ভাংচুর করা হয়। তবে এসময় ব্যারিস্টার কায়সার কামাল চেম্বারে ছিলেন না।

এর আগে গত ৩ অক্টোবর সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি ও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান খন্দকার মাহবুব হোসেনকে আহ্বায়ক এবং সাবেক ছাত্রনেতা ও আইনজীবী ফজলুর রহমানকে সদস্য সচিব করে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের ১৭৯ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি ঘোষণা করা হয়। এই কমিটি ঘোষণার পর থেকেই পদবঞ্চিতরা সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির ভবনে বিক্ষোভ মিছিল করেছেন। সোমবার ব্যারিস্টার কায়সার কামালের চেম্বার ভাঙচুরের আগেও পদবঞ্চিতদের মিছিল হয়।

ভাংচুরের বিষয়ে জানতে চাইলে ব্যারিস্টার কায়সার কামাল বলেন, অযোগ্য, হাইব্রিড ও সুযোগ সন্ধানীরা পদ না পাওয়ায় উদ্দেশ্যমূলকভাবে আমার চেম্বারে হামলা করেছে। তাদের উদ্দেশ্য ছিলো আমার ক্ষতি করা। সত্যি বলতে, অযোগ্য ও পদ লোভী নেতাদের কারণে সব জায়গায় বিএনপির বদনাম হচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, কারও বিরুদ্ধে যদি শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগ প্রমাণিত হয় তাহলে দলীয়ভাবে যথাযথ পদক্ষেপ নেওয়া হবে। আর যোগ্য কেউ পদবঞ্চিত হয়ে থাকলে তাদের হতাশ হওয়ার কিছু নেই। কমিটিতে থাকার সুযোগ শেষ হয়ে যায়নি। তাই বলে বিশৃঙ্খলা সহ্য করা হবে না।

এই বিভাগের আরো খবর