• বুধবার   ০৩ জুন ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ২০ ১৪২৭

  • || ১১ শাওয়াল ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ৩৭ মৃত্যু, শনাক্ত আরও ২৬৯৫ আজ থেকে চলবে আরও ৯ জোড়া ট্রেন হাসপাতাল থেকে রোগী ফেরানো শাস্তিযোগ্য অপরাধ: তথ্যমন্ত্রী যেকোনো প্রতিবন্ধকতা মোকাবিলা করে এগিয়ে যেতে পারব: প্রধানমন্ত্রী সময় যত কঠিনই হোক দুর্নীতি ঘটলেই আইনি ব্যবস্থা: দুদক চেয়ারম্যান জেলা হাসপাতালগুলোতে আইসিইউ ইউনিট স্থাপনের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর করোনা বিশ্ব বদলে দিলেও বিএনপিকে বদলাতে পারেনি: কাদের করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৩৭ মৃত্যু, শনাক্ত ২৯১১ সীমিত আকারে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার নির্দেশনা খাদ্য উৎপাদন আরও বাড়াতে সব ধরনের প্রচেষ্টা চলছে: কৃষিমন্ত্রী সারা দেশকে লাল, সবুজ ও হলুদ জোনে ভাগ করা হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ২৩৮১ জনের করোনা শনাক্ত পুরোপুরি স্বাস্থ্যবিধি মেনে ট্রেন চলছে: রেলমন্ত্রী দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় ২৫৪৫ জনের করোনা শনাক্ত, মৃত্যু ৪০ জন বাস ভাড়া যৌক্তিক সমন্বয়, প্রজ্ঞাপন আজই: ওবায়দুল কাদের এখনই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলবো না: প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সে এসএসসির ফল প্রকাশ করলেন প্রধানমন্ত্রী আগামীকাল ১২টার পরিবর্তে ১১টায় প্রকাশ হবে এসএসসির ফল করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ২৮ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৭৬৪ পদ্মাসেতুর সাড়ে ৪ কি.মি. দৃশ্যমান, বসল ৩০তম স্প্যান
৭৬

নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহে নিয়ন্ত্রণ কক্ষ চালু

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ২৮ মার্চ ২০২০  

করোনাভাইরাসের বিস্তাররোধে জনসমাগম এড়িয়ে চলতে পরামর্শ দিয়েছে সরকার। এর জন্য ২৬ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত সরকারি-বেসরকারি অফিস-আদালতসহ যানচলাচলও বন্ধ করা হয়েছে। বন্ধ রয়েছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানও। এ সময়ে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ করতে চায় সরকার।

এ জন্য বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের আওতাধীন এলাকায় নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ ও গ্রাহকদের সেবা দিতে কেন্দ্রীয় নিয়ন্ত্রণ কক্ষ চালু করেছে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়। নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ পেতে কেন্দ্রীয় নিয়ন্ত্রণ কক্ষে তথা ০২-৯৫৫৩১০০, ০১৮১৯২২৮৬১৬ নম্বরে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে।

এছাড়া কেন্দ্রীয় অভিযোগ ও গ্রাহক সেবা কেন্দ্রের- ০২-৪৭১২০২২৪, ০২-৪৭১২০২২৫, ০১৭০৮১৪৯৫০২, ০১৭০৮১৪৯৫০৩ নম্বরেও যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে।

এর আগে, গত ২২ মার্চ একই কারণে চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি, মার্চ ও এপ্রিল মাসের বিদ্যুৎ বিলের সারচার্জ বা বিলম্ব মাশুল না আদায়ে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এ সংক্রান্ত একটি চিঠি বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশনের চেয়ারম্যানে নিকট পাঠিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ কতে বলেছে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়।

চিঠিতে বলা হয়, বিদ্যুৎ বিভাগের আওতাধীন বিদ্যুৎ বিতরণকারী সংস্থা/কোম্পানিসমূহ গ্রাহক পর্যায়ে বিদ্যুৎ সরবরাহ করে থাকে। গ্রাহকগণ বিভিন্ন ব্যাংক এবং মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে সরবরাহকৃত বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করে থাকেন।

বর্তমানে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে অনেক গ্রাহকই জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বাসা-বাড়ি থেকে বের হচ্ছেন না। এর পরিপ্রেক্ষিতে চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি, মার্চ ও এপ্রিল মাসে অনেক গ্রাহকই নির্ধারিত সময়ের মধ্যে বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করতে পারবেন না মর্মে প্রতীয়মান হচ্ছে।

উপযুক্ত অবস্থার পরিপ্রেক্ষিতে ফেব্রুয়ারি, মার্চ ও এপ্রিল মাসের বিদ্যুৎ বিল পরিশোধের ক্ষেত্রে সারচার্জ বা বিলম্ব মাশুল ব্যতিরেকে পরিশোধের জন্য বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন থেকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ জানানো হলো।

জাতীয় বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর