রোববার   ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ৩০ ১৪২৬   ১৭ রবিউস সানি ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
বিজয় দিবসে আসছে সাবিনা ইয়াসমিনের গান নারীর ক্ষমতায়নে বিস্ময়কর রেকর্ড হাত থেকে কোরআন পড়ে গেলে করণীয় সানিয়া মির্জার বোনের বিয়েতে বসেছিল চাঁদের হাট! বিএনপির ঘাড়ে ভর করেছে বুদ্ধিজীবী হত্যাকারীদের প্রেতাত্মা ‘বোরকা পরে বাংলাদেশ থেকে এসেছি’ বিজেপি এমপির টুইটে ভারতে তোলপাড় বন্দে আলী মিয়ার জন্ম ‘২ ঘণ্টার মধ্যে উড়ে যাবে সালমান খানের গ্যালাক্সি অ্যাপার্টমেন্ট!’ গরুর খামারে কম্বল দান করলেই মিলবে বন্দুকের লাইসেন্স! আজ প্রকাশ হবে রাজাকারদের তালিকা সোশ্যাল মিডিয়া বিশেষজ্ঞ খুঁজছেন ব্রিটেনের রানি শামীমের ৩৬৫ কোটি টাকা, খালেদের ৩৪, সম্রাটের ‘তেমন নেই’ মাকাসিদুশ শরিয়া তত্ত্বের প্রয়োগ ও অপপ্রয়োগ লড়েছেন মোসাদ্দেক, জিতেছে ঢাকা প্রজন্ম থেকে প্রজন্মকে সচেতন থাকতে হবে: প্রধানমন্ত্রী মোশতাক, জিয়ার মতো মীরজাফররা আর যেন ক্ষমতায় না আসে-প্রধানমন্ত্রী বরিশালে শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস পালিত বরিস জনসনকে প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন আগৈলঝাড়ায় শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস পালিত বুদ্ধিজীবী দিবসে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা
৫৩

নিদ্রাহীনতায় মস্তিস্কের ক্ষয় হতে থাকে

প্রকাশিত: ১৪ নভেম্বর ২০১৯  

পর্যাপ্ত না ঘুমানো অভ্যাসে পরিণত হলে কিংবা নিদ্রাহীনতার সমস্যা থাকলে সবার আগে ক্ষতিগ্রস্ত হয় মানুষের মস্তিষ্ক। বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, মস্তিষ্কে পরিচ্ছন্নতার একটা স্বয়ংক্রিয় ব্যবস্থা রয়েছে। স্বাভাবিক অবস্থায় মস্তিষ্ক নিজেই নিজের কোষগুলো থেকে ময়লা-আবর্জনা পরিষ্কার করে। প্রয়োজন মতো না ঘুমালে এই সিস্টেম কাজ করে না। ময়লা জমে একে একে মরে যেতে থাকে মস্তিষ্কের কোষগুলো। সাম্প্রতিক এক গবেষণায় উঠে এসেছে এই তথ্য। 

মানুষের মস্তিষ্কে গ্লিয়াল নামের এক ধরনের সেল আছে। এরাই ব্রেনের কেয়ারটেকার, মস্তিস্কের কোষগুলোর যত্ন নেয় এরাই। মাথায় কোনও আঘাত পেলে এই সেলগুলো প্রথম সক্রিয় হয়ে আঘাত সামাল দেয়ার চেষ্টা করে। সব রকম ভাবেই গ্লিয়াল সেলগুলো ব্রেইনের অন্য কোষগুলো সুস্থ ও কর্মক্ষম রাখার কাজে নিয়োজিত থাকে। চারজন বিজ্ঞানী গবেষণা করে বের করেছেন, ক্রমাগত নির্ঘুম থাকলে তারা আকৃতির এই সেলগুলোই ব্রেইনের সুস্থ কোষগুলোকে খেয়ে ফেলে। আর এই প্রক্রিয়া চলতে থাকে ধারাহিকভাবে। মিশেল ব্যালেসি, লুইসা ডি ভিভো, মাত্তিয়া চিনি ও চিয়ারা চিরেলি ৪ বিজ্ঞানী ঘুম নিয়ে এই পরীক্ষা চালিয়েছেন ইঁদুরের ওপর।

ইঁদুরদের তিনটি দলে ভাগ করে তারা এই গবেষণা চালান। প্রথম দলের ইঁদুরদের ইচ্ছেমতো ঘুমাতে দেয়া হয়। দ্বিতীয় দলকে তাদের আট ঘণ্টা বেশি জেগে থাকতে দেয়া হয় আর তৃতীয় দলকে পাঁচদিন ঠিকমতো ঘুমাতেই দেয়া হয়নি। বিজ্ঞানীরা দেখেন, ঘুমাতে না পারা ইঁদুরদের মস্তিষ্কে বিরূপ প্রভাব পড়েছে।

এই বিভাগের আরো খবর