সোমবার   ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ৭ ১৪২৬   ২৩ মুহররম ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
বাচ্চাকে মারধর করায় থানা ঘেরাও হনুমানের! জাতীয় নারী দাবায় শীর্ষস্থানে রানী হামিদ ইউজিসির কাঠগড়ায় পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৪ ভিসি ক্যাসিনোতে মিলল ধর্মীয় উপাসনা সামগ্রী! বিজয়নগর সায়েম টাওয়ার থেকে ১৭ জুয়ারী আটক ১৩ নেপালিকে মোটা অংকের বেতনে রাখা হয় জুয়া চালাতে স্পা সেন্টার থেকে আটক ১৬ নারী, ৩ পুরুষ আরও ১০ লক্ষ তরুণ-তরুণীর কর্মসংস্থান করা হবে- পলক আবুধাবি থেকে নিউইয়র্কের পথে প্রধানমন্ত্রী অজুহাতে কাজ আটকে রাখলে কঠোর ব্যবস্থা: গণপূর্তমন্ত্রী ব্যাংক নোটের আদলে টোকেন ব্যবহার করা যাবে না ঢাকা আসছেন বিশ্ব ব্যাংকের ভাইস প্রেসিডেন্ট ও জাতিসংঘের দূত খিলক্ষেতে বোমা হামলা: ৫ জেএমবির ১২ বছরের দণ্ড আরামবাগ-দিলকুশা ক্লাবে জুয়ার সরঞ্জাম উদ্ধার ভিক্টোরিয়া ক্লাব থেকে নগদ টাকা ও মদের বোতল উদ্ধার সৌদিতে শিরশ্ছেদ করে ১৩৪ জনের মৃত্যুদণ্ড শিশুদের কোলবালিশের ভেতর থেকে ১০ কেজি গাঁজা উদ্ধার! মতিঝিলে ৪ ক্লাবে পুলিশের অভিযান রিমান্ডে খালেদ ও শামীমের কাছ থেকে চাঞ্চল্যকর তথ্য ঢাকায় বাংলাদেশ-ভারত নৌবাহিনী প্রধানের সাক্ষাত
৩৪

নারায়ণগঞ্জে তারেক রহমানের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা

প্রকাশিত: ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

 

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ তিন জনের বিরুদ্ধে নারায়ণগঞ্জ আদালতে মামলা দায়ের হওয়ার পর গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি হয়েছে। সোমবার দুপুরে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট (ক) অঞ্চল আমলী আদালতে আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য আকরাম হোসেন বাদল মামলাটি দায়ের করেন। পরে এ আদালতের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মিল্টন হোসেন গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন। 

মামলার বাকি আসামিরা হলেন- যুক্তরাজ্য বিএনপির সাবেক সভাপতি শায়েস্তা চৌধুরী কুদ্দুস ও সাধারণ সম্পাদক কওছর এম আহমেদ।

বাদী তার মামলার বিবরণে উল্লেখ করেন, লন্ডনের একটি অনুষ্ঠানের সংবাদ গত ১৯ আগস্ট ২০১৯ এনটিভিতে ২ ও ৩ নং বিবাদীর সহায়তায় প্রচারিত হয়। এতে দেখা যায়, ১ নং বিবাদী তারেক রহমান বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমান কর্তৃক স্বাধীনতা ঘোষণা তিনি মানেন না। এছাড়া বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কটাক্ষ এবং স্বাধীনতার ইতিহাস বিকৃত করে মানহানিকর কথাবার্তা বলেন। 
১ নং বিবাদী আরো প্রচার করেন, সে সময়কার সরকার অবৈধ এবং বর্তমান সরকারও অবৈধ। বিবাদীগণ বঙ্গবন্ধু ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে মিথ্যা বানোয়াট মানহানিকর বক্তব্য দিয়ে ৫০০ ও ৫০১ ধারায় অপরাধ করেছেন। আদালত অভিযোগ আমলে নিয়ে তিন জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন।

বাদীর আইনজীবী অ্যাডভোকেট নুরুল হুদা জানান, বঙ্গবন্ধু, মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস নিয়ে বিকৃতি ও মানহানিকর বক্তব্য দেয়ায় তারেক রহমানসহ তিনজনের বিরুদ্ধে মামলার পর আদালত গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছে।

এদিকে তারেক রহমানের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের ও গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর বিএনপির নেতা-কর্মীরা।

নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা তৈমূর আলম খন্দকার জানান, সরকার তারেক রহমানকে ভয় পায়। তাদের মন্ত্রী-এমপিরা দিনে-রাতে স্বপ্নে দেখে তারেক রহমান বীরের বেশে বাংলাদেশে আসছেন। তাই সুদূর লন্ডনে বসে সত্য ও যুক্তি দিয়ে বক্তব্য রাখলেও সেখানে তারা মানহানি ও রাষ্ট্রদ্রোহিতা খোঁজেন এবং তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি হয়। আমি সরকারকে স্পষ্টভাবে বলে দিতে চাই, তারেক রহমান এইসব মিথ্যা মামলাকে ভয় পান না। অচিরেই তার চিকিৎসা শেষ করে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার আন্দোলনে অংশ নেয়ার জন্য দেশে ফিরে আসবেন এবং তার বিরুদ্ধে দায়ের করা মিথ্যা মামলা আইনের মাধ্যমে মোকাবেলা করবেন। আমি মনে করি, তারেক রহমানের দেশে আসায় প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করার জন্য সরকার একের পর এক মিথ্যা মামলা ও গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করছে। 

এই বিভাগের আরো খবর