• বুধবার   ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ ||

  • আশ্বিন ১৪ ১৪২৭

  • || ১২ সফর ১৪৪২

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
পাঁচদিনের রিমান্ডে জেএমআই চেয়ারম্যান করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ২৬, শনাক্ত ১৪৮৮ অস্ত্র মামলায় সাহেদের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড মাহবুবে আলমের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম আর নেই দূরদর্শী নেতা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৪তম জন্মদিন এমসি কলেজে ধর্ষণের ঘটনায় কাউকে ছাড় নয়: কাদের করোনায় আরও ২৮ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৫৪০ মেহেরপুরে ‘আল্লাহর দল’র সক্রিয় সদস্য আটক করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৩৭ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৬৬৬ করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ২৮, শনাক্ত ১৫৫৭ মসজিদে বিস্ফোরণে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৩৪ ধর্ষণ মামলায় ভিপি নুর গ্রেফতার আইসিটি মামলায় আলাউদ্দিন জিহাদী এক দিনের রিমান্ডে করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৪০, শনাক্ত ১৭০৫ গাড়িচালক মালেক ১৪ দিনের রিমান্ডে করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ২৬, শনাক্ত ১৫৪৪ গভীর সমুদ্র থেকে ৫ লাখ পিস ইয়াবা উদ্ধার, আটক ৭ ব্যাংকটা যেন ভালোভাবে চলে সেদিকে দৃষ্টি দিবেন: প্রধানমন্ত্রী নারায়ণগঞ্জের মসজিদে বিস্ফোরণে মৃত্যু বেড়ে ৩৩
৫৯

নতুন নয়, পুরনো সড়কের উন্নয়ন করা হবে: পরিকল্পনামন্ত্রী

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ২১ জানুয়ারি ২০২০  

আর নতুন সড়ক নির্মাণ করা হবে না, সারাদেশে বিদ্যমান পুরনো সড়কগুলোর উন্নয়ন করা হবে বলে জানিয়েছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান। মঙ্গলবার (২১ জানুয়ারি) সকাল ১০টায় শেরে বাংলা নগর এনইসি সম্মেলন কক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে একনেক সভা অনুষ্ঠিত হয়। প্রকল্পের সার্বিক বিষয়ে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য দেওয়ার সময় সময় পরিকল্পনামন্ত্রী এসব কথা বলেন।

জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় মোট আটটি প্রকল্পের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। প্রকল্পগুলোর মোট ব্যয় ২২ হাজার ৯৪৫ কোটি ৮৪ লাখ টাকা।  

পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন, আমরা নতুন সড়ক নির্মাণ করছি না। যে সব সড়ক আছে সেগুলোর যেখানে সেতু লাগবে, তা নির্মাণ করা হবে। যেখানে সড়ক মজবুত, মোটা ও প্রশস্ত করার দরকার তাই করবো। বিদ্যমান সড়কের উন্নয়ন করে তা জনবান্ধব করবো সবার আগে।

তিনি বলেন, আমাদের দেশে বিদ্যমান ভূমির সর্বোত্তম ব্যবহার করতে হবে। মৃত্তিকার গবেষণাও বাড়াতে হবে। এখনো আমাদের কৃষি অর্থনীতির মেরুদণ্ড। তাই কৃষিকাজে সুফল পেতে মাটির গবেষণা জরুরি।

প্রকল্পের বার বার সংশোধন প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, প্রকল্প বাস্তবায়নের পথে প্রধান বাঁধা ভূমি অধিগ্রহণ। কারণ ভূমির সঙ্গে আবেগ-অনুভূমি জড়িত। অনেকে বাপ-দাদার ভূমি দিতে চায় না। তাই আমরা সংশ্লিষ্টদের বলেছি, ভূমি অধিগ্রহণে সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে।

প্রকল্প পরিচালকদের প্রসঙ্গে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, অনেক প্রকল্প পরিচালক প্রকল্প এলাকায় থাকেন না। তাই প্রকল্প বাস্তবায়নে ধীরগতি দেখা যায়। প্রকল্প দীর্ঘ সময় ধরে বাস্তবায়ন হলে ব্যয়ও বেড়ে যায়। কারণ ২০১০ সালে রড ও ভূমির দাম যা ছিল ২০২০ সালে তা থাকে না। আমরা চাইলেও মূল্য ধরে রাখতে পারি না। তাই প্রকল্প পরিচালকদের বলবো, আপনারা প্রকল্প এলাকায় থাকুন, সঠিক সময়ে তা বাস্তবায়ন করুন। এতে সরকারি অর্থের অপচয় কমবে এবং জনগণ সঠিক সময়ে সুফল পাবে। কারণ একটি প্রকল্প অনুমোদন পাওয়া মানে উন্নয়নের পথে আরও এক ধাপ এগিয়ে যাওয়া।

জাতীয় বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর