• রোববার   ১১ এপ্রিল ২০২১ ||

  • চৈত্র ২৮ ১৪২৭

  • || ২৮ শা'বান ১৪৪২

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
বাজেটে স্বাস্থ্য ও কৃষি খাত গুরুত্ব পাবে: অর্থমন্ত্রী দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে ব্যবসায়ীদের সহযোগিতা চান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আ. লীগের নিজস্ব ইতিহাস তৈরির কারখানা নেই: কাদের জেএমবির ভারপ্রাপ্ত আমিরের ১০ দিনের রিমান্ড চায় পুলিশ লকডাউনে কোথাও উন্নয়ন কাজ বন্ধ থাকবে না: পরিকল্পনামন্ত্রী ফেসবুকে ‘উসকানিমূলক’ স্ট্যাটাস: গ্রেফতার হেফাজতের লোকমান আমিনী পুরো বিশ্বেই শান্তির সংস্কৃতি ছড়িয়ে দিতে চায় বাংলাদেশ: মোমেন ১২-১৩ এপ্রিল চলমান লকডাউনের নির্দেশনা জারি থাকবে: সেতুমন্ত্রী টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিলেন প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক করোনায় একদিনে সর্বোচ্চ ৭৭ জনের মৃত্যু অরাজকতা সৃষ্টির চেষ্টা করলে কঠোর ব্যবস্থা : আইনমন্ত্রী দু`দিন আগেই শেষ হচ্ছে বইমেলা আমাদের সামনে নির্ঘাত অশনি সংকেত : কাদের করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৭৪ জনের মৃত্যু সরকারের নিজস্ব অর্থায়নে হচ্ছে দ্বিতীয় আমিনবাজার সেতু: সেতুমন্ত্রী দ্বিতীয় ডোজের টিকা নিলেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী মানুষ বাঁচাতে আরও কঠোর পদক্ষেপ নিতে হবে: প্রধানমন্ত্রী রফিকুল ইসলাম মাদানী আটক জনগণের নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখেই লকডাউন দেয়া হয়েছে: অর্থমন্ত্রী টিকাদানে বিশ্বের শীর্ষ ২০ দেশের মধ্যে বাংলাদেশ: প্রধানমন্ত্রী

নকল প্রসাধনী কারখানায় অভিযানে সাড়ে ১২ লাখ টাকা জরিমানা

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ৬ মার্চ ২০২১  

রাজধানীর চকবাজার ও লালবাগ এলাকায় নকল প্রসাধনীর কারখানায় অভিযান চালিয়েছে র‌্যাব। এ সময় চারটি কারখানার মালিককে ১২ লাখ ৭৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়া ২৫ লাখ টাকা সমমূল্যের নকল ও ভেজাল প্রসাধনী ধ্বংস এবং ১৩ লাখ টাকার প্রসাধনী তৈরির মেশিনারি জব্দ করে র‌্যাব।

এসব কারখানায় বিএসটিআইয়ের অনুমোদনহীন, মেয়াদোত্তীর্ণ কাঁচামাল দিয়ে প্রসাধনী তৈরি করা হচ্ছিল। এছাড়া বিভিন্ন প্রতিষ্ঠিত ব্র্যান্ডের নাম ব্যবহার করে নকল ও ভেজাল প্রসাধনী তৈরি করে বাজারজাত করে আসছিল প্রতিষ্ঠানগুলো।

শুক্রবার (৫ মার্চ) রাতে র‌্যাব-২ এর সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) আবদুল্লাহ আল মামুন এ তথ্য জানিয়েছেন। এর আগে বৃহস্পতিবার (৪ মার্চ) মধ্যরাত পর্যন্ত চলা অভিযানে নেতৃত্ব দেন র‌্যাব সদর দফতরের সিনিয়র নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. সারওয়ার আলম। এসময় বিএসটিআইয়ের টিম ও র‌্যাব-২ টিম সহযোগিতা করেন।

এএসপি আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, রাজধানীর চকবাজার এলাকায় তিনটি ও লালবাগ এলাকায় একটি কারখানায় অভিযান চালানো হয়। অভিযানে দেখা যায়, কারখানাগুলো নামবিহীন, অনুমোদন ছাড়া, মেয়াদোত্তীর্ণ কাঁচামাল দিয়ে প্রসাধনী উৎপাদন, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠিত ব্র্যান্ডের নাম ব্যবহার করে ভেজাল প্রসাধনী সামগ্রী তৈরি ও মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্য সংরক্ষণ করে বাজারজাত করছে।