• রোববার   ১১ এপ্রিল ২০২১ ||

  • চৈত্র ২৮ ১৪২৭

  • || ২৮ শা'বান ১৪৪২

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
১২-১৩ এপ্রিল চলমান লকডাউনের নির্দেশনা জারি থাকবে: সেতুমন্ত্রী টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিলেন প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক করোনায় একদিনে সর্বোচ্চ ৭৭ জনের মৃত্যু অরাজকতা সৃষ্টির চেষ্টা করলে কঠোর ব্যবস্থা : আইনমন্ত্রী দু`দিন আগেই শেষ হচ্ছে বইমেলা আমাদের সামনে নির্ঘাত অশনি সংকেত : কাদের করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৭৪ জনের মৃত্যু সরকারের নিজস্ব অর্থায়নে হচ্ছে দ্বিতীয় আমিনবাজার সেতু: সেতুমন্ত্রী দ্বিতীয় ডোজের টিকা নিলেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী মানুষ বাঁচাতে আরও কঠোর পদক্ষেপ নিতে হবে: প্রধানমন্ত্রী রফিকুল ইসলাম মাদানী আটক জনগণের নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখেই লকডাউন দেয়া হয়েছে: অর্থমন্ত্রী টিকাদানে বিশ্বের শীর্ষ ২০ দেশের মধ্যে বাংলাদেশ: প্রধানমন্ত্রী করোনায় আরো ৬৬ জনের মৃত্যু ৮ এপ্রিল শুরু হচ্ছে টিকার দ্বিতীয় ডোজ: স্বাস্থ্য সচিব রাজধানীতে চলাচল করা গাড়ি গণপরিবহন নয়: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ২৪ ঘণ্টায় ৭০৭৫ জনের করোনা শনাক্ত, মৃত্যু ৫২ শীতলক্ষ্যায় লঞ্চডুবি: আরও ২১ জনের মরদেহ উদ্ধার আরো ৬ কোটি ৮০ লাখ ডোজ টিকা আনা হচ্ছে: অর্থমন্ত্রী একদিনে দেশে রেকর্ড শনাক্ত ৭০৮৭, মৃত্যু ৫৩

দোষারোপেই বিএনপির নেতাদের তৃপ্তি

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ৮ মার্চ ২০২১  

নিজেদের আখের গোছাতে জনবিমুখ হয়ে পড়েছেন বিএনপির কেন্দ্র থেকে শুরু করে তৃণমূল নেতারা। স্বার্থের নেশায় মগ্ন জনবিমুখ বিএনপর নেতারা দলীয় কর্মসূচি হিসেবে দোষারোপকে বেছে নিয়েছেন। নির্বাচনে বারবার পরাজয়ের পর বিরামহীন দোষারোপ করেই তৃপ্তির ঢেকুর তুলছেন তারা।

দলীয় সূত্র জানায়, মূলত প্রভাব, ব্যক্তিস্বার্থ আর ব্যবসায়িক লাভের জন্য বারবার নিজেদের পায়েই কুড়াল মারছে বিএনপির সর্বস্তরের নেতারা। নিজেদের ভুলকে ধামাচাপা দিতে সরকার, নির্বাচন কমিশন, নিজেদের দলের নেতাকর্মীদেরসহ সবাইকে দোষারোপ করেন তারা। তাদের মধ্যে ভুল সংশোধনের কোনো আগ্রহ নেই।

দলের কেন্দ্রীয় কমিটির এক নেতা বলেন, রাজনৈতিক সমন্বয়হীনতায় ভুগছি আমরা। নিজেদের সাংগঠনিক সমন্বয়হীনতা, ২০ দলীয় জোটে ভাঙনে রাজনীতিতে বিএনপির কোণঠাসা অবস্থা রোধ করা যাচ্ছে না। এছাড়া গ্রুপিংয়ের জন্য বিএনপির ব্যর্থতা ও জনবিচ্ছিন্নতা বেড়েই চলেছে। ব্যক্তিস্বার্থের কবলে পড়ে বিএনপি দুর্দশায় দিন পার করছে। দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের স্বৈরাচারী আধিপত্যে অসম্মান বোধ করছেন জ্যেষ্ঠ নেতারা।

অপর এক কেন্দ্রীয় নেতা বলেন, তারেক রহমান বিএনপিকে ব্যবসার আখড়ায় পরিণত করেছেন। তার ইশারা ছাড়া বিভাগ-জেলা বা ইউনিয়ন কমিটি অনুমোদন পায় না। মনোনয়ন বাণিজ্যের জন্য তৃণমূলে যোগ্য প্রার্থীরা ছিটকে পড়ছেন। বিত্তশালী নেতাদের মনোনয়ন দিয়ে পকেট ভারী করছেন তিনি। ফলে ক্ষুব্ধ নেতারা মনোনয়নপ্রাপ্ত প্রার্থীর সঙ্গে কাজ করেন না। আর দিনে দিনে তৃণমূল নেতারা অবজ্ঞার শিকার হয়ে ক্ষোভে কেউ নিষ্ক্রিয় হচ্ছেন কেউবা করছেন পদত্যাগ।

তিনি আরো বলেন, মিডিয়ার সামনে মনগড়া গল্প বলতে হয়, তাই বলা হয়। এসব গল্প উপস্থাপনের মাধ্যমে বোঝাতে চাওয়া হয় দলে অভ্যন্তরীণ কোন্দল, সাংগঠনিক সমন্বয়হীনতা কিংবা দলীয় অনৈক্য নেই।

রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে, দোষারোপ করা বিএনপির অস্থিগত পুরনো সংস্কৃতি, যা চাইলেও দলটির নেতারা পরিহার করতে পারেন না। এ কারণে আজও তাদের ভাগ্যের পরিবর্তন হয়নি। যতদিন দলটির নেতারা দোষারোপ, নালিশের রাজনীতি এবং ভুল সংশোধন করে জনকল্যাণমুখী রাজনীতি না করবেন, ততদিন তাদের গ্রহণযোগ্যতা ফিরবে না।