• বুধবার   ১২ আগস্ট ২০২০ ||

  • শ্রাবণ ২৮ ১৪২৭

  • || ২২ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
করোনায় আরও ৩৯ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২৯০৭ পদ্মা ব্যাংকের অর্থ আত্মসাৎ মামলায় সাহেদ ৭ দিনের রিমান্ডে করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৩৪ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২৪৮৭ দলীয় পরিচয় কোনো অপরাধীকে রক্ষা করতে পারেনি: কাদের লাইসেন্স নবায়ন না করলেই বেসরকারি হাসপাতাল বন্ধ দেশে করোনায় আরও ৩২ মৃত্যু, শনাক্ত ২৬১১ কাল অনলাইনে শুরু একাদশের ভর্তি, যেভাবে আবেদন করবেন সুযোগ আছে, করোনা সংকটেও বিনিয়োগ আনতে হবে: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে জাপানের প্রধানমন্ত্রী আবের ফোন করোনায় আরও ৩৩ মৃত্যু, শনাক্ত ২৬৫৪ কামাল বেঁচে থাকলে সমাজকে অনেক কিছু দিতে পারতো: শেখ হাসিনা সাবেক সেনা কর্মকর্তা সিনহার মাকে প্রধানমন্ত্রীর ফোন করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৫০ মৃত্যু, শনাক্ত ১৯১৮ করোনায় আরও ৪৮ মৃত্যু, শনাক্ত ২৬৯৫ ঈদ-বন্যা ঘিরে করোনা সংক্রমণের হার বাড়তে পারে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী ট্রাফিক পুলিশ বক্সে বিস্ফোরণ, ‘নব্য জেএমবির সদস্য’ আটক করোনায় আরও ৩৫ মৃত্যু, শনাক্ত ৩০০৯ ১২ কোটি টাকা আত্মসাত করে গ্রেফতার যমুনা ব্যাংকের ম্যানেজার থানায় বিস্ফোরণে জঙ্গি সংশ্লিষ্টতা নেই : পুলিশ ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্ত ২৯৬০, মৃত্যু ৩৫
৩০৫

তারেকের হাত ধরেই অন্ধকার জগতে পা রাখেন পাপিয়া!

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

বহুল আলোচিত নরসিংদী জেলার যুবনেত্রী সাধারণ সম্পাদক শামিমা নূর পাপিয়াকে গত শনিবার র‌্যাব বিমানবন্দর থেকে গ্রেপ্তার করে। তাকে আদালতে তোলা হলে তার ১৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করা হয়েছে। আইনপ্রয়োগকারী সংস্থার সূত্রে জানা গেছে যে, গ্রেপ্তারের পর পাপিয়ার মোবাইল ফোনগুলো জব্দ করেছে আইনপ্রয়োগকারী সংস্থা। সেই সূত্র ধরেই নিশ্চিত হওয়া গেছে ২০০১ সালে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের মাধ্যমেই অন্ধকার জগতে পা রেখেছিলেন পাপিয়া।

সূত্র বলছে, তারেক রহমানের ঘনিষ্ঠ বন্ধু গিয়াসউদ্দিন আল মামুনের সাথে ১৯৯৯ সাল থেকেই এক ক্লাবে পরিচয় হয় শামিমা নূর পাপিয়ার। সেখান থেকেই মামুনের হাত ধরে শামিমা নূর পাপিয়ার তারেক রহমানের সাথে ঘনিষ্ঠতা বাড়তে থাকে। হাওয়া ভবনে প্রায়শই তারেকের সাথে রাত্রিযাপন করতেন এই পাপিয়া পিউ।

জানা যায়, মোবাইল ফোনগুলোতে পাপিয়ার অনেক ভিআইপির সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগের তথ্য পেয়েছে আইনপ্রয়োগকারী সংস্থা। বিশেষ করে অতীত জীবনে তারেক রহমান ও গিয়াসউদ্দিন আল মামুনের সাথে সখ্যতার বিষয়টি চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে। পরবর্তীতে আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর তারেক রহমানের মিশন বাস্তবায়ন করার জন্যই এই পাপিয়াকে সুকৌশলে যুব মহিলা লীগে প্রবেশ করায় বিএনপি। মোবাইলে ১১ জন বিএনপির শীর্ষ নেতার সাথে যোগাযোগ হয় এমন মোবাইল নাম্বার পাওয়া গেছে। এই মোবাইল নাম্বারে পাপিয়া গ্রেপ্তার হওয়ার আগের দিন পর্যন্ত বিভিন্ন পর্যায়ে বিদেশে অবস্থানরত বিএনপির নেতাদের সাথে কথা বলেছেন।

এছাড়াও পাপিয়ার মোবাইলে ৩৩ জন বিএনপিপন্থী স্থানীয় প্রভাবশালী ব্যবসায়ীর সাথে যোগাযোগ রাখার একটি তালিকা পাওয়া গেছে। এই ৩৩ জন বিএনপি-জামায়াতের ব্যবসায়ীর সঙ্গে পাপিয়া নিয়মিত যোগাযোগ করতো। সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো বলছে, শনিবার যখন তাকে বিমানবন্দরে আইনপ্রয়োগকারী সংস্থা (র‌্যাব) আটক করে তখনও পাপিয়া নিজেকে বাঁচানোর জন্য তাদেরকে অনুরোধ জানিয়েছিলেন। তাদেরকে এটাও বলেছিলেন, আমি তারেক এর লোক তোরা জানিস?

সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো বলছে, র‌্যাবের অমনমনীয় দৃঢ়তার মুখে শেষ পর্যন্ত পাপিয়া নমনীয় হন এবং তারপর তিনি তার অপরাধগুলো স্বীকার করতে থাকেন। আইনপ্রয়োগকারী সংস্থা বলছে, এই কল লিস্ট মোবাইল অপারেটরদের কাছ থেকে আনা হয়েছে। এই ১৫ দিনের রিমান্ডে যাদের সঙ্গে তার যোগাযোগ, যাদের সঙ্গে নিয়মিত কথা বলতেন, তাদের ব্যাপারে তথ্য বের করবে আইন প্রয়োগকারী সংস্থা।

রাজনীতি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর