• বৃহস্পতিবার   ২২ অক্টোবর ২০২০ ||

  • কার্তিক ৬ ১৪২৭

  • || ০৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
বিপদে নিজেদের একা ভাববেন না: আইনমন্ত্রী করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ২৪, শনাক্ত ১৫৪৫ এনু-রুপনের জামিন আবেদনের রুল খারিজ মাধ্যমিকে বার্ষিক পরীক্ষা বাতিল রায়হান হত্যা: ৫ দিনের রিমান্ডে কনস্টেবল টিটু ১২ বছরের ব্যর্থতার জন্য বিএনপির নেতৃত্বের পদত্যাগ করা উচিত বিদেশে পালালেও এসআই আকবরকে ফিরিয়ে আনা হবে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী পরিপত্র জারি : ৭ মার্চকে ঐতিহাসিক দিবস ঘোষণা করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ২১, শনাক্ত ১৬৩৭ জনগণের ভাষা বুঝে না বলেই বিএনপি ব্যর্থ: কাদের ২৫ টাকা কেজিতে আলু বিক্রি করবে টিসিবি: বাণিজ্যমন্ত্রী পবিত্র ঈদ-ই-মিলাদুন্নবী ৩০ অক্টোবর সরকারের আশ্বাসে ইন্টারনেট-ডিশ সংযোগ ধর্মঘটের সিদ্ধান্ত স্থগিত ইন্টারনেট-ক্যাবল টিভি বন্ধের সিদ্ধান্ত স্থগিত করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ২৩, শনাক্ত ১২০৯ কৃষি গবেষণা বিনিময়ের উপর জোর দিতে হবে: কৃষিমন্ত্রী ৬০ মিশনে দূতাবাস অ্যাপ চালু করা হয়েছে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ১৫ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৬০০ টাঙ্গাইলে গণধর্ষণ মামলায় ৫ জনের মৃত্যুদণ্ড ভূমিহীনদের ২ শতাংশ জমি দেয়া হবে: ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী

ঢাকা-বরিশাল নৌরুটে থাকছে না ‘ঈদ সার্ভিস’

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ২২ জুলাই ২০২০  

ঈদ এলেই সড়ক-নৌ ও রেলপথে শুরু হয় নাড়ির টানে বাড়ি ফেরার যুদ্ধ। বরিশাল তথা দক্ষিণাঞ্চলের লাখো মানুষের যাতায়াতের সহজ ও আরামদায়ক মাধ্যম লঞ্চ। প্রতি বছর ঈদ উপলক্ষে ঢাকা-বরিশাল নৌরুটে বিশেষ সার্ভিস দেয়া হলেও এবার তা থাকছে না। করোনাভাইরাসের কারণে লঞ্চ মালিকদের নেই কোনো প্রস্তুতিও।

যাত্রীবাহী নৌ-পরিবহন মালিক সমিতির কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি সাইদুর রহমান রিন্টু জানান, এবারই প্রথম ঈদে বিশেষ সার্ভিস বা ডাবল ট্রিপ ছাড়াই যাত্রী পরিবহন করবে ঢাকা-বরিশাল রুটের লঞ্চগুলো। সব লঞ্চ ঈদ সার্ভিসে যুক্ত হবে কিনা তাও নিশ্চিত নয়।

তিনি আরো জানান, করোনাভাইরাসের কারণে দুই মাসের বেশি সময় লঞ্চ বন্ধ ছিল। এতে কোটি টাকা লোকসান গুণতে হয়েছে লঞ্চ মালিকদের। এ কারণে এবারের ঈদে বিশেষ কোনো সার্ভিস চালুর উদ্যোগ নেয়া হয়নি।

লঞ্চ মালিকরা জানান, রোজার ঈদে যে ক্ষতি হয়েছে তা কোরবানির ঈদে কিছুটা হলেও কাটিয়ে ওঠার প্রস্তুতি ছিল। কিন্তু ঈদের ১০ দিন আগেও যাত্রীদের উপস্থিতি আশানুরূপ না হওয়ায় নতুন কোনো উদ্যোগ নেয়া সম্ভব হচ্ছে না।

জানা গেছে, কোরবানির ঈদে লোকসান কমাতে নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয়ে লঞ্চ ভাড়া বৃদ্ধির প্রস্তাব দেয়া হয়েছে মালিক সমিতির পক্ষ থেকে। মঙ্গলবার নৌ প্রতিমন্ত্রী মো. খালিদ মাহমুদ চৌধুরীর সঙ্গে লঞ্চ মালিক সমিতির মতবিনিময়ও হয়েছে। কিন্তু সেখানে ভাড়া বৃদ্ধির প্রস্তাব নাকচ করে স্বাস্থ্যবিধি মেনে বর্তমান ভাড়ায় ঈদে যাত্রী পরিবহনের নির্দেশ দেন প্রতিমন্ত্রী।

যাত্রীবাহী নৌপরিবহন মালিক সমিতির কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি সাইদুর রহমান রিন্টু বলেন, বিশেষ সার্ভিস তো পরের কথা, মালিকরা নরমাল সার্ভিস নিয়েই চিন্তিত। করোনার কারণে লঞ্চে যাত্রী নেই বললেই চলে। লোকসানের ভয়ে কয়েকটি কোম্পানি তাদের ৭-৮টি লঞ্চ চলাচল বন্ধ রেখেছে। ঈদের আগে ওইসব লঞ্চ পুনরায় চালু হতে পারে। আমরা এখনো নিশ্চিত নই।

তিনি বলেন, করোনার কারণে অনেকে আগেই গ্রামে চলে গেছে। আমাদের মূল টার্গেট থাকে গার্মেন্টস শ্রমিকরা। কিন্তু করোনার প্রভাবে অনেক শ্রমিক চাকরি হারিয়ে বাড়িতে বসে আছেন। সরকারি কর্মকর্তাদেরও এবার ঈদে কর্মস্থলে থাকার নির্দেশ দিয়েছে সরকার। ঈদ উপলক্ষে টিকেট বিক্রি শুরু হলেও তেমন সাড়া পাওয়া যাচ্ছে না। এ কারণে এবার কোরবানির ঈদে নৌ-রুটে বিশেষ সার্ভিস বা ডাবল ট্রিপ হবে না। তবে যাত্রীর চাপ বেশি হলে বিশেষ সার্ভিস দেয়ার প্রস্তুতি রাখা হবে।