বৃহস্পতিবার   ২২ আগস্ট ২০১৯   ভাদ্র ৬ ১৪২৬   ২০ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন: চীন ও মিয়ানমারের প্রতিনিধি কক্সবাজারে রিফাত হত্যায় পুলিশ প্রতিবেদন কাল শরীরে ট্যাটু আঁকায় ক্যানসারের ঝুঁকি বাকেরগঞ্জে একুশে আগস্ট উপলক্ষে শোক র‍্যালী বাবুগঞ্জে একুশে আগষ্ট স্মরনে র‌্যালী ও আলোচনা সভা ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলাকারীদের ফাঁসির দাবিতে গৌরনদীতে শোকর‌্যালি বাকেরগঞ্জে ৮৯ শতাংশ সরকারি খাস জমির অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ আওয়ামী লীগকে নেতৃত্বশূন্য করতে চেয়েছিল: আ ক ম মোজাম্মেল হক ২০২১ সাল থেকে কারিগরী শিক্ষা বাধ্যতামূলক হচ্ছে পেঁপেঁ পাতার রস খেয়ে ডেঙ্গু জ্বরে সুস্থ্য হয়েছেন সাত জন বানারীপাড়া ২১ আগষ্ট গ্রেনেড হামলায় নিহতদের স্বরনে আলোচনা সভা ২১শে আগষ্ট গ্রেনেড হামলার প্রতিবাদে মেহেন্দিগঞ্জে আলোচনা সভা স্বাস্থ্যশিক্ষা তৃণমূলে নিতে মন্ত্রীকে দুদকের চিঠি ‘গার্লস প্রায়োরিটি’ গ্রুপের এডমিন তাসনুভা কারাগারে আবার মাথা উঁচু করে দাঁড়াবে টেলিফোন শিল্প সংস্থা-মোস্তফা জব্বার গ্রেনেড হামলার দায় খালেদা জিয়া এড়াতে পারেন না: প্রধানমন্ত্রী অর্থনৈতিক বিকাশে প্রধান বাধা দুর্নীতি: দুদক চেয়ারম্যান বাপ্পির ‘ডেঞ্জার জোন’ আসছে দুর্গাপূজায় গ্রেনেড হামলায় নিহত সেন্টুর কবর জিয়ারত ভবনে প্রবেশে বাধা: দণ্ডবিধির আইন প্রয়োগ করবে ডিএনসিসি
৩৪

ডেঙ্গু মোকাবিলায় সব জেলায় আ. লীগের মনিটরিং সেল গঠন

প্রকাশিত: ৯ আগস্ট ২০১৯  

 

দেশের সব জেলায় ডেঙ্গু মোকাবিলায় ও চিকিৎসা মনিটরিং সেল গঠন করেছে ক্ষমতাসীন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ।

রাজধানীসহ সারাদেশের তথ্য সংগ্রহ করার জন্য রাজধানীর তোপখানা রোডে বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন (বিএমএ) ভবনের নিচতলায় ডেঙ্গু প্রতিরোধ ও চিকিৎসা মনিটরিং সেলও খুলেছে দলটি।

শুক্রবার (৯ আগস্ট) বিএমএ সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিনের সই করা এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

পুরো দেশে বিদ্যমান ডেঙ্গু আক্রান্তের চিকিৎসা, পরীক্ষা-নিরীক্ষাসহ যাবতীয় তথ্য দেয়ার জন্য ০১৩১৪৮৩৮৬৩৬ নম্বরে যোগাযোগ করার অনুরোধ জানানো হয়েছে বিজ্ঞপ্তিতে।

আগস্টের ৩ তারিখে দলটির সভাপতির ধানমন্ডিস্থ রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক বৈঠকে ২২ সদস্যের কেন্দ্রীয় মনিটরিং সেল গঠন করা হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

ডেঙ্গু মোকাবিলায় ও চিকিৎসা মনিটরিং সেলের পাঁচ দফা কর্মসূচি গ্রহণ করা হয় সভায়। কর্মসূচিগুলো হলো- ৬৪ জেলা মনিটরিং সেল গঠন, জনসচেতনতা সৃষ্টি, চিকিৎসক, নার্স ও অন্যান্য স্বাস্থ্যকর্মীদের কাজে উৎসাহিত করা, সরকারের সঙ্গে সমন্বয় করে প্রয়োজনীয় লজিস্টিক সাপোর্টের ব্যবস্থা করা এবং ৬৪ জেলায় প্রয়োজনীয় সংখ্যক ডাক্তার, নার্স ও অন্যান্য স্বাস্থ্যকর্মী নিশ্চিত করা।

এই বিভাগের আরো খবর