• সোমবার   ০৬ জুলাই ২০২০ ||

  • আষাঢ় ২২ ১৪২৭

  • || ১৫ জ্বিলকদ ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
করোনায় আরও ৪৪ মৃত্যু, শনাক্ত ৩২০১ ভিসার মেয়াদ বাড়ালো সৌদি আরব: পররাষ্ট্রমন্ত্রী গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত ২৭৩৮, মৃত্যু ৫৫ কাউকেই ভূতুড়ে বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করতে হবে না: বিদ্যুৎ সচিব আজ থেকে অধস্তন আদালতে আত্মসমর্পণ করা যাবে করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ২৯ মৃত্যু, শনাক্ত ৩২৮৮ বেতন-ভাতা পরিশোধে মালিকরা সহমর্মিতার নজির দেখাবেন : কাদের পাটকল শ্রমিকরা দুই ধাপে সব পাওনা পাবে: পাটমন্ত্রী গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত ৪০১৯, মৃত্যু ৩৮ চালের বাজার অস্থিতিশীল করলে কঠোর ব্যবস্থা : খাদ্যমন্ত্রী গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত ৩৭৭৫, মৃত্যু ৪১ যত্রতত্র পশুরহাটের অনুমতি দেওয়া যাবে না- ওবায়দুল কাদের জঙ্গিবাদ দমনে সফলতা ধরে রাখতে কাজ করে যাচ্ছি: র‌্যাব ডিজি ৩৮তম বিসিএসের চূড়ান্ত ফল প্রকাশ করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৬৪ মৃত্যু, শনাক্ত ৩৬৮৩ শিগগিরই আরও ৪ হাজার নার্স নিয়োগ: প্রধানমন্ত্রী করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৪৫ মৃত্যু, শনাক্ত ৪০১৪ অর্ধশত যাত্রী নিয়ে বুড়িগঙ্গায় লঞ্চডুবি, উদ্ধার কাজ চলছে করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৪৩ মৃত্যু, শনাক্ত ৩৮০৯ ফ্লাইট পরিচালনার অনুমোদন পাচ্ছে ৪ বিদেশি এয়ারলাইন্স
৬৬

টেলিমেডিসিন কী? কিভাবে নিবেন এর সেবা?

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ২৫ জুন ২০২০  

টেলিমেডিসিন এক ধরনের চিকিৎসা সেবা। দূর থেকে রোগীরা বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের কাছ থেকে অতিদ্রুত চিকিৎসা সংক্রান্ত পরামর্শ নিতে পারেন এর মাধ্যমে। টেলিফোন, মোবাইল, ভিডিও কনফারেন্স বা অনলাইনের মাধ্যমে দেশি-বিদেশি চিকিৎসকের পরামর্শ গ্রহণ করার এই প্রক্রিয়াটি হলো টেলিমেডিসিন। 

খুব সময়পোযোগী ছিল এই প্রযুক্তিটির ব্যবহার। মহামারী করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে সামাজিক দূরত্ব রক্ষা অপরিহার্য। তাই চিকিৎসকরা এই মহামারী থেকে বাঁচতে চেম্বারে রোগী দেখা বন্ধ করে দিয়েছেন। এ অবস্থায় সময়ের প্রয়োজনে চিকিৎসা সেবায় নতুন ধারার সৃষ্টি হয়েছে, সেটা হলো টেলিমেডিসিন সেবা। এই টেলিমেডিসিন সেবা হলো ভিডিও কলের মাধ্যমে রোগী দেখা এবং রোগীদের ব্যবস্থাপত্র দেয়া। করোনাই মূলত এই পথ দেখিয়েছে।

করোনাভাইরাসের ক্রান্তিকালে দেশে ভার্চুয়াল স্বাস্থ্যসেবা বা টেলিমেডিসিন ব্যবহারের চাহিদা তীব্রভাবে বেড়েছে। সরকারিভাবে চালু করা টেলিমেডিসিন সেবায় প্রথম দিকে ৫ হাজার কল আসলেও প্রতিদিনই তা বাড়ে। এখন তা লাখ ছাড়িয়েছে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, করোনা পরিস্থিতিতে চিকিৎসকরাও সংক্রমণ হতে পারে বা সম্ভাবনা আছে এমন জায়গায় থাকতে চায় না। আর স্বাস্থ্যঝুঁকি এড়াতে টেলিমেডিসিন সেবা পদ্ধতি চিকিৎসক ও রোগী উভয়ের জন্য একটি সহজ সমাধান। এছাড়া করোনা ছড়িয়ে পড়া রোধে এটা একটি সফল মাধ্যম। একই সঙ্গে এটা শুধু বর্তমানই নয়; ভবিষ্যতেও এর চাহিদা আরও বৃদ্ধি পাবে।

কী ভাবে নিবেন টেলিমেডিসিনের সেবা?

চিকিৎসা ক্ষেত্রে টেলিমেডিসিনের প্রচলন মোটামুটি নতুন এবং আধুনিক একটি ধারণা। এখানে ডাক্তাররা টেলিভিশন স্ক্রিন এবং ক্যামেরার সামনে বসে দূর-দুরান্তের রোগীদের সেবা দিয়ে থাকেন। করোনা পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্য ঝুঁকি এড়াতে এই পদ্ধতি চিকিৎসক ও রোগী উভয়ের জন্য সহজ সমাধান।

প্রযুক্তি ব্যবহার করে অসুস্থ রোগীরা এখন গ্রামে বসেই রাজধানীর বড় বড় ডাক্তারদের কাছ থেকে পরামর্শ নিতে পারবেন। প্রয়োজনে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে চিকিৎসকের সঙ্গে রোগী কথা বলতে পারবেন, সমস্যাগুলো দেখাতেও পারবেন। পুরনো রোগীরা তাদের প্রেসক্রিপশন হোয়াটস অ্যাপ, ভাইবারের পাঠিয়ে দিয়ে বিশেষজ্ঞের নতুন পরামর্শ নিতে পারবেন। 

শুধু প্রযুক্তি ব্যবহার করে এই সুবিধাগুলো গ্রহণ করা যাচ্ছে। এর ফলে কোন রোগীকে আর হাজার হাজার টাকা খরচ করে গ্রাম থেকে ঢাকায় আসতে হচ্ছে না। আবার করোনাভাইরাসের ঝুঁকিও এড়ানো যাচ্ছে।

এটি ভিডিও চ্যাটের মাধ্যমে করা হয়, তাই রোগীকে ক্লিনিকে সরাসরি ডাক্তারের সঙ্গে দেখা করতে হবে না। ফলে তারা অন্য লোকের সংস্পর্শে যাওয়ার ঝুঁকি এড়াতে পারেন। ভার্চুয়াল এই পদ্ধতি বর্তমান করোনাভাইরাসের ছড়িয়ে পড়া রোধে অনেকটা সফল বলে মনে করছেন ডাক্তাররা।

জানা গেছে, রাজধানীসহ সারাদেশের অধিকাংশ হাসপাতাল এই টেলিমেডিসিন সেবা চালু করেছে। এক্ষেত্রে রোগীরা তাদের আগের রিপোর্ট ই-মেইলে বা হোয়াটসঅ্যাপে চিকিৎসকের কাছে পাঠিয়ে টেলিফোনে বা ভিডিও কনফারেন্সে প্রয়োজনীয় করণীয় পাচ্ছেন। আবার চিকিৎসকরাও টেলিকনফারেন্সের অ্যাডভাইস ওই রোগীর ই-মেইলে বা হোয়াটসঅ্যাপে পাঠিয়ে দিচ্ছেন। 

টেলিমেডিসিন সেবা যারা দিচ্ছে-
স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয় করোনার এ সময়ে সাধারণ মানুষকে ঘরে বসে চিকিৎসা সেবা পাওয়ার সুযোগ করে দিয়েছে। চিকিৎসা সেবার জন্য হটলাইনগুলোর মাধ্যমে সাধারণ চিকিৎসকের পাশাপাশি বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের সঙ্গেও কথা বলার সুযোগ থাকবে। যারা কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি আছেন অথবা আইসোলেশনে থেকে হাসপাতালে ভর্তির চেষ্টা করছেন তারা প্রত্যেকেই এই কল সেন্টারে ফোন করে চিকিৎসা সেবাসহ প্রয়োজনীয় নানা পরামর্শ নিতে পারবেন।

দিনরাত ২৪ ঘণ্টা স্বাস্থ্যসেবা পাওয়ার জন্য চারটি হটলাইন নম্বর চালু করা হয়েছে। নম্বরগুলো হচ্ছে: ০১৩১৩-৭৯১১৩০, ০১৩১৩-৭৯১১৩৮, ০১৩১৩-৭৯১১৩৯, ০১৩১৩-৭৯১১৪০

Shohoz Health : শতাধিক বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের মাধ্যমে টেলিমেডিসিন সেবা শুরু করেছে ‘সহজ হেলথ’ (Shohoz Health) নামের একটি প্রতিষ্ঠান। শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল, ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল, বাংলাদেশ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতাল, সিএমএইচ, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল  বিশ্ববিদ্যালয়, জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউট ও হাসপাতাল, বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হাসপাতাল, সিটি ডেন্টাল কলেজ, পপুলার মেডিক্যাল কলেজসহ দেশের বিভিন্ন স্বনামধন্য হাসপাতালের চিকিৎসকেরা এই সেবার আওতায় সেবা দেবেন। 

এই ডিজিটাল স্বাস্থ্যসেবার মাধ্যমে ব্যবহারকারীরা ভিডিওর মাধ্যমে নিজের বাসা থেকে বিশেষজ্ঞ ডাক্তারদের পরামর্শ নিতে পারবেন। পাশাপাশি প্রেসক্রাইব করা ওষুধ ডেলিভারি নেওয়া সম্ভব লাজ ফার্মা, তামান্না ফার্মেসি, প্রেসক্রিপশন পয়েন্ট, আল মদিনা ফার্মেসিসহ বিভিন্ন নির্ভরযোগ্য ফার্মেসি থেকে।  

‘Hello Doctor Asia’: অনলাইনে ফ্রি স্বাস্থ্য পরামর্শ সেবার একটি পাইলটিং শুরু করেছে আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থা সেভ দ্য চিলড্রেন ইন বাংলাদেশ। অনলাইনে চিকিৎসা সেবা পেতে আগ্রহীরা ‘Hello Doctor Asia’ মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন https://bit.ly/2X7NS1O লিঙ্ক থেকে ডাউনলোড করে বাড়িতে বসে ভিডিও কনসালটেশনের মাধ্যমে চিকিৎসা পরামর্শ নিতে পারবেন।

জেসা : বর্তমানে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক হিসেবে প্র্যাকটিস করছেন এমন ১৫০ জন চিকিৎসককে নিয়ে গঠিত হয়েছে ‘জেসা’ নামের একটি মেডিকেল সংগঠন। হটলাইনে টেলিমেডিসিন ফরম্যাটে চিকিৎসা সেবা দেবেন তারা। চিকিৎসকদের বিস্তারিত তথ্য পাওয়া যাবে এই  লিংকে-https://www.facebook.com/sheikh.foyez/posts/10221552988472593

স্বাস্থ্য বাতায়ন : স্বাস্থ্য বাতায়ন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় পরিচালিত একটি সেবা। এই স্বাস্থ্য বাতায়নের হেল্পলাইন ১৬২৬৩ এ কল করে আপনি স্বাস্থ্য সংক্রান্ত যে কোন বিষয়ে সরাসরি ডাক্তারের পরামর্শ নিতে পারেন। এই হেল্পলাইন দিনরাত ২৪ ঘন্টা আপনার সেবায় নিয়োজিত। এছাড়া স্বাস্থ্য বাতায়ন থেকে আপনি সরকারী হাসপাতাল, ডাক্তারের তথ্য কিংবা স্বাস্থ্যসেবা বিষয়ক অন্যান্য যেকোন তথ্য এবং ফোন নাম্বার পেতে পারেন। 

১৬২৬৩ নম্বরে ডায়াল করার পর আপনার স্বাস্থ্য বিষয়ে পরামর্শের জন্য সরাসরি ডাক্তারের সাথে কথা বলতে 0 (শূন্য) চাপুন। আপনি যদি আপনার নিকটস্থ সরকারি হাসপাতাল, ডাক্তারের তথ্য কিংবা স্বাস্থ্যসেবা বিষয়ে কোন কিছু জানতে চান, তাহলে ১ চাপুন। আপনি যদি সরকারি-বেসরকারি হাসপাতাল, ক্লিনিক কিংবা অন্যান্য সরকারি স্বাস্থ্যসেবা সম্পর্কে কোন অভিযোগ জানাতে চান, তাহলে ২ চাপুন। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য বাতায়ন সেবাটি সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে ৩ চাপুন। স্বাস্থ্য বাতায়ন সেবা সম্পর্কিত কোন পরামর্শ অথবা অভিযোগ জানাতে 8 চাপুন।

আপনি সরাসরি ওয়েব থেকে ডাক্তারের পরামর্শও পেতে পারেন। বিস্তারিত জানতে এই লিংকটি ক্লিক করুন: https://www.facebook.com/ShasthoBatayon/ 

স্বাস্থ্য বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর