রোববার   ১৯ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ৬ ১৪২৬   ২৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
মানবতার কল্যাণ কামনায় শেষ হলো বিশ্ব ইজতেমা আখেরি মোনাজাতে অংশ নিতে লাখো মুসল্লি তুরাগতীরে পুরো পরীক্ষাই পেছাবে, নতুন সূচি আজ : শিক্ষামন্ত্রী ফাইভজির স্বপ্ন বাস্তবে পরিণত হবে শিগগির: অর্থমন্ত্রী ঢাকা সিটি ভোট পিছিয়ে ১ ফেব্রুয়ারি করার সিদ্ধান্ত ইসির এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা পিছিয়ে ৩ ফেব্রুয়ারি সংসদের দক্ষিণ প্লাজায় সোমবার মান্নানের জানাজা এমপি আব্দুল মান্নানের মৃত্যুতে গভীর শোক রাষ্ট্রপতির পদ্মা সেতুর ২২তম স্প্যান বসছে এ মাসেই আব্দুল মান্নানের মৃত্যুতে ওবায়দুল কাদেরের শোক এমপি মান্নানের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক বয়ানে চলছে দ্বিতীয় দিনের ইজতেমা,কাল আখেরী মোনাজাত বিপিএলে প্রথম শিরোপার স্বাদ পেলো রাজশাহী আদালতে মজনুর স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সাউন্ড সিস্টেমে জাতীয় সংগীত পরিবেশন করা যাবে ১ ফেব্রুয়ারি থেকে এসএসসি শুরু ১৫তম শিক্ষক নিবন্ধনে উত্তীর্ণদের সনদ ১৯ জানুয়ারি প্রথম আলোর সম্পাদকসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা ২৫ জানুয়ারি থেকে এক মাস কোচিং সেন্টার বন্ধ আমরা ক্রসফায়ারকে সাপোর্ট করতে পারি না : ওবায়দুল কাদের
১৮

জিহাদি বই বিলির সময় দুই নারীসহ আটক ৫

প্রকাশিত: ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯  

হবিগঞ্জের বাহুবলে জিহাদি বই বিলি করার সময় বিতর্কিত সংগঠন হেযবুত তাওহীদের দুই নারীসহ পাঁচ সদস্যকে আটক করেছে পুলিশ। শনিবার বিকেলে উপজেলার মিরপুর বাজার থেকে তাদেরকে আটক করা হয়। 

আটকরা হলেন, সদর উপজেলার বগলাখাল গ্রামের ছমেদ আলীর মেয়ে জহুরা ফাইজা, একই উপজেলার রাজিউড়া গ্রামের নুরুজ মিয়ার স্ত্রী মনোয়ারা বেগম, আদ্যপাশা গ্রামের আরজু মিয়ার ছেলে জাহাঙ্গীর আলম, মো. ফজর আলীর ছেলে আনোয়ার আলী ও লস্করপুর গ্রামের কামাল উদ্দিনের ছেলে শাকিল মিয়া। 

বাহুবল মডেল থানার ওসি মো. কামরুজ্জামান জানান, কিছুদিন ধরে হেযবুত তাওহীদ নামে একটি বিতর্কিত সংগঠনের সদস্যদের অপতৎপরতা উপজেলায় বৃদ্ধি পেয়েছে। ওই সময় মিরপুর বাজারে হেযবুত তাওহীদের কিছু সদস্য তিনটি দলে বিভক্ত হয়ে কৌশলে সাধারণ লোকদের মাঝে বিভিন্ন জিহাদি বই বিলি করছিল। আর তিনজন পুরুষ সদস্য আড়ালে থেকে এই তিনটি দলের নেতৃত্ব দিচ্ছিলেন। 

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে দুই নারীসহ পাঁচজনকে আটক করে এবং তাদের সঙ্গে থাকা কিছু জিহাদি বই উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। 

ওসি আরো জানান, আটকদের থানায় জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। পরবর্তীতে প্রমাণ সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এই বিভাগের আরো খবর