• রোববার   ০৭ মার্চ ২০২১ ||

  • ফাল্গুন ২২ ১৪২৭

  • || ২৩ রজব ১৪৪২

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
৭ মার্চের ভাষণ বাঙালির মুক্তির ডাক: রাষ্ট্রপতি মুশতাককে নিয়ে বিএনপি মায়াকান্না করছে : তথ্যমন্ত্রী করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ১০, শনাক্ত ৫৪০ স্বল্প আয় থেকে উন্নয়নশীল দেশে পদার্পণ বড় সুখবর: ড. মোমেন বিএনপির ৭ মার্চের কর্মসূচি ভণ্ডামি: কাদের বাংলাদেশের ঝুড়ি এখন খাদ্যে পরিপূর্ণ : কৃষিমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে থাকলে বাংলাদেশের ভবিষ্যত পাল্টে যাবে:আইনমন্ত্রী করোনার টিকা নিলেন প্রধানমন্ত্রী দেশের উন্নয়নে গবেষণা ও বিজ্ঞানের বিবর্তন অপরিহার্য: প্রধানমন্ত্রী সীমান্তে হত্যাকাণ্ড দুঃখজনক: জয়শঙ্কর ২৪ ঘণ্টায় আরও সাতজনের মৃত্যু, শনাক্ত ৬১৯ বিএনপি এখন মায়াকান্না করছে: কাদের প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম মারা গেছেন ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ৫ মৃত্যু, শনাক্ত ৬১৪ সুন্দরবনে বিষ দিয়ে মাছ ধরা বন্ধ করতে হবে: বনমন্ত্রী ৪ কোটি ডোজ করোনার টিকা সংগ্রহ করা হবে: জাহিদ মালেক ১০ বছরে জিডিপি প্রবৃদ্ধিতে শীর্ষে বাংলাদেশ: অর্থমন্ত্রী মানুষকে খাদ্য সরবরাহ-সময়মতো ভ্যাকসিন দিতে হবে: প্রধানমন্ত্রী করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৭, শনাক্ত ৫১৫ মুক্তিযুদ্ধকে অসম্মান করেছে বিএনপি: সেতুমন্ত্রী

জামায়াতকে নিয়ে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের পরিকল্পনা বিএনপির

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১  

বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের বীর উত্তম খেতাব বাতিলকে কেন্দ্র করে জামায়াতকে সাথে নিয়ে সরকার হটানোর আহ্বান জানিয়েছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন।

সাম্প্রতিক সময়ে বিএনপির যে আন্দোলনের হুংকার এবং সরকারবিরোধী বড় ধরনের যে আন্দোলন গড়ে তোলার চিন্তা ভাবনা এটি পুরোটাই জামায়াতের মস্তিষ্কের প্রসিত হিসেবে মনে করেন রাজনৈতিক পর্যবেক্ষক মহল। বিএনপিকে সামনে ঠেলে দিয়ে আসল ফাঁদ পাচ্ছে তারা। এবং সাম্প্রতিক সময়ে যা কিছু ঘটেছে সবকিছুতেই জামায়াত সম্পৃক্ত রয়েছে বলে মনে করেন তারা।

জামায়াত সরকারকে আল জাজিরা ইস্যু ও বিএনপির ইস্যুতে ব্যাস্ত রেখে নিজেদেরকে সাংগঠনিক শক্তিশালী করার চেষ্টা করে সরকারের বিরুদ্ধে একটি ভয়ংকর পরিকল্পনা আঁকছে বলে একাধিক সূত্র নিশ্চিত করেছে।

এদিকে মোশাররফ হোসেন জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে দলের প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের ‘বীর উত্তম’ খেতাব বাতিলের প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশে বলেন,‘‘ জিয়াউর রহমানই এদেশের মুক্তিযুদ্ধের সূচনা করেছেন। কার খেতাব আপনারা বাতিল করতে চান। এ জিয়াই এদেশের মুক্তিযুদ্ধের প্রথম সেক্টর কমান্ডার, উনি মুক্তিযুদ্ধে প্রথম ফোর্স ‘জেড’ ফোর্সের কমান্ডার। তার অর্জিত খেতাব বাতিলের অধিকার আপনাদের নাই, এ খেতাব বাতিলের অধিকার কারো নাই।”

খন্দকার মোশাররফ বলেন, “যারা চেষ্টা করছেন খেতাব বাতিল করার জন্য, তাদের পায়ের নিচে মাটি নাই। শেখ হাসিনার হাত থেকে যখন দেশকে মুক্ত করার জন্য  জনগণ রুখে দাঁড়িয়েছে, তখনই এ ষড়যন্ত্র। জামুকার (জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিল) কোনো এখতিয়ার নেই জিয়াউর রহমানের খেতাব বাতিলের।”

স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, “দেশটা ভাষণে স্বাধীন হয় নাই, দেশটা স্বাধীন হয়েছে যুদ্ধে। সেই একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধে, সেই যুদ্ধের অপর নাম জিয়াউর রহমান। যুদ্ধ মানে জিয়া, গণতন্ত্র মানে জিয়া।”

মহানগর বিএনপি দক্ষিণের সভাপতি যুগ্ম মহাসচিব হাবিব উন নবী খান সোহেলের সভাপতিত্বে সমাবেশে বিএনপির এজেডএম জাহিদ হোসেন, আমান উল্লাহ আমান, আবদুস সালাম, হাবিবুর রহমান হাবিব, রুহুল কবির রিজভী, ফজলুল হক মিলন, শহিদউদ্দিন চৌধুরী এ্যানি, মীর সরফত আলী সপু, তাবিথ আউয়াল, ইশরাক হোসেন, মহানগর বিএনপির মুন্সি বজলুল বাসিত আনজু, যুবদলের সাইফুল ইসলাম নিরব, স্বেচ্ছাসেবক দলের আবদুল কাদির ভুঁইয়া জুয়েল, মহিলা দলের সুলতানা আহমেদসহ অনেকেই বক্তব্য রাখেন।