• শনিবার   ০৬ জুন ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ২৩ ১৪২৭

  • || ১৪ শাওয়াল ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
হাসপাতাল থেকে রোগী ফেরত দেওয়া মানবতাবিরোধী কাজ: তথ্যমন্ত্রী করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৩৫ মৃত্যু, শনাক্ত ২৬৩৫ ৩ হাজার মেডিক্যাল টেকনোলজিস্ট নিয়োগে অনুমোদন দিলেন প্রধানমন্ত্রী মানুষকে সুরক্ষিত করতে প্রাণপণে চেষ্টা করছি: প্রধানমন্ত্রী করোনায় মৃত্যুর মিছিলে আরও ৩৫ জন, নতুন শনাক্ত ২৪২৩ হলিক্রস-নটরডেমসহ চার কলেজে ভর্তি বন্ধ গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ৩৭ মৃত্যু, শনাক্ত আরও ২৬৯৫ আজ থেকে চলবে আরও ৯ জোড়া ট্রেন হাসপাতাল থেকে রোগী ফেরানো শাস্তিযোগ্য অপরাধ: তথ্যমন্ত্রী যেকোনো প্রতিবন্ধকতা মোকাবিলা করে এগিয়ে যেতে পারব: প্রধানমন্ত্রী সময় যত কঠিনই হোক দুর্নীতি ঘটলেই আইনি ব্যবস্থা: দুদক চেয়ারম্যান জেলা হাসপাতালগুলোতে আইসিইউ ইউনিট স্থাপনের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর করোনা বিশ্ব বদলে দিলেও বিএনপিকে বদলাতে পারেনি: কাদের করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৩৭ মৃত্যু, শনাক্ত ২৯১১ সীমিত আকারে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার নির্দেশনা খাদ্য উৎপাদন আরও বাড়াতে সব ধরনের প্রচেষ্টা চলছে: কৃষিমন্ত্রী সারা দেশকে লাল, সবুজ ও হলুদ জোনে ভাগ করা হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ২৩৮১ জনের করোনা শনাক্ত পুরোপুরি স্বাস্থ্যবিধি মেনে ট্রেন চলছে: রেলমন্ত্রী দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় ২৫৪৫ জনের করোনা শনাক্ত, মৃত্যু ৪০ জন
৮৭

জামাতে নামাজের পর ইমাম মুসল্লিদের দিকে ফিরে বসার বিধান

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

 


প্রশ্ন: সাধারণত আসর ও ফজরের নামাজে সালাম ফেরানোর পর ইমাম সাহেব মুসল্লিদের দিকে মুখ করে বসতে দেখা যায় আমাদের মসজিদগুলোতে। আমার এক পরিচিত ভাই ধর্মীয় বিষয়ে ইদানিং বেশ পড়াশোনা করছে। সে আমাকে জানিয়েছে, মসজিদগুলোতে ফজর ও আসরের পর ইমাম সাহেবরা মুসল্লিদের দিকে মুখ করে বসার নিয়মটি সুন্নতের পরিপন্থি।

তার বক্তব্য মতে, মুসল্লিদের বরাবর না বসে মেহরাবের ডান দিকে বা বাম দিকে সামান্য বাঁকা হয়ে বসা উচিত। তার কথা আমি আমাকে ভাবিয়ে তুলেছে। এক্ষেত্রে শরিয়তস্বীকৃত পদ্ধতি কী জানাটা আমার জন্য খুব জরুরি।

উত্তর: আপনার পরিচিত ভাইয়ের কথা সঠিক নয়; বরং ফজর ও আসরের নামাজের পর মুসল্লিদের দিকে মুখ করে বসা ইমাম সাহেবের জন্য সুন্নত। এটি সহিহ হাদিসের মাধ্যমে প্রমাণিত।

সাহাবি জায়েদ ইবনে খালেদ জুহানি (রা.) বলেন, হুদাইবিয়ায় আমরা রাসুলুল্লাহ (সা.)-এর পেছনে ফজরের নামাজ আদায় করি। সে রাতে বৃষ্টি হয়েছিল। নামাজ শেষ হওয়ার পর তিনি সমবেত সবার দিকে ফিরলেন এবং জিজ্ঞেস করলেন, ‘তোমরা কি জানো তোমাদের রব কী বলেছেন?...’ (বুখারি, হাদিস: ৮৪৬)

ছামুরা ইবনে জুনদুব (রা.) থেকে বর্ণনা করেন, ‘নবী (সা.) যখন ফজরের নামায শেষ করতেন, তখন  সবার দিকে মুখ করে বসতেন। এরপর বলতেন, ‘তোমাদের কেউ কি গত রাতে কোনো স্বপ্ন দেখেছে?’ (মুসলিম, হাদিস: ২২৭৫)

সুতরাং মসজিদগুলোতে ইমামগণ সাধারণত যেভাবে মুসল্লিদের দিকে ফিরে বসেন, সেটা হাদিস ও সুন্নতসম্মত। আর ডানে বা বামে সামান্য বাঁকা হয়ে বসার প্রসঙ্গ তখন, যখন ইমামের সোজাসুজি কোনো মাসবুক ব্যক্তি নামাজ আদায় করতে থাকে এবং ইমাম ও ওই নামাযরত ব্যক্তির মাঝে কোনো আড়াল না থাকে। কেননা নামাজির চেহারা তখন ইমামের চেহারার বরাবর হয়ে যায়। আর এভাবে নামাজির মুখোমুখি হয়ে বসা অনুচিত।

আর যদি এমন হয় যে, ইমামের সোজাসুজি কোনো কাতারে কোনো মাসবুক নামায আদায় করছে ঠিক, কিন্তু তার ও ইমামের মাঝখানে অন্য মুসল্লীদের আড়াল রয়েছে, তাহলে সেক্ষেত্রে মুসল্লীর দিকে ইমামের ফিরে বসা দূষণীয় নয়। অতএব, এক্ষেত্রে ইমাম সাহেবেরও মুসল্লীদের দিকে ফিরে বসতে অসুবিধা নেই।

প্রসঙ্গত, কিছু হাদিসে রাসুল (সা.) নামাজের সালাম ফেরানোর পর বামে বা ডানে ফেরার কথা রয়েছে। তবে এর উদ্দেশ্য হলো, জায়গা ছেড়ে উঠে যাওয়া। মুসল্লিদের দিকে ফিরে বসা নয়। আল্লামা আনওয়ার শাহ কাশ্মিরি (রহ.) ফয়জুল বারিতে বিষয়টি এভাবেই উল্লেখ করেছেন। প্রশ্নে যে ব্যক্তির কথা বলা হয়েছে, তিনি হয়ত ওই হাদিস থেকে ভুল বুঝেছেন; এমনটা হতে পারে।

তথ্যসূত্র: সুনানে আবু দাউদ, হাদিস: ১০৫৩; শরহু মুসলিম, ইমাম নববি ৫/২২০; উমদাতুল কারি: ৬/১৪৩; ফয়জুল বারি: ২/৩১৬; মুআত্তা মুহাম্মাদ, পৃষ্ঠা: ১৫৪; মুসান্নাফে ইবনে আবি শাইবা, হাদিস: ৩১২৮; কিতাবুল উম্ম: ১/১৫১; খুলাছাতুল ফাতাওয়া ১/১৫৬; বাদায়েউস সানায়ে: ১/৩৯৪; ফাতহুল কাদির: ১/৪২৬; হালবাতুল মুজাল্লি: ২/২২২; আদদুররুল মুখতার: ১/৫৩১-৫৩২

ধর্ম বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর