বৃহস্পতিবার   ১৪ নভেম্বর ২০১৯   কার্তিক ৩০ ১৪২৬   ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
কলকাতা টেস্ট দেখতে আমন্ত্রণ জানিয়ে শেখ হাসিনাকে মোদীর চিঠি কৃষি জমি রক্ষায় কাজ করছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী চার বছরের মধ্যে দারিদ্র্র্যের হার কমবে : প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশকে ঋণ দিতে দৌড়ঝাঁপ করছে বিদেশিরা : প্রতিমন্ত্রী আজ ঝালকাঠির দুই বিচারক হত্যা দিবস পিকেএসএফ উন্নয়ন মেলার উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী আয়কর মেলা: ১১৩ কোটি থেকে লক্ষ্যমাত্রা তিন হাজার কোটি টাকা রোহিঙ্গা নিপীড়নে এবার সুচি’র বিরুদ্ধে আর্জেন্টিনায় মামলা টেস্ট বিশ্বকাপ অভিষেকে টস জিতে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ আয়কর মেলা শুরু আজ রোহিঙ্গা সমস্যার পেছনে জিয়াউর রহমানের হাত ছিল: প্রধানমন্ত্রী খেলাপি ঋণ অবশ্যই আদায় করা হবে: অর্থমন্ত্রী ধেয়ে আসছে ‘বুলবুলে’র চেয়েও ভয়ানক ঘূর্ণিঝড় ‘নাকরি’ বরিশালের বর্ধিত এলাকার কাঁচাসড়ক অচিরেই পাকা করার উদ্যোগ দেশের কল্যাণে প্রয়োজনে বাবার মতো জীবন দেবো: শেখ হাসিনা বিমানে উড়ে বাংলাদেশ এল ২২৫টি গরু! বুলবুলে ক্ষতিগ্রস্থ ২৭ পরিবারের মাঝে ঢেউটিন ও অর্থ সহায়তা দেশে রফতানি বাড়াতে দরকার পরিবহন খাতে উন্নয়ন: বিশ্বব্যাংক মা হারানো সেই শিশুর দায়িত্ব নিলেন উপমন্ত্রী শামীম মালয়েশিয়ায় বীমার আওতায় দুই লাখ বাংলাদেশি কর্মী
১৯

চেন্নাইতে হচ্ছে বাংলাদেশের ডেপুটি হাইকমিশনারের কার্যালয়

প্রকাশিত: ১৭ অক্টোবর ২০১৯  

বাংলাদেশ থেকে অনেকেই ভারতে চিকিৎসার জন্য যান। সবচেয়ে বেশি যান চেন্নাইতে। এজন্য সেখানে বাংলাদেশের ডেপুটি হাইকমিশনারের একটি কার্যালয় চালু করা হবে। ইতোমধ্যে এটি স্থাপনের প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতের হাইকমিশনার রীভা গাঙ্গুলি দাশ। 

বৃহস্পতিবার (১৭ অক্টোবর) রাজধানীর জাতীয় অর্থোপেডিক হাসপাতাল ও পুনর্বাসন প্রতিষ্ঠানে (নিটোর) ভারতীয় হাইকমিশন আয়োজিত পাঁচশ’টি নকল পা (লিম্ব) প্রদান অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। মহাত্মা গান্ধীর ১৫০তম জন্মদিন উপলক্ষে জয়পুর ফুট আর্টিফিশিয়াল লিম্ব ফিটমেন্ট ক্যাম্পের মাধ্যমে পা হারানো ব্যক্তিদের বিনামূল্যে এসব নকল পা দেওয়া হচ্ছে। 

রীভা গাঙ্গুলি বলেন, সম্প্রতি বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভারত সফল সফর শেষ করেছেন। বাংলাদেশ যে উন্নয়ন করেছে, তা দেখে ভারতসহ বিশ্বের অনেক দেশ এখানে বিনিয়োগ করতে আগ্রহ প্রকাশ করছে। বাংলাদেশের সঙ্গে ভারতের সম্পর্ক দিন দিন ভালো হচ্ছে। যার প্রমাণ হিসেবে দেখা যায়, গত বছর আমরা ১৪ দশমিক ৮ লাখ বাংলাদেশিদের ভিসা দিয়েছি। এবছর তা আরও বাড়ছে। ভারত গত বছর বাংলাদেশের সঙ্গে ১০ বিলিয়ন ডলারের ব্যবসা করেছে। 

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে বাংলাদেশের জন্মলগ্ন থেকেই কাজ করছে ভারত। বর্তমানে বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার সঙ্গেও সেই ধারাতেই সম্পর্ক রয়েছে। বাংলাদেশের সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রাখতে ভারত বেশি গুরুত্ব দেয়। কারণ, বাংলাদেশের সঙ্গে আমাদের সাংস্কৃতিক, অর্থনৈতিকসহ সব ধরনের লেনদেন হয়ে থাকে। 

বিশ্বের অনেক দেশে ‘মানবতার উদ্দেশ্যে ভারত’ স্লোগানকে সামনে রেখে বিভিন্ন সহযোগিতামূলক কাজ করা হয় উল্লেখ করে ভারতীয় হাইকমিশনার বলেন, কৃত্রিম পা অনেকের জীবন বদলে দিয়েছে। এই পা দিয়ে ভারতে একজন ১৩বার ম্যারাথনে অংশগ্রহণ করেছেন। আর এই পা হারানোর ঘটনা সড়ক দুর্ঘটনার জন্যই সবচেয়ে বেশি হয়। তাই, দুর্ঘটনা প্রতিরোধে ভারতে যেভাবে সর্বাধিক গুরুত্ব দেওয়া হয়, সেভাবেই বাংলাদেশে কিছু একটা করার চিন্তাভাবনা করছি আমরা। বাংলাদেশ সরকারকেও এ কাজে অগ্রসর হওয়ার অনুরোধ জানাচ্ছি। 

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব মো. আসাদুল ইসলাম বলেন, আমরা আমাদের স্বাস্থ্যসেবার মূল প্রোগ্রামে এই কাজ যুক্ত করবো। কারণ, এর প্রয়োজনীয়তা ব্যাপক। স্বাস্থ্য খাতে ভারতের সঙ্গে আমরা দীর্ঘদিন ধরে কাজ করছি। তবে, এ ধরনের কাজ আমরা নিজেরাও করতে পারি। শুধু উদ্যোগ দরকার। 

নিটোরের পরিচালক অধ্যাপক ডা. আব্দুল গণি মোল্লার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন ভারতীয় হাইকমিশনের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের পরিচালক সতীশ মেহতাসহ হাসপাতালের বিভিন্ন স্তরের কর্মকর্তা, কর্মচারী ও ভারতীয় হাইকমিশনের অতিথিরা। 

এই বিভাগের আরো খবর