বৃহস্পতিবার   ১৭ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ১ ১৪২৬   ১৭ সফর ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
রাজধানীতে `ফইন্নী গ্রুপের` ৬ সদস্য আটক স্পিকারের সঙ্গে সার্বিয়ার উপ-প্রধানমন্ত্রীর সৌজন্য সাক্ষাৎ ক্লাসিকোর ভেন্যু পাল্টানোর অনুরোধ লা লিগার উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের ১৮ কাউন্সিলর নজরদারিতে যেমন ছিল নবিজির জীবনের শেষ মুহূর্তটি দলের নাম ভাঙিয়ে অন্যায় করতে দেবেন না মেয়র সাদিক কমছে রাতের তাপমাত্রা, প্রকৃতিতে শীতের আগমনী বার্তা কিশোরকে পিটিয়ে হত্যা এসআই আকরামসহ ১১ জন জেলহাজতে মানবতাবাদী নাট্যকার আর্থার মিলারের জন্ম মুখের কথায় চলে সাইদের ‘আশ্চর্য মোটরসাইকেল’ বরিশালে জাল-ইলিশসহ ২২জেলে আটক নীলনদের তীরে মিললো ‘গুরুত্বপূর্ণ’ প্রাচীন কফিন পর্দা নামলো ডিজিটাল ডিভাইস অ্যান্ড এক্সপোর কুষ্টিয়ায় শুরু হলো তিনদিন ব্যাপী লালনমেলা বাংলাদেশই বিশ্বসেরা, প্রবৃদ্ধি হবে ৭.৮ শতাংশ হাজার কোটি টাকার চেকের কপি প্রতারক চক্রের বাসায়! ৯ কর্মীকে তলব, একজনের বিদেশযাত্রায় নিষেধাজ্ঞা বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ ইন্দোনেশিয়া থেকে সরাসরি পণ্য আমদানির সুযোগ চায় বাংলাদেশ পার্বত্য জেলায় সন্ত্রাস-মাদক নির্মূল করা হবে-স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
২৯

চীনের মধ্যস্থতায় ত্রিপক্ষীয় বৈঠক নিয়ে আশাবাদী বাংলাদেশ

প্রকাশিত: ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

এবারের জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনের সময়, রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে চীনের মধ্যস্থতায় ত্রিপক্ষীয় বৈঠককে কেন্দ্র করে আশাবাদী বাংলাদেশ। নীতিনির্ধারকরা বলছেন, সবশেষ প্রত্যাবাসনের উদ্যোগ ভেস্তে যাওয়ার সময়, চীনা প্রতিনিধিদের উপস্থিতি, নতুন করে আশার সঞ্চার করেছে। রোহিঙ্গাদের ফেরত নিতে মিয়ানমারকে বাধ্য করার জন্য জাতিসংঘে বহুপাক্ষিক আলোচনারও আশা করা হচ্ছে। পররাষ্ট্র বিশ্লেষকরা বলছেন, চীনসহ বিশ্ব সম্প্রদায়ের কার্যকর ভূমিকা পেতে হলে কূটনৈতিক তৎপরতা জোরদার করার কোনো বিকল্প নেই।


দুই বছরেরও বেশি সময় পার হয়েছে মিয়ানমার থেকে পালিয়ে এসে আশ্রয় নেয়া এই রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর বাস্তুচ্যুত জীবনের। দীর্ঘ এই সময়ে নিপীড়িত এসব মানুষের ফিরে যাওয়া নিশ্চিত করতে কূটনৈতিকভাবে নানা পর্যায়ের চেষ্টা করা হলেও ফল শূন্য। গেলো দু'বছর সংকট সমাধানে জাতিসংঘে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দফায় দফায় সমাধান প্রস্তাব উত্থাপনের পরও মিয়ানমারের ওপর চাপ প্রয়োগে নিস্ক্রিয় বিশ্ব সম্প্রদায়। প্রত্যাবাসনের দুই দফা নিস্ফল উদ্যোগের মধ্যেই আবারো নিউইয়র্কে শুরু হচ্ছে জাতিসংঘের অধিবেশন।

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বলছেন, এবারের সম্মেলনে বহুপাক্ষিক আলোচনায় মিয়ানমারের ওপর চাপ দিতে আহ্বান থাকবে বিশ্ব সম্প্রদায়ের কাছে।

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম বলেন, এবারের পতিপাদ্য থেকে মাল্টিলেটিজম, এই বহুপাক্ষিক অভিজ্ঞতা থেকে আমাদের সিদ্ধান্তগুলো গ্রহণ করতে হবে। এবং আমরা মনে করি আমরা সঠিক পথেই আছি।

তিনি জানান, চীনের মধ্যস্থতায় ত্রিপক্ষীয় বৈঠকের মাধ্যমে কার্যকর অগ্রগতির প্রত্যাশা করছে বাংলাদেশ।


পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বলেন, ২২ আগস্টের যে একটা তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছিল, সেখানে চীন এবং মিয়ানমারের প্রতিনিধি উপস্থিত ছিলেন, তারা নিজেরা কথা বলেছেন। সেই জায়গা থেকে চীন বা বন্ধু অন্য রাষ্ট্রগুলো মিয়ানমারকে বোঝাতে, এবং বাধ্য করতে সক্ষম হবে।

তবে, কূটনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে, এ বৈঠক থেকে ফল পেতে সরকারকে কৌশলী হতে হবে।

কূটনৈতিক বিশ্লেষক বলেন, এখন কিন্তু আমরা চীনাদের স্পস্ট করে বলার প্রয়োজন মনে করছি। তারা যে যাবে তার গ্যারান্টি কে দিবে।

সংকট মোকাবিলায় বিশ্ব সম্প্রদায়ের দায়সারা মনোভাব পরিবর্তনের পাশাপাশি, মিয়ানমারকে বাধ্য করার জন্য কূটনৈতিকভাবে আরো দৃঢ় পদক্ষেপ নিতে হবে নীতিনির্ধারকদের, বলছেন বিশেষজ্ঞরা।

এই বিভাগের আরো খবর