সোমবার   ২০ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ৭ ১৪২৬   ২৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
দেশে মুক্তিযুদ্ধের পতাকাবাহী সরকার প্রতিষ্ঠিত: রাষ্ট্রপ‌তি সন্ধ্যায় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন আইসিসির সিইও সংসদের দক্ষিণ প্লাজায় এমপি মান্নানের প্রথম জানাজা সম্পন্ন সিপিবি’র সমাবেশে বোমা হামলা : ১০ জঙ্গির ফাঁসি এমপি মান্নানের মরদেহে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা আদালতে সিপিবির সমাবেশে বোমা হামলা মামলার ৪ আসামি চীনের জিনজিয়াং প্রদেশে শক্তিশালী ভূমিকম্প শহীদ আসাদ দিবস আজ বৈষম্য বিলোপ আইনের খসড়া তৈরির কাজ চলছে: আইনমন্ত্রী মানবতার কল্যাণ কামনায় শেষ হলো বিশ্ব ইজতেমা আখেরি মোনাজাতে অংশ নিতে লাখো মুসল্লি তুরাগতীরে পুরো পরীক্ষাই পেছাবে, নতুন সূচি আজ : শিক্ষামন্ত্রী ফাইভজির স্বপ্ন বাস্তবে পরিণত হবে শিগগির: অর্থমন্ত্রী ঢাকা সিটি ভোট পিছিয়ে ১ ফেব্রুয়ারি করার সিদ্ধান্ত ইসির এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা পিছিয়ে ৩ ফেব্রুয়ারি সংসদের দক্ষিণ প্লাজায় সোমবার মান্নানের জানাজা এমপি আব্দুল মান্নানের মৃত্যুতে গভীর শোক রাষ্ট্রপতির পদ্মা সেতুর ২২তম স্প্যান বসছে এ মাসেই আব্দুল মান্নানের মৃত্যুতে ওবায়দুল কাদেরের শোক এমপি মান্নানের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক
৫১

চার নয়, দুই বছরেই ইতালির নাগরিকত্ব

প্রকাশিত: ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯  

সহজ হলো ইতালির নাগরিকত্ব পাওয়া। নাগরিকত্ব গ্রহণের জন্য ৪ বছর অপেক্ষায় থাকার পরিবর্তে সময় কমিয়ে দুই বছর করা হয়েছে। গত ৩ অক্টোবর বিষয়টি ইতালির আইন সভা (কামরা) সংবিধান সংস্কার বিষয়ক কমিশনের কাছে উত্থাপন করা হয়েছে। শিগগিরই গেজেট আকারে প্রকাশ করা হবে বলে জানা গেছে।

বিশ্বের শক্তিশালী পাসপোর্টের তালিকায় ইতালির বর্তমান অবস্থান তৃতীয়। যৌথভাবে প্রথম অবস্থানে রয়েছে জাপান ও সিঙ্গাপুর, যৌথভাবে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে দক্ষিণ কোরিয়া, জার্মানি ও ফিনল্যান্ড। ইতালির সঙ্গে তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে ডেনমার্ক ও লুক্সেমবার্গ।

ইতালির পাসপোর্টধারীরা বর্তমানে ভিসা ছাড়াই ১৮৬টি দেশ ভ্রমণ করতে পারেন।

ইতালির ১৯৯২ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি পাস হওয়া আইনের ৯১ ধারা মতে, দেশটিতে নাগরিকত্ব পেতে হলে আবেদনের পর দুই বছর বা ৭৩০ দিন অপেক্ষা করতে হতো। যে কোন বিদেশি নাগরিক টানা দশ বছর ইতালিতে অবস্থানের পর আবেদন করতে পারেন।

কিন্তু গত বছরের ডিসেম্বরে ইতালির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মাতায়ো সালভিনি এই সময় পরিবর্তনে করে ২ বছরের যায়গায় ৪ বছর করেন। ফলে প্রবাসীদের জন্য ইতালির নাগরিকত্ব কঠিন হয়ে যায় এবং অপেক্ষার সময় দুই বছর বেড়ে যায়।

বর্তমান সরকার ক্ষমতায় আসার সঙ্গে সঙ্গে ইতালিয়ান নাগরিকত্ব সংস্কার আইনের সালভিনি কর্তৃক অনুমোদিত প্রধান অংশগুলো সংশোধনের উদ্যোগ নেয়। গত ২৯ সেপ্টেম্বর এ বিষয়ে প্রাথমিক পদক্ষেপ নেয়া হয়ে এবং  ৩ অক্টোবর ইতালির আইন সভা (কামরা ) সংবিধান সংস্কার বিষয়ক কমিশনের নিকট নতুন নিয়ম সম্পর্কিত প্রস্তাব উত্থাপন করে।

বর্তমানে তা চূড়ান্ত গেজেট আকারে প্রকাশের অপেক্ষায় রয়েছে। ইতালির নিয়ম অনুযায়ী, যেকোনো সংশোধনী আইন সভায় উত্থাপিত হওয়ার তারিখ হতে সর্বোচ্চ ১৮০ দিনের মধ্যে তা আইনে পরিণত হয়।