বুধবার   ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০   ফাল্গুন ৬ ১৪২৬   ২৪ জমাদিউস সানি ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
ধর্ষকদের ধরিয়ে দিন, কঠোর ব্যবস্থা নেবো: প্রধানমন্ত্রী টাকা না থাকলে এত উন্নয়ন কাজ করছি কীভাবে : প্রধানমন্ত্রী সব ব্যথা চেপে রেখে দেশের জন্য কাজ করছি : প্রধানমন্ত্রী ট্রেনে খোলা খাবার বিক্রি ও প্লাস্টিকের কাপ নিষিদ্ধ হচ্ছে চলতি বছরে জিপিএ-৪ কার্যকর হচ্ছে মজুদ গ্যাসে চলবে ২০৩০ সাল পর্যন্ত : খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী গুজব-অপপ্রচার রোধে কাজ করছে উচ্চ পর্যায়ের কমিটি : তথ্যমন্ত্রী সব কারখানায় ব্রেস্ট ফিডিং কর্নার স্থাপনের নির্দেশ আজ বাংলাদেশ-নেপাল পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বৈঠক সরকার-জনগণের মধ্যে সম্পর্ক জোরদার করতে সাংসদের রাষ্ট্রপতির আহ্বান দেশে রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা বিরাজ করছে : নাসিম ব্যাংকের জঙ্গি অর্থায়ন নজরদারিতে রয়েছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ৪০০ মেট্রিক টন মধু রফতানির অর্ডার পেয়েছে বাংলাদেশ : কৃষিমন্ত্রী নয় বছরে সাড়ে ৯৭ হাজার কর্মকর্তা নিয়োগ : জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী দেশে মোবাইল টাওয়ার রেডিয়েশনের মাত্রা ক্ষতিকর নয় : বিটিআরসি সন্ধ্যায় বঙ্গভবনে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী ২০ বছর পর আজ ঢাকায় আসছেন নেপালের পররাষ্ট্রমন্ত্রী খালেদার প্যারোলে মুক্তির কোনো আবেদন পাইনি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী উহান ফেরত শিক্ষার্থীরা নজরদারিতেই থাকবেন : আইইডিসিআর রোহিঙ্গা ইস্যুতে ইন্দোনেশিয়ার সহায়তা চাইলেন ড. মোমেন
৭১

গ্রেনেড হামলার ভয়াবহতা নিয়ে স্থাপনা শিল্প ‘আগস্ট ২১’

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ২২ আগস্ট ২০১৯  

আশপাশে ছড়ানো-ছিটানো অনেকগুলো জুতা, স্যান্ডেল। মাটিতে পড়ে আছে রক্তমাখা জামাকাপড় আর বেশ কয়েকটি প্রতীকী মরদেহ। এক দিকে রক্তমাখা কাপড়, জুতার পাটির স্তূপ। অডিওতে ভেসে আসছে শেখ হাসিনার ভাষণ আর তারপর গ্রেনেডের বিকট শব্দ।

ছুটে আসা অ্যাম্বুলেন্স, প্রাণ বাঁচাতে ছুটে চলা মানুষের আর্তনাদ আর স্বেচ্ছাসেবকদের আকুতি। ধোঁয়ায় আচ্ছাদিত ভাসমান মঞ্চের চারপাশ। পানিতে রক্তের ধারা। হামলার ভয়াবহতায় মেঝেতে পড়ে থাকা আহতদের চিৎকারে ভারি হয়ে উঠেছে বাতাস। যেন একখণ্ড বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউই চিত্রিত হয়ে উঠেছে ভাসমান মঞ্চে।

বুধবার (২১ আগস্ট) সন্ধ্যায় শিল্পকলা একাডেমির উন্মুক্ত প্রাঙ্গণের নন্দন মঞ্চে অনুষ্ঠিত হয় শিল্পের এই মনোজ্ঞ কর্মযজ্ঞ। ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট ভয়াবহ গ্রেনেড হামলায় নিহত ও আহতদের স্মরণে ‘আগস্ট ২১’ শীর্ষক স্থাপনা শিল্পে এভাবেই শিল্পের নান্দনিকতায় তুলে ধরা হয় সেদিনের বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউকে।

শিল্পকলা একাডেমি আয়োজিত ৫১ জন শিল্পীর অংশগ্রহণে এই স্থাপনা শিল্পের পরিকল্পনা করেন একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকী ও কিউরেটর শিল্পী ও অধ্যাপক শাহ্জাহান আহমেদ বিকাশ। আয়োজনে প্রধান অতিথি ছিলেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কেএম খালিদ।

প্রধান অতিথি বলেন, ২০০৪ এর ইতিহাস আমরা এখনো বয়ে বেড়াচ্ছি। ২১ আগস্ট মানে আমাদের কষ্টের দিন, শোকের দিন। সেদিনের ব্যথা শরীরে এখনো বয়ে বেড়াচ্ছেন অনেকে। বর্তমান সরকারের আমলেই ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার বিচারের রায় কার্যকর করা হবে। 

শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক বলেন, ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে অনুষ্ঠিত আওয়ামী লীগের সন্ত্রাসবিরোধী সমাবেশে গ্রেনেড হামলার মধ্য দিয়ে ২৪ জন মানুষকে হত্যা করা হয়। ওই হামলায় তৎকালীন বিরোধীদলীয় নেত্রী বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার অপচেষ্টা করা হয়। আর ইতিহাসের সেই বর্বরতম ঘটনায় নিহত ও আহতদের স্মরণে ও খুনিদের ধিক্কার জানাতেই শিল্পকলা একাডেমির এ আয়োজন।

এই বিভাগের আরো খবর