সোমবার   ২১ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ৫ ১৪২৬   ২১ সফর ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
কাউন্সিলর রাজীব ১৪ দিনের রিমান্ডে সোনাদিয়া দ্বীপে শিল্পকারখানা না করতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ রুশ ভাষায় প্রকাশিত বই প্রধানমন্ত্রীর কাছে হস্তান্তর যুবলীগের সম্মেলন কমিটির আহ্বায়ক চয়ন, সদস্য সচিব হারুন ওমর বহিষ্কার, যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তাপস বোরহানউদ্দিনে সংঘর্ষের ঘটনায় তদন্ত কমিটি মাছের খাদ্যে শূকরের উপাদান আছে কিনা পরীক্ষার নির্দেশ স্পিকারের সঙ্গে পাঁচ মার্কিন সিনেটরের সাক্ষাৎ বৃদ্ধাশ্রম নয়, মা-বাবার জায়গা হোক হৃদয়ের মণিকোঠায় ভারতের বিপক্ষে বিশ্ব একাদশে সাকিব-তামিম! হিন্দু ছেলের আইডি হ্যাক, ফেসবুকের কাছে তথ্য চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ডিআইজি বজলুরকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ আগৈলঝাড়া থানা পরিদর্শন করেন চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সৈকতঘেরা জাকার্তায় প্রকৃতির অপার সৌন্দর্য নেপাল ভ্রমণের খুঁটিনাটি ভ্রমণ জাপান সম্রাটের অভিষেকে যোগ দিতে ঢাকা ছেড়েছেন রাষ্ট্রপতি শিশুর জন্মের পর ইসিতে জানানোর আইন চান সিইসি গণভবনে যুবলীগ নেতাদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর বৈঠক আপনার ইমেইলেও থাকবে বসের নজরদারি! জঙ্গি হামলার শঙ্কা: নজরদারিতে দিল্লির ৪ শতাধিক স্থাপনা

গ্যাস বিক্রির মুচলেকা দিয়ে ক্ষমতায় এসেছিল বিএনপি: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত: ৯ অক্টোবর ২০১৯  

ভারতে এলপিজি (তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস) রফতানি সংক্রান্ত চুক্তি নিয়ে সমালোচনার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘আজ যারা বলছে গ্যাস বিক্রি করে দিচ্ছে, তারাই কিন্তু গ্যাস বিক্রির মুচলেকা দিয়ে ২০০১ সালে ক্ষমতায় এসেছিল। আমরা সবসময় আমাদের নিজেদের দেশের স্বার্থটাই দেখছি। আমরা এলপিজি উৎপাদন করি না, আমরা আমদানি করা গ্যাস থেকে তাদের দিচ্ছি।’

আজ বুধবার (৯ অক্টোবর) বিকাল সাড়ে ৩টায় গণভবনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন। প্রধানমন্ত্রীর সাম্প্রতিক ভারত ও যুক্তরাষ্ট্র সফর নিয়ে এই সংবাদ সম্মেলন ডাকা হয়।

গ্যাস রফতানি ও পানিবণ্টনে বাংলাদেশের স্বার্থ কতটা রক্ষা পেয়েছে এই প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা এলপিজি উৎপাদন করি না। তেল উৎপাদনের সময় গ্যাস ও অন্যান্য বাইপ্রোডাক্ট উঠে আসে। এর থেকে অল্প কিছু এলপিজি উৎপাদিত হয়। আগে দুইটা বেসরকারি ও একটা সরকারি কোম্পানি এটা করতো। তবে আমরা মূলত এলপিজি আমদানি করি। এখন আমাদের বাংলাদেশে প্রায় ২৬টি কোম্পানি এলপিজি বোতলজাত করছে, ১৮টি কোম্পানি উৎপাদন করছে। আমরা যে গ্যাস ত্রিপুরায় দিচ্ছি সেটা বটল গ্যাস (বোতলজাত গ্যাস)।’

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের কোনও স্বার্থ শেখ হাসিনা বিক্রি করবে এটা কোনও দিন হতে পারে না, এটা সবার জানা উচিত। আমরা ভারতের কাছ থেকে ১৬০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ কিনছি। ৫০০ মেগাওয়াট কেনার কথা ছিল, কিন্তু আমাদের অতটা লাগবে না। আমরা সবসময় আমাদের নিজেদের দেশের স্বার্থটাই দেখছি। ১৯৭১ সালের কথা মনে রাখবেন। আমাদের দেশের মানুষ নির্যাতিত হয়ে ত্রিপুরায় আশ্রয় নিয়েছিল, সেখানে আমাদের মুক্তিযোদ্ধাদের ট্রেনিং সেন্টার ছিল। আমরা আমদানি করা গ্যাস থেকেই তাদের দিচ্ছি।’

এই বিভাগের আরো খবর