রোববার   ১৭ নভেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ৩ ১৪২৬   ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
হলি আর্টিসান মামলার রায় ২৭ নভেম্বর ‘সরকারি কাজে স্বচ্ছতার বিকল্প নেই’- স্পিকার প্রশ্নপত্র ফাঁসের কোনো অভিযোগ নেই- গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী এফআর টাওয়ারের নকশা জালিয়াতি : বিএনপি নেতা ফারুকসহ ৩জন কারাগারে বরিশালে প্রাথমিক সমাপনীতে বসেছে ১ লাখ ৮৮ হাজার শিক্ষার্থী ছয় দিনের রিমান্ডে সম্রাট প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা শুরু: প্রস্তুত ২৯ লাখ শিক্ষার্থী আজ মজলুম জননেতা হামিদ খান ভাসানীর প্রয়াণ দিবস আমিরাতে পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা শুরু আজ আমার বাসায় সমস্ত রান্না হয়েছে পেঁয়াজ ছাড়া- প্রধানমন্ত্রী দুর্নীতির টাকা দিয়ে ফুটানি চলবে না : প্রধানমন্ত্রী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি নির্মল সম্পাদক বাবু বরিশালে হিজড়া জনগোষ্ঠীদের প্রশিক্ষণ কর্মশালা মাদক ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত থাকবে- শেখ হাসিনা পেঁয়াজ বিমানে উঠে গেছে কাল-পরশু এলেই দাম কমবে- প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী দুবাই যাচ্ছেন আজ স্বেচ্ছাসেবকলীগের সম্মেলন আজ মেসির জাদুতে ব্রাজিলকে হারাল আর্জেন্টিনা আয়কর দিলেন অর্থমন্ত্রী, রিটার্ন দাখিল প্রধানমন্ত্রীর
১৪

গ্যাস বিক্রির মুচলেকা দিয়ে ক্ষমতায় এসেছিল বিএনপি: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত: ৯ অক্টোবর ২০১৯  

ভারতে এলপিজি (তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস) রফতানি সংক্রান্ত চুক্তি নিয়ে সমালোচনার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘আজ যারা বলছে গ্যাস বিক্রি করে দিচ্ছে, তারাই কিন্তু গ্যাস বিক্রির মুচলেকা দিয়ে ২০০১ সালে ক্ষমতায় এসেছিল। আমরা সবসময় আমাদের নিজেদের দেশের স্বার্থটাই দেখছি। আমরা এলপিজি উৎপাদন করি না, আমরা আমদানি করা গ্যাস থেকে তাদের দিচ্ছি।’

আজ বুধবার (৯ অক্টোবর) বিকাল সাড়ে ৩টায় গণভবনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন। প্রধানমন্ত্রীর সাম্প্রতিক ভারত ও যুক্তরাষ্ট্র সফর নিয়ে এই সংবাদ সম্মেলন ডাকা হয়।

গ্যাস রফতানি ও পানিবণ্টনে বাংলাদেশের স্বার্থ কতটা রক্ষা পেয়েছে এই প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা এলপিজি উৎপাদন করি না। তেল উৎপাদনের সময় গ্যাস ও অন্যান্য বাইপ্রোডাক্ট উঠে আসে। এর থেকে অল্প কিছু এলপিজি উৎপাদিত হয়। আগে দুইটা বেসরকারি ও একটা সরকারি কোম্পানি এটা করতো। তবে আমরা মূলত এলপিজি আমদানি করি। এখন আমাদের বাংলাদেশে প্রায় ২৬টি কোম্পানি এলপিজি বোতলজাত করছে, ১৮টি কোম্পানি উৎপাদন করছে। আমরা যে গ্যাস ত্রিপুরায় দিচ্ছি সেটা বটল গ্যাস (বোতলজাত গ্যাস)।’

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের কোনও স্বার্থ শেখ হাসিনা বিক্রি করবে এটা কোনও দিন হতে পারে না, এটা সবার জানা উচিত। আমরা ভারতের কাছ থেকে ১৬০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ কিনছি। ৫০০ মেগাওয়াট কেনার কথা ছিল, কিন্তু আমাদের অতটা লাগবে না। আমরা সবসময় আমাদের নিজেদের দেশের স্বার্থটাই দেখছি। ১৯৭১ সালের কথা মনে রাখবেন। আমাদের দেশের মানুষ নির্যাতিত হয়ে ত্রিপুরায় আশ্রয় নিয়েছিল, সেখানে আমাদের মুক্তিযোদ্ধাদের ট্রেনিং সেন্টার ছিল। আমরা আমদানি করা গ্যাস থেকেই তাদের দিচ্ছি।’

এই বিভাগের আরো খবর