সোমবার   ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০   ফাল্গুন ৫ ১৪২৬   ২২ জমাদিউস সানি ১৪৪১

বরিশাল প্রতিবেদন
ব্রেকিং:
ব্যাংকের জঙ্গি অর্থায়ন নজরদারিতে রয়েছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ৪০০ মেট্রিক টন মধু রফতানির অর্ডার পেয়েছে বাংলাদেশ : কৃষিমন্ত্রী নয় বছরে সাড়ে ৯৭ হাজার কর্মকর্তা নিয়োগ : জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী দেশে মোবাইল টাওয়ার রেডিয়েশনের মাত্রা ক্ষতিকর নয় : বিটিআরসি সন্ধ্যায় বঙ্গভবনে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী ২০ বছর পর আজ ঢাকায় আসছেন নেপালের পররাষ্ট্রমন্ত্রী খালেদার প্যারোলে মুক্তির কোনো আবেদন পাইনি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী উহান ফেরত শিক্ষার্থীরা নজরদারিতেই থাকবেন : আইইডিসিআর রোহিঙ্গা ইস্যুতে ইন্দোনেশিয়ার সহায়তা চাইলেন ড. মোমেন ইউএনও’দের মাধ্যমে রাজাকারের তালিকা করা হবে : মোজাম্মেল হক মানবপাচারে অভিযুক্ত এমপির বিষয়ে দুদককে তদন্তের আহ্বান কাদেরের হত্যা মামলায় ৯ জনের যাবজ্জীবন বিশ্বকাপজয়ী ৬ ক্রিকেটারকে নিয়ে বিসিবি একাদশ ঘোষণা মশা মারার পর্যাপ্ত ঔষধ মজুত আছে : স্থানীয় সরকারমন্ত্রী রহমত আলীর মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শোক সাবেক মন্ত্রী অ্যাডভোকেট রহমত আলী আর নেই নিঃস্বার্থভাবে জনগণের কাজ করুন, নেতাকর্মীদের শেখ হাসিনা কে ভোট দিল কে দিল না তা বিবেচনা করে না আ. লীগ : প্রধানমন্ত্রী আ.লীগ উন্নয়নে বিশ্বাসী: প্রধানমন্ত্রী চীন থেকে দেশে আসা সবাই সুস্থ : আইইডিসিআর
২০৩

গৌরনদী ও আগৈলঝাড়া জুড়ে শোকের তোরণ

বরিশাল প্রতিবেদন

প্রকাশিত: ১৪ আগস্ট ২০১৯  

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট স্বাধীনতার স্থপতি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সাথে ঘাতকের নির্মম বুলেটে শাহাদাৎবরন করেছেন বরিশালের তৎকালীন গৌরনদী বর্তমান আগৈলঝাড়া উপজেলার কৃতি সন্তান বঙ্গবন্ধুর বোন জামাতা আব্দুর রব সেরনিয়াবাত ও তার পরিবারের ছয়জন সদস্য।

সেই থেকে ১৫ আগস্ট ভয়াল কালরাতে শহীদদের স্মরণে প্রতিবছরের ন্যায় অন্যান্য জেলা ও উপজেলার চেয়ে এবারও মাসব্যাপী শোকের মাস পালনে ব্যতিক্রমধর্মী আয়োজন করেছেন জেলার গৌরনদী ও আগৈলঝাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগ এবং তার সকল সহযোগি সংগঠনের নেতাকর্মীরা। শোকের মাসের প্রথমদিন থেকেই ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কসহ দুই উপজেলাজুড়ে প্রায় তিন শতাধিক শোকের তোরণ নির্মান করা হয়েছে। গতবছরের ন্যায় এবারও জাতীয় পুরস্কার প্রাপ্ত ইউপি চেয়ারম্যান সৈকত গুহ পিকলুর উদ্যোগে গৌরনদী উপজেলার মাহিলাড়া ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লেক্স ভবনকে শোকের চাদরে মুড়িয়ে দেয়া হয়েছে। এছাড়াও দলীয় ও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের উদ্যোগে জাতীয় শোক দিবসে নানান কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে।

সূত্রমতে, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট ঘাতকের নির্মম বুলেটে বরিশাল-১ (গৌরনদী-আগৈলঝাড়া) আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য মন্ত্রী আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহর পিতা তৎকালীন মন্ত্রী ও বঙ্গবন্ধুর বোন জামাতা আব্দুর রব সেরনিয়াবাত, শিশু পুত্র সুকান্ত বাবু সেরনিয়াবাত, বোন বেগম আরজু মনি, বেবী সেরনিয়াবাত, ভাই আরিফ সেরনিয়াবাত ও চাচাতো ভাই শহিদ সেরনিয়াবাত শহীদ হয়েছিলেন। সেদিন ঘাতকের নির্মম বুলেটে ক্ষতবিক্ষত হয়েও প্রানে বেঁচে যাওয়ার পর আজও শিশু পুত্র সুকান্ত বাবু সেরনিয়াবাতের স্মৃতি বহন করে চলছেন তার মা সাহান-আরা বেগম ও বাবা আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ।

এই বিভাগের আরো খবর